Connect with us

রাজ্য

দশম এবং দ্বাদশে এ বার টেস্ট নয়: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

“সকলেই মাধ্যমিক এবং উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা দেওয়ার অনুমতি পাবে”, ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর।

Published

on

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

কলকাতা: এ বার সমস্ত পড়ুয়াই মাধ্যমিক এবং উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা দিতে পারবে।

বুধবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) ঘোষণা করেন, “মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা পর্ষদ ও শিক্ষা বিভাগ একটা সিদ্ধান্ত নিয়েছে, দশম এবং দ্বাদশশ্রেণিতে পাঠরতদের টেস্ট পরীক্ষা নেওয়া হবে না। ২০২১-র জন্যে মাধ্যমিক এবং উচ্চ মাধ্যমিকের আগে টেস্ট হবে না। সকলেই মাধ্যমিক এবং উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা দেওয়ার অনুমতি পাবে”।

টেস্ট পরীক্ষা নেওয়া হয় সাধারণত মাধ্যমিক এবং উচ্চ মাধ্যমিকের দু’-তিন মাস আগে। কিন্তু করোনা পরিস্থিতিতে স্কুল বন্ধ থাকায় সিলেবাস নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়িয়েছে। পড়ুয়ারা জানাচ্ছে, সিলেবাস এখনও পর্যন্ত চূড়ান্ত করা হয়নি। একই সঙ্গে এই পরীক্ষা নিয়েও উদ্বেগ দেখা দিয়েছে। সেই উদ্বেগ কাটাতেই টেস্ট বাতিলের সিদ্ধান্ত নিল রাজ্য।

Loading videos...

একই সঙ্গে রাজ্যে শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে তিনি বলেন, “কোভিড মিটলেই টেট (TET) উত্তীর্ণদের নিয়োগ করা হবে। শূন্য শিক্ষকপদে সাড়ে ১৬ হাজার শিক্ষক নিয়োগ করা হবে। বাকিদের ধাপে ধাপে নিয়োগ করা হবে। আশা করা হচ্ছে, মাস দুয়েকের মধ্যেই শিক্ষক নিয়োগ হবে। ডিসেম্বর-জানুয়ারির মধ্যেই এই প্রক্রিয়া শুরু হবে যাবে। প্রাথমিক টেটে অফলাইনে পরীক্ষা হবে”।

তিনি বলেন, “দীর্ঘদিনের দাবি মেনে পশ্চিমবঙ্গ পুলিশ একটা বড়ো কাজ করেছে। মন্ত্রিপরিষদ কোচবিহার, নকশালবাড়ি, ঝাড়গ্রামে এবং পাহাড়ে নতুন করে তিনটি পুলিশ ব্যাটেলিয়ান গঠন করা হবে। কোচবিহারে নারায়ণী, পাহাড়ে গোর্খা এবং জঙ্গলমহল ব্যাটেলিয়ান গঠন করা হবে। এই ব্যাটেলিয়নগুলি ৩১ জানুয়ারি, ২০২১-এর মধ্যে গঠন করা হবে। ৩ ব্যাটেলিয়ানে ৩ হাজার করে নিয়োগ হবে। পুরোদস্তুর বিমান বন্দর গড়ে তুলতে বাগডোগরার জন্য আরও ৯৯ একর জমি দেওয়া হবে”।

আজ থেকেই রাজ্যে শুরু হয়েছে সাধারণ যাত্রীদের জন্য লোকাল ট্রেন (Local train) পরিষেবা। এ ব্যাপারে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “আরও লোকাল ট্রেন বাড়ানো হোক। বেশি ট্রেন চললে ভিড় কম হবে। তাতে করোনা সংক্রমণ এড়ানো সহজ হবে”।

আরও পড়তে পারেন: আড়াই লক্ষ আবেদন, শীঘ্রই প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগের পরীক্ষা, জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

Advertisement
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

রাজ্য

দুয়ারে সরকার: চার দিনেই ৭৫৮টি ক্যাম্পে ১৪ লক্ষ উপস্থিতি

এখনও পর্যন্ত সব থেকে বেশি উপস্থিতি দক্ষিণ ২৪ পরগনায়!

Published

on

কলকাতা: পশ্চিমবঙ্গ সরকারের নতুন প্রকল্প ‘দুয়ারে সরকার’ (Duare Sarkar)-এ অভাবনীয় সাড়া মিলল মাত্র চার দিনেই! সারা রাজ্যের প্রায় সাড়ে সাতশো ক্যাম্পে শুক্রবার পর্যন্ত সাক্ষাৎ করলেন ১৪ লক্ষের বেশি মানুষ।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায় ঘোষিত নতুন এই প্রকল্পটি চালু হয় গত ১ ডিসেম্বর। সরকারি পরিষেবার সুবিধা সাধারণ মানুষের দোরগড়ায় পৌঁছে দিতে ওই দিন থেকেই শুরু হয়েছে ‘দুয়ারে সরকার’ প্রকল্প। সরকারি তথ্য অনুযায়ী, বিভিন্ন সরকারি প্রকল্পের সুবিধা পেতে আবেদন জমা এবং সরকারি সুযোগ-সুবিধা সম্পর্কে খোঁজখবর নিতে শুক্রবার পর্যন্ত ১৪ লক্ষ ৯ হাজার ৭০৪ জন সারা রাজ্যের ৭৫৮টি ক্যাম্পে সাক্ষাৎ করেছেন।

এর মধ্যে দক্ষিণ ২৪ পরগনায় সব থেকে বেশি মানুষ ক্যাম্পে গিয়েছেন। এখনও পর্যন্ত জেলার ক্যাম্পগুলিতে উপস্থিত হয়েছেন ২ লক্ষ ২ হাজার ৪৩ জন। পুরসভার ওয়ার্ড, পঞ্চায়েত অফিস এবং অন্যত্র খোলা এই ক্য়াম্পগুলিতে পাঁচটি জেলায় উপস্থিতির সংখ্যা এক লক্ষের উপরে। যেগুলির মধ্যে রয়েছে বাঁকুড়া (১,১৮,৪৬৮), মুর্শিদাবাদ (১,১৭,৭৭৮), পশ্চিম মেদিনীপুর (১,০৭,৮৩৪) এবং উত্তর ২৪ পরগনা (১,২৬,৬৯০)। তবে সরকারি ওয়েবসাইট ‘এগিয়ে বাংলা‘য় প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, সব থেকে কম উপস্থিতি কালিম্পংয়ে (৩,৬৭২)।

Loading videos...

গত মঙ্গলবার প্রথম দিনেই সারা রাজ্যের শিবিরগুলিতে প্রায় তিন লক্ষ আবেদন জমা পড়েছে বলে জানা যায়।

সপ্তাহের শুরুতেই নবান্নের তরফে জানানো হয়, রাজ্যের ৩৪৪টি ব্লকে সব মিলিয়ে ২০ হাজার শিবির করা হবে। খাদ্যসাথী, স্বাস্থ্যসাথী, শিক্ষাশ্রী, কন্যাশ্রী, রূপশ্রী, ঐক্যশ্রী, জাতিগত শংসাপত্র, তফসিলি বন্ধু, জয় জোহার, কৃষকবন্ধু এবং একশো দিনের কাজের পরিষেবা কী ভাবে পাওয়া যাবে, তা জেনে নেওয়ার পাশাপাশি পর্যাপ্ত নথি দাখিলের মাধ্যমে আবেদনপত্র পূরণ করা যাবে প্রশাসনিক শিবিরগুলিতে।

পঞ্চায়েত ও পুরসভার ওয়ার্ড ভিত্তিকএই কর্মসূচি চলবে সারা রাজ্য জুড়ে। শিবিরে থাকবেন ১১টি সরকারি দফতরের কর্মী ও আধিকারিকেরা। আরও পড়তে পারেন: আজ থেকে ‘দুয়ারে সরকার’, জেনে নিন কোন দিন কী সুবিধা পাওয়া যাবে

Continue Reading

রাজ্য

কলকাতায় সক্রিয় রোগী ৬ হাজারের নীচে, রাজ্যে নতুন সংক্রমণে ব্যাপক পতন

রাজ্যে দৈনিক সংক্রমণের হার দ্রুতগতিতে কমছে।

Published

on

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রোজই রাজ্যে নতুন কোভিড সংক্রমণ কমছে। শুক্রবারও সেটা বহাল থাকল। তবে আরও বড়ো স্বস্তির খবর দিল কলকাতা। শহরে সক্রিয় কোভিডরোগীর সংখ্যা ৬ হাজারের নীচে চলে এসেছে।

রাজ্যের কোভিড তথ্য

গত ২৪ ঘণ্টায় পশ্চিমবঙ্গে নতুন করে কোভিডে (Covid 19) আক্রান্ত হয়েছেন ৩,২০৬ জন। এর ফলে রাজ্যে মোট কোভিডরোগীর সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৪ লক্ষ ৯৬ হাজার ৫২২ জন।

Loading videos...

গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৩,২১৫ জন। এর ফলে এখনও পর্যন্ত রাজ্যে মোট কোভিডজয়ীর সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৪ লক্ষ ৬৩ হাজার ৮৪৯। নতুন করে আরও ৫২ জনের মৃত্যু হওয়ায় রাজ্যে মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৮,৬২৮। রাজ্যে মৃত্যুহার বর্তমানে ১.৭৪ শতাংশে রয়েছে।

রাজ্যে বর্তমানে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ২৪ হাজার ৪৫ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ৬১ জন সক্রিয় রোগী কমেছে রাজ্যে। রাজ্যে সুস্থতার হার বর্তমানে ৯৩.৪২ শতাংশ।

দৈনিক সংক্রমণের হার অনেকটাই কমল

শুক্রবার রাজ্যে নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৪৪ হাজার ৩৫১টি। ফলে গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে দৈনিক সংক্রমণের হার ছিল ৭.২২ শতাংশ। রাজ্যে এখনও পর্যন্ত মোট ৬০ লক্ষ ৪৭ হাজার ২৭৯টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। এর বিপরীতে আক্রান্ত হয়েছেন ৮.২১ শতাংশ মানুষ।

হাসপাতাল শয্যা-তথ্য

সুস্থতা বাড়তে থাকায় হাসপাতালের শয্যা কিন্তু ধীরে ধীরে বাড়ছে রাজ্যে। বর্তমানে রাজ্যে সরকারি এবং বেসরকারি মিলিয়ে মোট ১০২টি হাসপাতালে কোভিড চিকিৎসা হচ্ছে। রাজ্য জুড়ে মোট ১৩ হাজার ৫৩৪টি শয্যা চিকিৎসার জন্য চিহ্নিত রয়েছে। এর মধ্যে ২৫.৫৮ শতাংশ শয্যা বর্তমানে ভরতি রয়েছে।

কলকাতায় সক্রিয় রোগী ৬ হাজারের নীচে

কলকাতা এবং উত্তর ২৪ পরগণা, দুই জেলাতেই নতুন আক্রান্তের সংখ্যা বেশ কিছুটা কমেছে। সেই সঙ্গে সক্রিয় রোগীর সংখ্যাও বেশ অনেকটাই কমেছে। এখন দুই জেলাতেই সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ৬ হাজারের নীচে নেমে এসেছে।

কলকাতায় গত ২৪ ঘণ্টায় ৭৯৪ জন আর উত্তর ২৪ পরগণায় ৬৯৪ জন নতুন করে কোভিডে আক্রান্ত হয়েছেন। এই দুই জেলায় যথাক্রমে ৮৬১ আর ৮৫০ জন সুস্থ হয়েছেন। কলকাতায় ১১ আর উত্তর ২৪ পরগণায় ১৭ জনের মৃত্যু হয়েছে।

কলকাতায় এখন মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১ লক্ষ ৯ হাজার ৯৪৯। উত্তর ২৪ পরগণায় মোট আক্রান্ত ১ লক্ষ ৩ হাজার ৭২১। কলকাতায় বর্তমানে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ৫,৯৮৮ জন এবং উত্তর ২৪ পরগণায় ৫,২৫৭।

কলকাতা আর উত্তর ২৪ পরগণায় বর্তমানে সুস্থ হয়ে ওঠা মানুষের সংখ্যা যথাক্রমে ১ লক্ষ ১ হাজার ৩১০ এবং ৯৬ হাজার ৪৩২। দুই জেলায় মৃত্যু হয়েছে যথাক্রমে ২,৬৫১ এবং ২,০৩২ জনের।

সক্রিয় রোগী বেড়েছে হাওড়া, দক্ষিণ ২৪ পরগণায়

গত ২৪ ঘণ্টায় হাওড়া এবং দক্ষিণ ২৪ পরগণায় সক্রিয় রোগীর সংখ্যা বেশ কিছুটা বেড়েছে। হুগলিতে কমেছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় দক্ষিণ ২৪ পরগণায় আক্রান্ত হয়েছেন ২১৬ জন, সুস্থ হয়েছেন ২০৪ জন। হাওড়ায় নতুন করে ১৪০ জন আক্রান্ত হয়েছেন, সুস্থ হয়েছেন ১৮৪ জন। অন্য দিকে হুগলিতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ১৮৫ জন, সুস্থ হয়েছেন ১৫১ জন।

শতাধিক আক্রান্ত রেকর্ড করল বাকি যে যে জেলা

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে আরও বাকি তিনটে জেলায় নতুন আক্রান্তের সংখ্যা একশোর ওপরে ছিল। এই জেলাগুলি হল

১) জলপাইগুড়ি (আক্রান্ত ১৪৪, সুস্থ ৯২)

২) দার্জিলিং (আক্রান্ত ১৩৪, সুস্থ ৯৯)

৩) নদিয়া (আক্রান্ত- ১৩৩ সুস্থ- ১৬৭)

খবরঅনলাইনে আরও পড়তে পারেন

ফ্রান্সে বিজয় মাল্যের ১৪ কোটি টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করল ইডি

Continue Reading

দঃ ২৪ পরগনা

সুন্দরবনের মৎস্যজীবীদের বিকল্প কাজ-সহ একাধিক দাবিতে চিতুরি বন দফতরে ডেপুটেশন

জবকার্ড, মৎস্যজীবী ও মধু সংগ্রহকারীদের জঙ্গলে যাওয়ার পাস এবং কর্মহীনদের জন্য ভাতার দাবিতে স্মারকলিপি।

Published

on

চিতুরি বন দফতরে ডেপুটেশন। ছবি: প্রতিবেদক

উজ্জ্বল বন্দ্যোপাধ্যায়, কুলতলি: লকডাউনে বিপাকে পড়া সুন্দরবনের মানুষের পাশে দাঁড়াল মানবাধিকার সংগঠন এপিডিআর। শুক্রবার জবকার্ড, মৎস্যজীবী ও মধু সংগ্রহকারীদের জঙ্গলে যাওয়ার পাস এবং কর্মহীনদের জন্য ভাতার দাবিতে স্মারকলিপি দেওয়া হল রায়দিঘি রেঞ্জের চিতুরি বিট অফিসে।

সুন্দরবনের নদী খাঁড়িতে মাছ-কাকঁড়া ধরে বহু মানুষ জীবিকা নির্বাহ করেন। আর এ সব ধরতে গিয়ে প্রায় দিন বাঘের কামড়ে প্রাণ হারাচ্ছেন অনেকে। লকডাউনের দীর্ঘ আট মাসে সুন্দরবনে বাঘের কামড়ে মৃত্যু হয়েছে ১৪ জন মৎস্যজীবীর। আহত আরও বেশ কিছু মানুষ। লকডাউনে কর্মহীন হয়ে বহু মানুষ গ্রামে ফিরে এসে পেটের টানে জঙ্গলে যেতে বাধ্য হচ্ছেন। বিকল্প কর্মসংস্থানও সে ভাবে তাঁরা পাচ্ছে না। আর তাই এই সব মৎস্যজীবীদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছে এপিডিআর।

সংগঠনের তথ্যানুসন্ধান অনুযায়ী শুধুমাত্র কুলতলি ব্লকের মৈপীঠ এলাকায় দীর্ঘদিনের লকডাউনের জেরে এলাকার বহু মানুষ এখনও কর্মহীন। এর মধ্যে ভিন রাজ্যের শ্রমিকরাও রয়েছেন। সামগ্রিক ভাবে এলাকার মানুষ ভীষণ আর্থিক সংকট ও দুরবস্থার মধ্যে দিয়ে দিন কাটাচ্ছেন। বন দফতরের মাধ্যমে জবকার্ড হোল্ডারদের এনআরজিএস প্রকল্পে কাজ করানো হচ্ছে। কিন্তু দফতরের এই কাজে অনিয়মের অভিযোগ তুলেছেন গ্রামবাসীরা। কয়েকশো সুবিধা বঞ্চিত মহিলা ও পুরুষ মৎস্যজীবীদের নিয়ে শুক্রবার দুপুরে বন দফতরের রায়দিঘি রেঞ্জের চিতুরি বিট অফিসে ডেপুটেশন দিল এপিডিআর।

Loading videos...

এ ব্যাপারে এপিডিআরের জেলা সভাপতি আলতাফ হোসেন বলেন, “প্রত্যেক মৎস্যজীবীকে নদীতে যাওয়ার পাস দিতে হবে। কোনো রাজনৈতিক রং দেখে নয়, সবাইকে এনআরজিএস প্রকল্পে ক্রমানুসারে কাজ দিতে হবে। যাঁরা পাস পাননি, তাঁদের বিশেষ ভাতার ব্যবস্থা করতে হবে। শুধু কাজের বিনিময়ে বকেয়া জবকার্ডের টাকা অবিলম্বে মিটিয়ে দেওয়ার ব্যবস্থা করতে হবে। মৎস্যজীবীদের জীবিকার ওপর কোনো অজুহাতে কোনো ভাবে হস্তক্ষেপ করা চলবে না। মধু ভাঙার বিশেষ পাসের ব্যবস্থা করতে হবে”।

এ ব্যাপারে বন দফতরের চিতুরি বিট অফিসার গোলাম সেখ বলেন, “আমি ওনাদের দাবিগুলো দেখলাম। আর ওনাদের ডেপুটেশনও গ্রহণ করেছি। আমি এ ব্যাপারে আমার ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে দেখব, যাতে এই সমস্যাগুলির সমাধান করা যায়”।

আরও পড়তে পারেন: বিক্ষোভরত কৃষকদের সঙ্গে কথা বললেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

Continue Reading
Advertisement
Advertisement
ফুটবল32 mins ago

মরশুমের প্রথম জয় বেঙ্গালুরুর, প্রথম হার চেন্নাইয়ের

রাজ্য3 hours ago

দুয়ারে সরকার: চার দিনেই ৭৫৮টি ক্যাম্পে ১৪ লক্ষ উপস্থিতি

রাজ্য3 hours ago

কলকাতায় সক্রিয় রোগী ৬ হাজারের নীচে, রাজ্যে নতুন সংক্রমণে ব্যাপক পতন

Vijay Mallya
বিদেশ3 hours ago

ফ্রান্সে বিজয় মাল্যের ১৪ কোটি টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করল ইডি

দেশ4 hours ago

হায়দরাবাদে উত্থান বিজেপির, ইস্তফা প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতির!

দেশ5 hours ago

হায়দরাবাদ পুরসভার ক্ষমতা দখল থেকে দূরে থাকলেও বড়োসড়ো সাফল্য বিজেপির!

দঃ ২৪ পরগনা5 hours ago

সুন্দরবনের মৎস্যজীবীদের বিকল্প কাজ-সহ একাধিক দাবিতে চিতুরি বন দফতরে ডেপুটেশন

দেশ6 hours ago

মঙ্গলবার ভারত বন্‌ধের ডাক দিলেন আন্দোলনরত কৃষকরা

কেনাকাটা

কেনাকাটা14 hours ago

পোর্টেবল গিজারের ওপর বিশেষ ছাড় বেশ কয়েকটি মডেলে

খবর অনলাইন ডেস্ক: শীতকাল মানেই কনকনে ঠান্ডায় উষ্ণ জলের প্রয়োজন। সেই গরম জলের প্রয়োজন মেটাতে পারে গিজার। অ্যামাজনে কয়েক ধরনের...

কেনাকাটা3 days ago

ব্র্যান্ডেড কোম্পানির ইমারশন রডে ২ বছর পর্যন্ত ওয়ার‍্যান্টি পাওয়া যাচ্ছে

খবর অনলাইন ডেস্ক: শীতকালে গরম জলে স্নান করার মজাই আলাদা। জল গরম করার জন্য কি ওয়াটার হিটার খুঁজছেন? কিনতে পারেন...

কেনাকাটা1 week ago

৫০০ টাকার মধ্যে অত্যাধুনিক হেডফোন

খবর অনলাইন ডেস্ক: হেডফোন খারাপ হয়ে গেছে? সস্তায় নতুন ধরনের হেডফোন খুঁজছেন? হেডফোনের কয়েকটি অত্যাধুনিক কালেকশন রইল অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন...

কেনাকাটা1 week ago

শীতের নতুন কিছু আইটেম, দাম নাগালের মধ্যে

খবর অনলাইন ডেস্ক: শীত এসে গিয়েছে। সোয়েটার জ্যাকেট কেনার দরকার। কিন্তু বাইরে বেরিয়ে কিনতে যাওয়া মানেই বাড়ি এসে এই ঠান্ডায়...

কেনাকাটা1 week ago

ঘর সাজানোর জন্য সস্তার নজরকাড়া আইটেম

খবর অনলাইন ডেস্ক: ঘরকে একঘেয়ে দেখতে অনেকেরই ভালো লাগে না। তাই আসবারপত্র ঘুরিয়ে ফিরে রেখে ঘরের ভোলবদলের চেষ্টা অনেকেই করেন।...

কেনাকাটা2 weeks ago

লিভিংরুমকে নতুন করে দেবে এই দ্রব্যগুলি

খবর অনলাইন ডেস্ক: ঘরের একঘেয়েমি কাটাতে ও সৌন্দর্য বাড়াতে ডিজাইনার আলোর জুড়ি মেলা ভার। অ্যামাজন থেকে তেমনই কয়েকটি হাল ফ্যাশনের...

কেনাকাটা2 weeks ago

কয়েকটি প্রয়োজনীয় জিনিস, দাম একদম নাগালের মধ্যে

খবর অনলাইন ডেস্ক: কাজের সময় হাতের কাছে এই জিনিসগুলি থাকলে অনেক খাটুনি কমে যায়। কাজও অনেক কম সময়ের মধ্যে করে...

কেনাকাটা4 weeks ago

দীপাবলি-ভাইফোঁটাতে উপহার কী দেবেন? দেখতে পারেন এই নতুন আইটেমগুলি

খবর অনলাইন ডেস্ক : সামনেই কালীপুজো, ভাইফোঁটা। প্রিয় জন বা ভাইবোনকে উপহার দিতে হবে। কিন্তু কী দেবেন তা ভেবে পাচ্ছেন...

কেনাকাটা1 month ago

দীপাবলিতে ঘর সাজাতে লাইট কিনবেন? রইল ১০টি নতুন কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আসছে আলোর উৎসব। কালীপুজো। প্রত্যেকেই নিজের বাড়িকে সুন্দর করে সাজায় নানান রকমের আলো দিয়ে। চাহিদার কথা মাথায় রেখে...

কেনাকাটা2 months ago

মেয়েদের কুর্তার নতুন কালেকশন, দাম ২৯৯ থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক: পুজো উপলক্ষ্যে নতুন নতুন কুর্তির কালেকশন রয়েছে অ্যামাজনে। দাম মোটামুটি নাগালের মধ্যে। তেমনই কয়েকটি রইল এখানে। প্রতিবেদন...

নজরে