Connect with us

উঃ ২৪ পরগনা

উম্পুন প্রলয়ের পরে: সামনেই ভরা কোটাল, আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছে সন্দেশখালির মানুষ

সুব্রত গোস্বামী

প্রায় দু’ সপ্তাহ হতে চলল, পশ্চিমবঙ্গে তাণ্ডব চালিয়ে চলে গিয়েছে ঘূর্ণিঝড় উম্পুন (Cyclone Amphan)। কিন্তু উত্তর ২৪ পরগনার (North 24 Paraganas) সন্দেশখালির (Sandeshkhali) ন্যাজাট অঞ্চল এখনও জলমগ্ন। রাস্তার দু’ ধারে শুধু জল আর জল। পাকা বাড়িতে এখনও কোমরসমান জল। রাস্তাই এখন বাসিন্দাদের একমাত্র আশ্রয়। বাড়ির গৃহপালিত পশুদের নিয়ে সহাবস্থান। মাথার উপরে প্লাস্টিকের আচ্ছাদন।

উম্পুন-এর দিন রাত ১১টা নাগাদ নদীর বাঁধ ভেঙে পুরো অঞ্চল জলে ভেসে যায়। পরনের এক টুকরো কাপড় সম্বল করে বাসিন্দারা আশ্রয় নেন উঁচু রাস্তার উপরে। এখনও তাঁরা সেখানেই রয়ে গিয়েছেন। সুন্দরবনের বিষাক্ত সাপ তাঁদের ঘরে আশ্রয় নিয়েছে। ঘরে গিয়ে যে সামান্য পোশাক আনবেন, তারও উপায় নেই।

উম্পুন-হানার তিন-চার দিন পরে মানুষের বিক্ষোভে প্রশাসনের টনক নড়ে। পঞ্চায়েত থেকে খাবার দেওয়া হচ্ছে বটে, কিন্তু তা প্রয়োজনের তুলনায় সামান্য। ভরসা শুধু বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের দেওয়া শুকনো খাবার। কিন্তু করোনার (Covid 19) ভয়ে এঁরাও আসতে ভয় পাচ্ছেন। আয়লার সময়ে এই সব স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের দেওয়া ত্রাণেই মানুষ বেঁচে ছিল।

শারীরিক দূরত্ব বা মুখে মাস্কের বালাই নেই। জীবন বাঁচাতে বিভিন্ন স্কুলে আর রাস্তার ধারে মানুষ গাদাগাদি করে অবস্থান করছে। কোনো নিকাশি ব্যবস্থা নেই, কবে জল নামবে কেউ জানে না। পানীয় জলের তীব্র অভাব। জলে মাছ, হাঁস, মুরগি মরে রয়েছে। চূড়ান্ত অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে মানুষ বাঁচার জন্য তীব্র লড়াই করছে।

ন্যাজাট-কালীনগর দিয়েই যেতে হয় বাইনালা, শুলকুনি, ঘুনি-দুর্গাপুর, খেজুরবেড়ে। এই সব অঞ্চলে ত্রাণ নিয়ে এখনও পৌঁছোনো যাচ্ছে না। নদীর পাড় জুড়ে ইটভাটা। এরা কোনো নিয়মের তোয়াক্কা না করে নদী থেকে পলি তুলছে। নদীর বাঁধ যেখানে ১৫-২০ ফুট উঁচু থাকার কথা, সেচ দফতরের উদাসীনতায় তা কোথাও কোথাও ২-৩ ফুটে এসে দাঁড়িয়েছে। এর ফলেই নদীবাঁধের ভাঙন।

এখনও যদি প্রশাসন উপযুক্ত ব্যবস্থা না নেয়, তবে আগামী দিনে আরও বড়ো বিপর্যয়ের মুখোমুখি হতে চলেছে সন্দেশখালির এই অঞ্চল। সামনেই ভরা কোটাল (high tide)। তখন কী হবে, এই ভেবেই আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছে এখানকার মানুষজন।

Advertisement
1 Comment

1 Comment

  1. Soumya Dasgupta

    June 2, 2020 at 6:29 pm

    Thoughtful articulation by such a kind hearted Dr. Subrata Goswami. Looking forward to many such articles by him. My best & hearty wishes.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

উঃ ২৪ পরগনা

ডাক্তার দিবসে অশোকনগরে বৈশাখী উৎসব কমিটি তরফে স্বাস্থ্যশিবির

খবরঅনলাইন ডেস্ক: বুধবার ডাক্তার দিবসে অশোকনগর কল্যাণগড় পৌরসভা এলাকার আশরফাবাদে মানবসেবার কর্মসূচি হাতে নিল বৈশাখী উৎসব কমিটি। করোনা পরিস্থিতিতে যে সকল মানুষজন অসুস্থ অথচ অর্থের অভাবে ডাক্তার দেখাতে যেতে পারছেন না, তাঁদের কথা চিন্তা করে এই কাজটি করল। সেই সঙ্গে প্রেসার টেস্ট, সুগার টেস্ট, ওজনও মাপা হয়।

আরও পড়ুন: ডাক্তার দিবসে করোনা যোদ্ধাদের সম্মান জানাল সেনকো গোল্ড অ্যান্ড ডায়মন্ডস, পাশে আইএমএ, এনআরএস

এ দিন প্রতিটি কাজ করা হয় পুরোপুরি সরকারি নির্দেশিকা অনুযায়ী সমস্ত স্বাস্থ্যবিধি মেনে। প্রথমে স্যানিটাইজার দিয়ে হাত ধুয়ে, থার্মাল গান দিয়ে উষ্ণতা মেপে। তার পর একের পর টেস্ট ও ডাক্তার দেখানোর প্রক্রিয়া। প্রায় পঞ্চাশ জন মানুষকে এই পরিষেবা প্রদান করা হল। উপস্থিত ছিলেন ডাক্তার হীরক রায়। এই অনুষ্ঠানটি আশফরাবাদ কমিউনিটি হলে করা হয়। পুরোপুরি নিখরচায় সাধারণ মানুষের জীবনের কথা চিন্তা করে।

বৈশাখী উৎসব কমিটি সংস্থা আহবায়ক দেবাশিস মজুমদারের কথায়, “আমরা সমাজে সকল মানুষের কথা চিন্তা করি। শুধুমাএ করোনা জনিত পরিস্থিতির জেরে লকডাউন ঘোষণার পর থেকেই খাদ্যসামগ্রী ও জীবনদায়ী ওষুধ বিতরণ করেছি। এমনকি স্বেচ্ছায় রক্তদান শিবির করেছি পৌর এলাকার মধ্যে এই প্রথম।”

দেবাশিসবাবু আরও বলেন, আগামী প্রজন্মের কথা চিন্তা করে শিশুদের শিক্ষাসামগ্রী তুলে দেওয়ার কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। সেই সঙ্গে আশফরাবাদের মানুষদের জীবনের কথা চিন্তা করে নিখরচায় শারীরিক পরীক্ষাশিবিরও আয়োজন করা হল।

দেবাশিসবাবু জানান, তাঁরা মানুষের জন্য সারা বছর ধরে কাজ করেন। কোনো রকম ব্যানার লাগে না তার জন্য। নীরবে নিঃশব্দেব্দে কাজ করতে বেশি পচ্ছন্দ করেন তারা।

Continue Reading

উঃ ২৪ পরগনা

‘পরিবেশ প্রভাব জরিপ ২০২০’ বাতিলের দাবিতে নৈহাটি স্টেশনে ‘ফ্রাইডে ফর ফিউচার’-এর জমায়েত

খবরঅনলাইন ডেস্ক: কোনো বড়ো প্রকল্প স্থাপনের আগে সেখানকার পরিবেশের উপর তার কী প্রভাব পড়বে তা জরিপ করা হয়। একে বলা হয়  এনভায়রনমেন্টাল ইমপ্যাক্ট অ্যাসেসমেন্ট (ইআইএ) (Environmental Impact Assesment, EIA) বা পরিবেশ প্রভাব জরিপ। এটি একটি আইনি বাধ্যবাধকতা।

এই ‘পরিবেশ প্রভাব জরিপ’ এড়িয়ে যাওয়ার জন্য এ সংক্রান্ত পুরোনো আইন সংশোধনের চেষ্টা করছে কেন্দ্রীয় বন ও পরিবেশ মন্ত্রক। এরই বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক পরিবেশ আন্দোলন ‘ফ্রাইডে ফর ফিউচার’-এর (Friday For Future) নৈহাটি শাখার তরফে রবিবার প্রতিবাদ-বিক্ষোভ দেখানো হল নৈহাটি স্টেশন চত্বরে।

যে কোনো বড়ো প্রকল্প স্থাপনের আগে পরিবেশের উপর তার প্রভাব খতিয়ে দেখা বাধ্যতামূলক। এই মূল্যায়ন পদ্ধতির একটা অঙ্গ হল অঞ্চলের অধিবাসীদের নিয়ে গণশুনানি, যা গণতন্ত্রের পক্ষে খুবই স্বাস্থ্যকর। এই পদ্ধতিকে লঘু করার জন্য কেন্দ্রীয় বন ও পরিবেশ মন্ত্রক জোর চেষ্টা চালাচ্ছে বলে পরিবেশবাদীদের অভিযোগ। জনমত সংগ্রহের জন্য ইআইএ ২০২০ নামে একটি প্রস্তাবনা বিভিন্ন গণমাধ্যমে দেওয়া হয়েছে। এ ভাবে কেন্দ্রীয় মন্ত্রক পুরোনো আইনটি সংশোধনের চেষ্টা করছে বলে পরিবেশবাদীরা বলছেন।

তাঁদের বক্তব্য, আইন হিসাবে এই খসড়া কার্যকর হলে পরিবেশ ধ্বংসের কাজ ত্বরান্বিত হবে। তাই এই খসড়া পুরোপুরি বাতিলের দাবি করেছে পরিবেশ সংগঠন ও অন্যান্য সামাজিক সংগঠন। এ নিয়ে লকডাউনের মধ্যেই তারা প্রচার আন্দোলন, গণস্বাক্ষর সংগ্রহ, প্রতিবাদী জমায়েত ইত্যাদি আয়োজন করছে এবং ক্রমশ তা বড়ো প্রতিরোধের রূপ নিচ্ছে।

বড়ো প্রকল্প স্থাপনের আগে এই পরিবেশ প্রভাব জরিপ এড়িয়ে যাওয়ার বিধান প্রস্তাবিত আইনে থাকায় কর্পোরেট সংস্থাগুলি এ দেশেরে জল-জঙ্গল-জমিকে নির্বিচারে লুঠ করবে বলে আশঙ্কা প্রতিবাদীদের।

২৮ জুন রবিবার ফ্রাইডে ফর ফিউচার-এর নৈহাটি শাখার পক্ষ থেকে নৈহাটি স্টেশন চত্বরে প্রতিবাদী জমায়েত করা হয় সকাল ১০টা থেকে ১২টা পর্যন্ত। পোস্টার-ব্যানার নিয়ে যাঁরা সেই জমায়েতে যোগ দিয়েছিলেন তাঁদের বেশির ভাগই বিভিন্ন বিদ্যালয় ও মহাবিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রী। কয়েক জন শিক্ষক-শিক্ষিকাও ওই জমায়েতে যোগ দেন। ‘পরিবেশ প্রভাব জরিপ ২০২০’-এর খসড়াটি সম্পূর্ণ ভাবে অবিলম্বে বাতিলের দাবি ওঠে ওই জমায়েত থেকে।

Continue Reading

উঃ ২৪ পরগনা

স্বাস্থ্য সংক্রান্ত প্রচুর কড়াকড়ি সঙ্গী করে খুলল দক্ষিণেশ্বর মন্দির

দক্ষিণেশ্বর: চূড়ান্ত কড়াকড়ির মধ্যে শনিবার খুলে গেল দক্ষিণেশ্বরের (Dakshineswar) ভবতারিণী মন্দির। শারীরিক দূরত্ব মেনেই পুণ্যার্থীদের লাইন দিতে দেখা যায় সকাল থেকেই।

লকডাউনের (Lockdown) কারণে দীর্ঘ দু’মাস পর মন্দির খুললেও আগের মতো পরিস্থিতি এখন আর নেই। সব কিছুকে সম্পূর্ণ নতুন ভাবে সাজানো হয়েছে।

মন্দিরের প্রবেশদ্বারের আগে সুরক্ষা ব্যবস্থার আয়োজন করা হয়েছে। দর্শনার্থীদের থার্মাল স্ক্রিনিং করা হচ্ছে। এর পর দিতে হচ্ছে লাইন। বিধি মেনে নির্দিষ্ট দূরত্বে কেটে দেওয়া হয়েছে নীল গণ্ডি। তার মধ্যেই দাঁড়াতে হচ্ছে ভক্তদের।

লাইন কিছুটা এগোনোর পর আবারও চেকিং করা হচ্ছে মন্দিরের তরফ থেকে। জমা রাখা হচ্ছে মোবাইল-সহ যাবতীয় জিনিস।

পুজো দেওয়ার ক্ষেত্রেও জারি হচ্ছে একাধিক নিয়ম। গর্ভগৃহের বাইরেই দিতে হচ্ছে পুজো। পুজোর জন্যে ফুল অর্পণ করা যাচ্ছে না। চরণামৃত দিচ্ছেন না পুরোহিতরা। কেবলমাত্র প্রসাদি মিষ্টি দেওয়া হচ্ছে। পুরোহিত থেকে মন্দিরের নিরাপত্তাকর্মী, সবাই পিপিই কিট পরে রয়েছেন।

মন্দির চত্বরে কাউকে বসতে দেওয়া হচ্ছে না। এমনকি চত্বরে থাকা অন্যান্য ছোটো মন্দিরেও কাউকে যেতে দেওয়া হচ্ছে না। প্রতিদিন সকাল ৭ টা থেকে সকাল ১০টা ও বিকেল সাড়ে তিনটে থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা পর্যন্ত খোলা থাকবে মন্দির।

Continue Reading
Advertisement
রাজ্য50 mins ago

বিকল্প শিক্ষাপদ্ধতি: তৃণমূল প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির উদ্যোগে লকডাউন পাঠশালা

দেশ3 hours ago

নতুন আক্রান্তের সংখ্যা নিয়ন্ত্রণে, কিছুটা বাড়ল সুস্থতা

কলকাতা3 hours ago

করোনা প্রতিরোধে মাস্ক-স্যানিটাইজার বিতরণ ‘উই আর দ্য কমন পিপল’-এর

দেশ3 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ২২৭৫২, সুস্থ ১৬৮৮৩

ক্রিকেট4 hours ago

জন্মদিনের দিন দেখে নেওয়া যাক অধিনায়ক সৌরভের পাঁচটি কালজয়ী সিদ্ধান্ত

দেশ4 hours ago

‘ডন’ বিকাশ দুবেকে দেখা গেল হরিয়ানার হোটেলে, এনকাউন্টারে হত ঘনিষ্ঠ বন্ধু

বিদেশ4 hours ago

পড়ুয়াদের ভিসা বাতিলের নতুন সিদ্ধান্ত নিয়ে ভারতকে ‘আশ্বাস’ আমেরিকার

দেশ4 hours ago

আশা দেখাচ্ছে ধারাবি, নতুন করে করোনা-আক্রান্ত মাত্র একজন

currency
শিল্প-বাণিজ্য2 days ago

পিপিএফের ৯টি নিয়ম, যা জেনে রাখা ভালো

দেশ3 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ২২৭৫২, সুস্থ ১৬৮৮৩

দেশ3 days ago

২০২১-এর আগে নয় করোনা ভ্যাকসিন? প্রেস বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেও সময়সীমা মুছে দিল বিজ্ঞানমন্ত্রক!

কলকাতা2 days ago

কলকাতায় এখন ১৮টি কনটেনমেন্ট জোন, ১৮৭২টি আইসোলেশন ইউনিট, ফারাকটা কোথায়?

রাজ্য2 days ago

করোনা রুখতে পশ্চিমবঙ্গের ‘সেফ হোম’-এর ভূয়সী প্রশংসা কেন্দ্রের

দেশ3 days ago

গাজিয়াবাদের কারখানায় ভয়াবহ বিস্ফোরণ, মৃত ৭

বিনোদন3 days ago

করোনা আবহে কী ভাবে হল ‘বিবাহ বার্ষিকী’র শুটিং? দেখে নিন অভিনেত্রী দর্শনা বণিকের এক্সক্লুসিভ সাক্ষাৎকার

দেশ2 days ago

গালোয়ান উপত্যকা থেকে চিন সেনার পিছু হঠার পেছনেও অজিত ডোভালের ভূমিকা

কেনাকাটা

কেনাকাটা19 hours ago

বাচ্চার জন্য মাস্ক খুঁজছেন? এগুলোর মধ্যে একটা আপনার পছন্দ হবেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিউ নর্মালে মাস্ক পরাটাই দস্তুর। তা সে ছোটো হোক বা বড়ো। বিরক্ত লাগলেও বড়োরা নিজেরাই নিজেদেরকে বোঝায়।...

কেনাকাটা2 days ago

রান্নাঘরের টুকিটাকি প্রয়োজনে এই ১০টি সামগ্রী খুবই কাজের

খবরঅনলাইন ডেস্ক : লকডাউনের মধ্যে আনলক হলেও খুব দরকার ছাড়া বাইরে না বেরোনোই ভালো। আর বাইরে বেরোলেও নিউ নর্মালের সব...

কেনাকাটা3 days ago

হ্যান্ড স্যানিটাইজারে ৩১ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় দিচ্ছে অ্যামাজন

অনলাইনে খুচরো বিক্রেতা অ্যামাজন ক্রেতার চাহিদার কথা মাথায় রেখে ঢেলে সাজিয়েছে হ্যান্ড স্যানিটাইজারের সম্ভার।

DIY DIY
কেনাকাটা1 week ago

সময় কাটছে না? ঘরে বসে এই সমস্ত সামগ্রী দিয়ে করুন ডিআইওয়াই আইটেম

খবর অনলাইন ডেস্ক :  এক ঘেয়ে সময় কাটছে না? ঘরে বসে করতে পারেন ডিআইওয়াই অর্থাৎ ডু ইট ইওরসেলফ। বাড়িতে পড়ে...

নজরে