কলকাতা: জমি আন্দোলনের হাত ধরেই ক্ষমতায় এসেছিলেন তিনি। ২০০৭ সালের ১৪ মার্চ নন্দীগ্রামে পুলিশের গুলিতে ১৪ জন গ্রামবাসীর মৃত্যু নাড়িয়ে দিয়েছিল গোটা রাজ্যকে। তারপরই বদলে যায় রাজ্য রাজনীতির চালচিত্র। ২০১১-য় ক্ষমতায় আসে তৃণমূল কংগ্রেস। মুখ্যমন্ত্রী হন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ২০১৬ সালে দ্বিতীয় বার ক্ষমতায় আসার পরপরই সুপ্রিম কোর্ট রায় দেয়, সিঙ্গুর নিয়ে মমতার অবস্থান ঠিক ছিল। জমি অধিগ্রহণে ভুল ছিল বাম সরকারের।

সেই মমতা এখন মুখোমুখি জমি আন্দোলনের। একেবারে শহরের উপকণ্ঠে। কাজ বন্ধ হওয়ার সিদ্ধান্ত জানানোর পরও চলছে আন্দোলন। অগ্নিগর্ভ ভাঙড়ে গুলি চালিয়েছে পুলিশ। উঠেছে মৃত্যুর অভিযোগ।

এমন পরিস্থিতিতে মুখ্যমন্ত্রী টুইট করে জানালেন, “মানুষ না চাইলে জমি অধিগ্রহণ করা হবে না। বিদ্যুৎ প্রকল্প অন্যত্র সরিয়ে নেওয়া হবে”।

দেখা যাক মুখ্যমন্ত্রীর কথায় চিঁড়ে ভেজে কি না।  

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here