Connect with us

রাজ্য

দশম এবং দ্বাদশে এ বার টেস্ট নয়: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

“সকলেই মাধ্যমিক এবং উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা দেওয়ার অনুমতি পাবে”, ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর।

Published

on

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

কলকাতা: এ বার সমস্ত পড়ুয়াই মাধ্যমিক এবং উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা দিতে পারবে।

বুধবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) ঘোষণা করেন, “মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা পর্ষদ ও শিক্ষা বিভাগ একটা সিদ্ধান্ত নিয়েছে, দশম এবং দ্বাদশশ্রেণিতে পাঠরতদের টেস্ট পরীক্ষা নেওয়া হবে না। ২০২১-র জন্যে মাধ্যমিক এবং উচ্চ মাধ্যমিকের আগে টেস্ট হবে না। সকলেই মাধ্যমিক এবং উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা দেওয়ার অনুমতি পাবে”।

Loading videos...

টেস্ট পরীক্ষা নেওয়া হয় সাধারণত মাধ্যমিক এবং উচ্চ মাধ্যমিকের দু’-তিন মাস আগে। কিন্তু করোনা পরিস্থিতিতে স্কুল বন্ধ থাকায় সিলেবাস নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়িয়েছে। পড়ুয়ারা জানাচ্ছে, সিলেবাস এখনও পর্যন্ত চূড়ান্ত করা হয়নি। একই সঙ্গে এই পরীক্ষা নিয়েও উদ্বেগ দেখা দিয়েছে। সেই উদ্বেগ কাটাতেই টেস্ট বাতিলের সিদ্ধান্ত নিল রাজ্য।

একই সঙ্গে রাজ্যে শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে তিনি বলেন, “কোভিড মিটলেই টেট (TET) উত্তীর্ণদের নিয়োগ করা হবে। শূন্য শিক্ষকপদে সাড়ে ১৬ হাজার শিক্ষক নিয়োগ করা হবে। বাকিদের ধাপে ধাপে নিয়োগ করা হবে। আশা করা হচ্ছে, মাস দুয়েকের মধ্যেই শিক্ষক নিয়োগ হবে। ডিসেম্বর-জানুয়ারির মধ্যেই এই প্রক্রিয়া শুরু হবে যাবে। প্রাথমিক টেটে অফলাইনে পরীক্ষা হবে”।

তিনি বলেন, “দীর্ঘদিনের দাবি মেনে পশ্চিমবঙ্গ পুলিশ একটা বড়ো কাজ করেছে। মন্ত্রিপরিষদ কোচবিহার, নকশালবাড়ি, ঝাড়গ্রামে এবং পাহাড়ে নতুন করে তিনটি পুলিশ ব্যাটেলিয়ান গঠন করা হবে। কোচবিহারে নারায়ণী, পাহাড়ে গোর্খা এবং জঙ্গলমহল ব্যাটেলিয়ান গঠন করা হবে। এই ব্যাটেলিয়নগুলি ৩১ জানুয়ারি, ২০২১-এর মধ্যে গঠন করা হবে। ৩ ব্যাটেলিয়ানে ৩ হাজার করে নিয়োগ হবে। পুরোদস্তুর বিমান বন্দর গড়ে তুলতে বাগডোগরার জন্য আরও ৯৯ একর জমি দেওয়া হবে”।

আজ থেকেই রাজ্যে শুরু হয়েছে সাধারণ যাত্রীদের জন্য লোকাল ট্রেন (Local train) পরিষেবা। এ ব্যাপারে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “আরও লোকাল ট্রেন বাড়ানো হোক। বেশি ট্রেন চললে ভিড় কম হবে। তাতে করোনা সংক্রমণ এড়ানো সহজ হবে”।

আরও পড়তে পারেন: আড়াই লক্ষ আবেদন, শীঘ্রই প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগের পরীক্ষা, জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

Advertisement
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

রাজ্য

Bengal Corona Update: গ্রামাঞ্চলেও দাপট বাড়ছে করোনার, মোকাবিলায় বিশেষ পদক্ষেপ স্বাস্থ্য দফতরের

করোনার এই ঝড়কে থামাতেই হবে।

Published

on

খবরঅনলাইন ডেস্ক: গত বছর করোনাভাইরাসের প্রথম ঢেউয়ে জর্জরিত হয়েছিল মূলত শহরাঞ্চল। কিন্তু দ্বিতীয় ঢেউয়ে সে শহরের সীমানা ছাড়িয়ে গ্রামেও প্রবেশ করে গিয়েছে। রোজ নিয়ম করে জ্বর-সর্দির উপসর্গ নিয়ে বিভিন্ন প্রাথমিক ও ব্লক হাসপাতালে রোগীর ভিড় বাড়ছে। ফলে রীতিমতো উদ্বিগ্ন স্বাস্থ্য দফতর। গ্রামাঞ্চলে কোভিডের দাপট কতটা ভয়াবহ, সেটা বীরভূম, মালদহ, মুর্শিদাবাদের করোনা সংক্রমণের দৈনিক সংখ্যাটা দেখলেই বোঝা যাচ্ছে।

নতুন এই সমস্যার মোকাবিলা করতে পদক্ষেপ নিল স্বাস্থ্য দফতর। রাজ্যের সমস্ত ব্লক স্বাস্থ্যকেন্দ্র এবং প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে করোনা আক্রান্তদের জন্য শয্যার ব্যবস্থা বাধ্যতামূলক করা হচ্ছে। বৃহস্পতিবার এই মর্মে সরকারি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ হয়েছে।

Loading videos...

স্বাস্থ্য দফতরের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, শহর বা মফস্বলের মতো গ্রামের প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রেও এখন থেকে আইসোলেশন ওয়ার্ড তৈরি করতে হবে। ব্লক, গ্রামীণ এবং প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে অন্তত ৫-১০টি শয্যা সিভিয়ার অ্যাকিউট রেসপিরেটরি ইলনেস বা মৃদু উপসর্গ যুক্ত রোগীদের জন্য বরাদ্দ করতে হবে।

নির্দেশিকায় আরও বলা হয়েছে, আইসোলেশন শয্যার জন্য অক্সিজেনের ব্যবস্থা করতে হবে। রাখতে হবে অ্যাম্বুল্যান্স যাতে রোগীর শরীরের অবস্থা সংকটজনক হলে দ্রুত ব্যবস্থা নিয়ে বড়ো হাসপাতালে পাঠানো যায়।

এই প্রসঙ্গে রাজ্যের স্বাস্থ্য অধিকর্তা ডাঃ অজয় চক্রবর্তী বলেন, ”করোনা সংক্রমণ এখন শহর থেকে গ্রামেও ছড়িয়ে যাচ্ছে। বাড়ির কাছে প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে যাতে রোগীর দ্রুত চিকিৎসা করা সম্ভব হয়, সেই জন্য এই পদক্ষেপ।” তাঁর কথায়, “একটা বড়ো সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। চলতি পরিকাঠামোর মধ্যেই জনস্বার্থে এই পদক্ষেপ নিতে হবে সংশ্লিষ্ট হাসপাতাল ও গ্রামীণ হাসপাতালের আধিকারিকদের।”

আরও পড়তে পারেন Bengal Corona Update: থমকে গিয়েছে নিম্নগামী যাত্রা, পর পর পাঁচ দিন রাজ্যের কোভিডমুক্তির হার ঊর্ধ্বমুখী

Continue Reading

রাজ্য

Bengal Corona Update: থমকে গিয়েছে নিম্নগামী যাত্রা, পর পর পাঁচ দিন রাজ্যের কোভিডমুক্তির হার ঊর্ধ্বমুখী

স্বস্তির খবর।

Published

on

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রাজ্যে করোনা সংক্রমণে লাগাম পড়ার এখনও কোনো খবর নেই। একটাই স্বস্তির খবর হল, সংক্রমণের হারটি আর বাড়ছে না। গত ২৬ এপ্রিল যেটা ৩৩ শতাংশে উঠে গিয়েছিল, সেটা এখন ৩০ শতাংশের আশেপাশে ঘোরাফেরা করছে। যদিও এটাও খুবই বেশি। এর প্রকৃত অর্থ হল এখন প্রতি তিন জনের মধ্যে একজন কোভিড পজিটিভ।

কিন্তু এর মধ্যেও স্বস্তির একটা ব্যাপার রয়েছে। পর পর পাঁচ দিন রাজ্যের কোভিডমুক্তির হার ঊর্ধ্বমুখী। গত মার্চ থেকে যে হারটা কমতে শুরু করে দিয়েছিল, রবিবার থেকে তা ফের বাড়ছে।

Loading videos...

উল্লেখ্য, দেশের গড় সুস্থতার হারের থেকে বেশি থেকে রাজ্যের সুস্থতার হার। মার্চে দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ার আগে পর্যন্ত এই হার ৯৭ শতাংশে পৌঁছে গিয়েছিল। তার পর থেকে তা ক্রমশ কমতে শুরু করে। কমতে কমতে গত ১ মে শনিবার সেটা নেমে এসেছিল ৮৪.৮৬ শতাংশে। কিন্তু তার পরের দিন থেকেই সেটা বাড়তে শুরু করে।

২ মে সুস্থতার হার ছিল ৮৪.৯৪ শতাংশ। ৩ মে সেটা আরও কিছুটা বেড়ে হয় ৮৫.০৬ শতাংশ, ৪ মে আরও কিছুটা বেড়ে রাজ্যের সুস্থতার হার পৌঁছে যায় ৮৫.২৩ শতাংশ। ৫ মে সুস্থতার হার ছিল ৮৫.৪১ শতাংশ এবং সর্বশেষ অর্থাৎ ৬ মে’র বুলেটিন অনুযায়ী রাজ্যের সুস্থতার হার পৌঁছে গিয়েছে ৮৫.৪৯ শতাংশ।

এর মূল কারণ হল গত পাঁচ দিন রাজ্যে যত জন আক্রান্ত হয়েছেন, সুস্থতার সংখ্যাটি তার সঙ্গে রীতিমতো পাল্লা দিয়েছে। এ ছাড়া গত তিন দিন ধরে যে ব্যাপারটা লক্ষ করা যাচ্ছে তা হল সক্রিয় রোগীর সংখ্যায় এক হাজারেরও কম বৃদ্ধি। এই পরিসংখ্যান দেখে আন্দাজ করা যায় যে সংক্রমণের বৃদ্ধিটা যদি আটকে যায়, তা হলে অবিলম্বেই সেটাকে পেরিয়ে যাবে দৈনিক সুস্থতার সংখ্যা। কমতে শুরু করবে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা।

আরও পড়তে পারেন Coronavirus Second Wave: সংক্রমণ ঠেকাতে লকডাউনের শরণাপন্ন একাধিক রাজ্য, দেখে নিন তালিকা

Continue Reading

রাজ্য

Bengal Corona Update: দৈনিক সংক্রমণে স্থিতাবস্থা অব্যাহত, কলকাতায় সক্রিয় রোগীর সংখ্যায় বড়ো পতন

পর পর পাঁচ দিন রাজ্যে বাড়ল সুস্থতার হার।

Published

on

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রাজ্যে দিন দিন টেস্টের সংখ্যা বাড়ানো হচ্ছে। সে কারণে দৈনিক সংক্রমণও আগের দিনের তুলনায় বেড়ে যাচ্ছে। কিন্তু আদতে সংক্রমণের স্থিতাবস্থাই রয়েছে। কারণ সংক্রমণের হারে কোনো বদল নেই। সেটা এখনও স্বাভাবিকের থেকে অত্যন্ত বেশি হলেও, ২৬-এ এপ্রিলের পর থেকে আর বাড়েইনি। সে কারণে রাজ্যের সংক্রমণের একটা স্থিতাবস্থা এসেছে বলে মনে করা হচ্ছে। সংক্রমণ বাড়ছে বলে মৃতের সংখ্যা অত্যন্ত বেশি হলেও মৃত্যুহার হিসেবে তা এক্কেবারেই নগণ্য। রাজ্যবাসীর এখন একমাত্র আশা, সংক্রমণে যেন আগামী দিনে আর না বাড়ে।

রাজ্যের কোভিড পরিস্থিতি

এ দিন স্বাস্থ্য দফতরের প্রকাশিত বুলেটিন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় গোটা রাজ্যে আক্রান্ত হয়েছেন ১৮ হাজার ৪৩১ জন। এখনও পর্যন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৯ লক্ষ ৩৫ হাজার ৬৬।

Loading videos...

গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ১৭ হাজার ৪১২ জন। এর ফলে এখনও পর্যন্ত রাজ্যে মোট কোভিডজয়ীর সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৮ লক্ষ ৮২ হাজার ৩২৮ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ১১৭ জনের মৃত্যু হয়েছে রাজ্যে। রাজ্যে এখনও পর্যন্ত কোভিডে প্রাণ হারিয়েছেন মোট ১১ হাজার ৯৬৪ জন।

রাজ্যে বর্তমানে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ১ লক্ষ ২২ হাজার ৭৭৪ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ৯০২ জন সক্রিয় রোগী বেড়েছে রাজ্যে। রাজ্যে সুস্থতার হার কিছুটা বেড়ে হয়েছে ৮৫.৫৯ শতাংশ। উল্লেখ্য, গত মার্চে ৯৭ শতাংশে পৌঁছে যাওয়া সুস্থতার হারটি টানা কমতে কমতে গত শনিবার দিন ৮৪ শতাংশে এসে গিয়েছিল। রবিবার থেকে ফের তা বাড়তে শুরু করেছে।

দৈনিক সংক্রমণের হার একই রকম

রাজ্যে দৈনিক সংক্রমণের পাশাপাশি সংক্রমণের হারেও স্থিতাবস্থা এসে গিয়েছে। যদিও এখনও পর্যন্ত সংক্রমণের হার অস্বাভাবিক বেশি রয়েছে, তবুও আশা করাই যায় আগামী দিনে এই হার দ্রুতগতিতে কমতে শুরু করবে।

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে টেস্ট হয়েছে ৬০ হাজার ১০৫টি। করোনাকালে এটাই রাজ্যে সর্বোচ্চ দৈনিক নমুনা পরীক্ষা। এর বিপরীতে সংক্রমণের হার ছিল ৩০.৬৬ শতাংশ। উল্লেখ্য, গত সপ্তাহের সোমবার এই সংক্রমণের হার ৩৩ শতাংশে উঠে গিয়েছিল। তার পর থেকে এটা কিছুটা কমই রয়েছে। এ যাবতকালে সংক্রমণের হারে এটাই দীর্ঘতম স্থিতাবস্থা চলছে রাজ্যে।

রাজ্যের সামগ্রিক সংক্রমণের হার বর্তমানে রয়েছে ৮.৬৮ শতাংশ। বৃহস্পতিবার পর্যন্ত মোট ১ কোটি ৭ লক্ষ ৭৭ হাজার ৭১৮টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে।

কলকাতা ও উত্তর ২৪ পরগণায় কমল সক্রিয় রোগী

গত ২৬ এপ্রিলের পর থেকে কলকাতা এবং উত্তর ২৪ পরগণার দৈনিক সংক্রমণ কার্যত এক জায়গাতেই ঘোরাঘুরি করছে। দশ দিন ধরে সংক্রমণ এক জায়গায় রয়েছে মানে বিশেষজ্ঞরা অনেকেই মনে করছেন এই দুই জেলায় সংক্রমণ সম্ভবত চূড়ার কাছাকাছি চলে এসেছে। এ দিকে গত ২৪ ঘণ্টায় দুই জেলাতেই সক্রিয় রোগীর সংখ্যায় বড়ো রকমের পতন হয়েছে।

কলকাতায় গত ২৪ ঘণ্টায় ৩,৮৮৭ এবং উত্তর ২৪ পরগণায় ৩,৯২২ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এই দুই জেলায় সুস্থ হয়েছেন যথাক্রমে ৩,৯৮৭ এবং ৩,৯৪৪ জন। কলকাতায় ৩৩ এবং উত্তর ২৪ পরগণায় ৩৬ জনের মৃত্যু হয়েছে।

কলকাতায় এখন মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ২ লক্ষ ১৫ হাজার ৪১, উত্তর ২৪ পরগণায় মোট আক্রান্ত ২ লক্ষ ১ হাজার ৩৯৯। কলকাতায় বর্তমানে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ২৬ হাজার ২৬৯ জন এবং উত্তর ২৪ পরগণায় ২৩ হাজার ৫৫৬ জন। দুই জেলায় মৃত্যু হয়েছে যথাক্রমে ৩,৫৮৮ এবং ২,৯৩৭ জনের।

উল্লেখ্য, কলকাতায় গত ২৪ ঘণ্টায় ১৩৩ এবং উত্তর ২৪ পরগণায় ৫৮ জন সক্রিয় রোগী কমেছে।

রাজ্যের বাকি জেলার চিত্র

রাজ্যের বাকি জেলার করোনা পরিস্থিতি তো ভয়াবহই রয়েছে। কিন্তু সব জেলাতেই গত কয়েকদিন ধরে সংক্রমণে একটা স্থিতাবস্থা লক্ষ্য করা যাচ্ছে। অন্যদিকে, বেশ কয়েকটি জেলায় দৈনিক সংক্রমণকে ছাপিয়ে যাচ্ছে দৈনিক সুস্থতা। ফলে সেখানে পরিস্থিতির কিঞ্চিৎ উন্নতিও হচ্ছে।

কলকাতা ও উত্তর ২৪ পরগণা বাদে গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যের অন্যান্য জেলায় নতুন সংক্রমণ এবং সুস্থতার সংখ্যা কেমন ছিল, দেখে নিন।

১) আলিপুরদুয়ার

নতুন করে আক্রান্ত – ৪৮

সুস্থ হলেন – ৬৪

২) কোচবিহার

নতুন করে আক্রান্ত – ২১৫

সুস্থ হলেন – ১৮১

৩) দার্জিলিং

নতুন করে আক্রান্ত – ৫৯৮

সুস্থ হলেন – ৪৪৭

৪) কালিম্পং

নতুন করে আক্রান্ত – ৪৫

সুস্থ হলেন – ৪৬

৫) জলপাইগুড়ি

নতুন করে আক্রান্ত – ২০০

সুস্থ হলেন – ২২৮

৬) উত্তর দিনাজপুর

নতুন করে আক্রান্ত – ২৭৯

সুস্থ হলেন – ২৯৭

৭) দক্ষিণ দিনাজপুর

নতুন করে আক্রান্ত – ১৮৫

সুস্থ হলেন -১৪৩

৮) মালদহ

নতুন করে আক্রান্ত – ৫৭৫

সুস্থ হলেন – ৬১১

৯) মুর্শিদাবাদ

নতুন করে আক্রান্ত – ৫৯৩

সুস্থ হলেন – ৬২২

১০) নদিয়া

নতুন করে আক্রান্ত – ৮৫২

সুস্থ হলেন – ৬৩৯

১১) বীরভূম

নতুন করে আক্রান্ত – ৭০৫

সুস্থ হলেন – ৭৭২

১২) পশ্চিম বর্ধমান

নতুন করে আক্রান্ত – ৮৪২

সুস্থ হলেন – ৮৮৬

১৩) পূর্ব বর্ধমান

নতুন করে আক্রান্ত – ৮১০

সুস্থ হলেন – ৩৮৫

১৪) বাঁকুড়া

নতুন করে আক্রান্ত – ৪০০

সুস্থ হলেন – ৩১৫

১৫) পুরুলিয়া

নতুন করে আক্রান্ত – ৩১১

সুস্থ হলেন – ২৩৮

১৬) পূর্ব মেদিনীপুর

নতুন করে আক্রান্ত – ৫৯৭

সুস্থ হলেন – ৫২২

১৭) পশ্চিম মেদিনীপুর

নতুন করে আক্রান্ত – ৪৬২

সুস্থ হলেন – ২৮৭

১৮) ঝাড়গ্রাম

নতুন করে আক্রান্ত –১১৭

সুস্থ হলেন -৯৪

১৯) দক্ষিণ ২৪ পরগণা

নতুন করে আক্রান্ত – ৯৩৭

সুস্থ হলেন – ৯২১

২০) হুগলি

নতুন করে আক্রান্ত – ৯০৬

সুস্থ হলেন – ৮৩১

২১) হাওড়া

নতুন করে আক্রান্ত – ৯৪৫

সুস্থ হলেন – ৯৫২

স্বস্তির খবর হল দৈনিক সংক্রমণের থেকে সুস্থতার সংখ্যা বেশি হওয়ায় গত ২৪ ঘণ্টায় সক্রিয় রোগী কমেছে আলিপুরদুয়ার, জলপাইগুড়ি, উত্তর দিনাজপুর, মালদহ, মুর্শিদাবাদ, বীরভূম, পশ্চিম বর্ধমান, হাওড়ায়।

Continue Reading
Advertisement
Advertisement
দেশ1 hour ago

Tamil Nadu Oath Ceremony: মন্ত্রীসভায় গান্ধী-নেহরু, মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিলেন এমকে স্ট্যালিন

দেশ2 hours ago

Corona Update: দেশের দৈনিক সংক্রমণে আরও কিছুটা বৃদ্ধি, বাড়ল সুস্থতাও

রাজ্য3 hours ago

Bengal Corona Update: গ্রামাঞ্চলেও দাপট বাড়ছে করোনার, মোকাবিলায় বিশেষ পদক্ষেপ স্বাস্থ্য দফতরের

রাজ্য3 hours ago

Bengal Corona Update: থমকে গিয়েছে নিম্নগামী যাত্রা, পর পর পাঁচ দিন রাজ্যের কোভিডমুক্তির হার ঊর্ধ্বমুখী

west bengal lockdown
দেশ4 hours ago

Coronavirus Second Wave: সংক্রমণ ঠেকাতে লকডাউনের শরণাপন্ন একাধিক রাজ্য, দেখে নিন তালিকা

বিদেশ12 hours ago

বিস্ফোরণে জখম হলেন মলদ্বীপের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট, হাসপাতালে ভরতি

দেশ12 hours ago

মুম্বই বিমানবন্দরে পেটে ভর দিয়ে জরুরি অবতরণ এয়ার অ্যাম্বুলেন্সের, যাত্রীরা নিরাপদ

দেশ13 hours ago

টিকা পেতে ভারতকে চিঠি, সীমান্তে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টে দুশ্চিন্তায় বাংলাদেশ

yogi adityanath
দেশ3 days ago

UP Panchayat Polls: বারাণসী, অযোধ্যা, মথুরায় ধরাশায়ী বিজেপি

ক্রিকেট2 days ago

Corona Crisis In IPL: জৈব বলয় ভেদ করে কী ভাবে ঢুকল করোনা, উঠে এল একাধিক কারণ

শিক্ষা ও কেরিয়ার3 days ago

JEE Main 2021: মে মাসের জয়েন্ট এন্ট্রাস (মেইন‌) ২০২১ পরীক্ষা স্থগিত, জানালেন শিক্ষামন্ত্রী

রাজ্য2 days ago

Oath Ceremony: তৃতীয় বারের জন্য মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

রাজ্য3 days ago

Bengal Corona Update: ঊর্ধ্বমুখী দৈনিক সংক্রমণ, তাল মিলিয়ে বাড়ছে সুস্থতাও

election commission of india
রাজ্য3 days ago

নন্দীগ্রামের সেই রিটার্নিং অফিসারের বাড়তি নিরাপত্তা

রাজ্য2 days ago

কমিশনের নিরপেক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে পুনর্গণনার দাবিতে আদালতে যাওয়ার হুঁশিয়ারি শুভেন্দু অধিকারীর

রাজ্য2 days ago

বৃহস্পতিবার থেকে রাজ্যে লোকাল ট্রেন বন্ধ, মেট্রো ও সরকারি বাস অর্ধেক, এক গুচ্ছ ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

ভিডিও

কেনাকাটা

কেনাকাটা2 months ago

বাজেট কম? তা হলে ৮ হাজার টাকার নীচে এই ৫টি স্মার্টফোন দেখতে পারেন

আট হাজার টাকার মধ্যেই দেখে নিতে পারেন দুর্দান্ত কিছু ফিচারের স্মার্টফোনগুলি।

কেনাকাটা3 months ago

সরস্বতী পুজোর পোশাক, ছোটোদের জন্য কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সরস্বতী পুজোয় প্রায় সব ছোটো ছেলেমেয়েই হলুদ লাল ও অন্যান্য রঙের শাড়ি, পাঞ্জাবিতে সেজে ওঠে। তাই ছোটোদের জন্য...

কেনাকাটা3 months ago

সরস্বতী পুজো স্পেশাল হলুদ শাড়ির নতুন কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সামনেই সরস্বতী পুজো। এই দিন বয়স নির্বিশেষে সবাই হলুদ রঙের পোশাকের প্রতি বেশি আকর্ষিত হয়। তাই হলুদ রঙের...

কেনাকাটা3 months ago

বাসন্তী রঙের পোশাক খুঁজছেন?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সামনেই আসছে সরস্বতী পুজো। সেই দিন হলুদ বা বাসন্তী রঙের পোশাক পরার একটা চল রয়েছে অনেকের মধ্যেই। ওই...

কেনাকাটা3 months ago

ঘরদোরের মেকওভার করতে চান? এগুলি খুবই উপযুক্ত

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ঘরদোর সব একঘেয়ে লাগছে? মেকওভার করুন সাধ্যের মধ্যে। নাগালের মধ্যে থাকা কয়েকটি আইটেম রইল অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন লেখার...

কেনাকাটা4 months ago

সিলিকন প্রোডাক্ট রোজের ব্যবহারের জন্য খুবই সুবিধেজনক

খবরঅনলাইন ডেস্ক: নিত্যপ্রয়োজনীয় বিভিন্ন সামগ্রী এখন সিলিকনের। এগুলির ব্যবহার যেমন সুবিধের তেমনই পরিষ্কার করাও সহজ। তেমনই কয়েকটি কাজের সামগ্রীর খোঁজ...

কেনাকাটা4 months ago

আরও কয়েকটি ব্র্যান্ডেড মেকআপ সামগ্রী ৯৯ টাকার মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আজ রইল আরও কয়েকটি ব্র্যান্ডেড মেকআপ সামগ্রী ৯৯ টাকার মধ্যে অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন লেখার সময় যে দাম ছিল...

কেনাকাটা4 months ago

রান্নাঘরের এই সামগ্রীগুলি কি আপনার সংগ্রহে আছে?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রান্নাঘরে বাসনপত্রের এমন অনেক সুবিধেজনক কালেকশন আছে যেগুলি থাকলে কাজ অনেক সহজ হয়ে যেতে পারে। এমনকি দেখতেও সুন্দর।...

কেনাকাটা4 months ago

৫০% পর্যন্ত ছাড় রয়েছে এই প্যান্ট্রি আইটেমগুলিতে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: দৈনন্দিন জীবনের নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসগুলির মধ্যে বেশ কিছু এখন পাওয়া যাচ্ছে প্রায় ৫০% বা তার বেশি ছাড়ে। তার মধ্যে...

কেনাকাটা4 months ago

ঘরের জন্য কয়েকটি খুবই প্রয়োজনীয় সামগ্রী

খবরঅনলাইন ডেস্ক: নিত্যদিনের প্রয়োজনীয় ও সুবিধাজনক বেশ কয়েকটি সামগ্রীর খোঁজ রইল অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদনটি লেখার সময় যে দাম ছিল তা-ই...

নজরে