Connect with us

উঃ ২৪ পরগনা

মকুল রায়ের বাড়িতে তৃণমূল বিধায়ক শীলভদ্র দত্ত?

মঙ্গলবার মুকুল রায়ের সল্টলেকের বাড়িতে তিনি?

Published

on

খবর অনলাইন ডেস্ক: বেশ কয়েক দিন ধরেই ‘বেসুরো’ গাইছিলেন। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় জল্পনা ছড়ায়, বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের (Mukul Roy) বাড়িতে গিয়েছেন ব্যারাকপুরের তৃণমূল বিধায়ক শীলভদ্র দত্ত (Silbhadra Dutta)।

বিজেপির কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতির বাড়িতে শীলভদ্রের উপস্থিতির খবরে ফের এক বার নতুন করে জল্পনা ছড়াল। এর আগেই শীলভদ্র জানিয়েছিলেন, তিনি আগামী বিধানসভা ভোটে তৃণমূলের হয়ে প্রার্থী হবেন না। দলকে অন্য প্রার্থী ঠিক করার পরামর্শ দিয়েছিলেন তিনি। তবে বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন কি না, সে প্রশ্নের উত্তর সময়ের হাতে ছেড়ে দিয়েছিলেন।

Loading videos...

বৈদ্যুতিন সংবাদ মাধ্যম এবিপি আনন্দের খবরে বলা হয়, মুকুলের বাড়িতে গিয়ে বৈঠক করেন শীলভদ্র। বিকেল সাড়ে ৫টা পর্যন্ত মুকুলের সল্টলেকের বাড়িতে ছিলেন তিনি। প্রথমে প্রতিক্রিয়া দিতে নারাজ হলেও মুকুল বলেন, “ও তো রোজই আসে, এ আর নতুন কী”?

একই সঙ্গে তিনি বলেন, “এ দিন শীলভদ্র আসেনি। শুভেন্দুর সঙ্গে বেশ কয়েক জন বিধায়ক রয়েছেন”। সূত্রের খবর, মুকুলের বাড়িতে যাওয়ার বিষয়টি অস্বীকার করেছেন শীলভদ্রও।

তবুও জল্পনা চলছেই, তা হলে কি বিজেপিতেই যোগ দিচ্ছেন শীলভদ্র? আপাত ইঙ্গিত মিললেও স্পষ্ট উত্তর এখনও অধরা।

উল্লেখ্য, গত ১ ডিসেম্বর শীলভদ্রের বাড়িতে যায় ভোট কৌশলী প্রশান্ত কিশোরের টিম। ব্যারাকপুরের বিধায়ক বলেন, “পিকে-র টিম আমার সঙ্গে কথা বলতে এসেছিল, কথা বলে চলে গিয়েছে। আমি তো আগেই প্রকাশ্যে নিজের কথা জানিয়েছি। নতুন করে আর কী বলার আছে। আমার সিদ্ধান্ত বদলানোর কোনো পরিস্থিতি নেই”। বিস্তারিত পড়তে পারেন এখানে: দলের হয়ে ভোটে দাঁড়াবেন না, নিজের সিদ্ধান্তে অনড় তৃণমূল বিধায়ক শীলভদ্র দত্ত

উঃ ২৪ পরগনা

সিবিআই, ইডি নিয়ে আরও আক্রমণাত্মক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়

“আমি বলছি, সিবিআই, ইডি, আয়কর… আরও যারা যারা আছে, আমার পিছনে লাগান”, ঠাকুরনগরের সভায় বললেন অভিষেক।

Published

on

ঠাকুরনগরে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়

খবর অনলাইন ডেস্ক: স্ত্রী রুজিরাকে গত রবিবার সিবিআই নোটিশ দেওয়ার পরই হুঙ্কার ছেড়েছিলেন তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। বৃহস্পতিবার উত্তর ২৪ পরগনার ঠাকুরনগরের সভায় সিবিআই, ইডি, আয়কর নিয়ে আরও আক্রমণাত্মক হয়ে উঠলেন তিনি।

নিশানা কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে

কয়েক দিন আগে ঠাকুরনগরে এসে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বলেছিলেন, “করোনা টিকাকরণের কাজ শেষ হলেও মতুয়াদের নাগরিকত্ব দেওয়া হবে”।

Loading videos...

সেই প্রসঙ্গ টেনেই অভিষেক এ দিন বলেন, “১৩০ কোটি মানুষের ভ্যাকসিন পেতে ৯ থেকে ১০ বছর সময় লাগবে। তার পর না কি নাগরিকত্ব! আরে তোমরা কি নাগরিকত্ব দেবে? আপনাদের নাগরিকত্বের প্রমাণ আছে তো? আপনাদের ভোটার কার্ড, আধার কার্ড নেই? যে ভোটার কার্ড নিয়ে আপনারা ভোট দিয়েছেন, যাঁদের ভোট নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নির্বাচন হয়েছে, তাঁরাই নাকি অবৈধ! আপনারা যদি অবৈধ হন, তা হলে নরেন্দ্র মোদী অবৈধ, অমিত শাহ অবৈধ, রাজনাথ সিংহ অবৈধ”!

‘জয় বাংলা’ বনাম ‘সোনার বাংলা’

ইদানীং বিজেপির সোনার বাংলা এবং তৃণমূলের জয় বাংলা স্লোগানকে কেন্দ্র করে তরজা তুঙ্গে।

অভিষেক বলেন, “আমরা ‘জয় বাংলা’ বললে বাংলাদেশি, আর তোমরা বলছ ‘সোনার বাংলা’! আপনারা বলুন তো ‘সোনার বাংলা’ কোথাকার? ‘সোনার বাংলা’ও বাংলাদেশি। গলা কেটে ফেললেও ‘জয় বাংলা’ বলব। কেন তোমরা যে ‘সোনার বাংলা’ করবে বলছ, সেটা কোথাকার স্লোগান? সোনার বাংলা করতে চাইছ? তা হলে সোনার উত্তরপ্রদেশ হয়নি কেন? সোনার মধ্যপ্রদেশ হয়নি কেন? সোনার গুজরাত হয়নি কেন”?

সিবিআই, ইডি ও আয়কর

ভোটের আগে বিজেপির বিরুদ্ধে কেন্দ্রীয় সংস্থা দিয়ে দলীয় নেতা-কর্মীদের ভয় দেখানোর অভিযোগ তুলেছে তৃণমূল। কয়লাপাচার কাণ্ডে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্ত্রী রুজিরাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে সিবিআই। রবিবার সেই নোটিশ প্রসঙ্গে টুইটারে হুঙ্কার ছেড়ে যুব তৃণমূল সভাপতি বলেছিলেন, “আজ (রবিবার) বেলা ২টোর সময় আমার স্ত্রীর নামে একটি নোটিশ দিয়েছে সিবিআই। দেশের আইনের উপর আমার পূর্ণ বিশ্বাস রয়েছে। তারা যদি মনে করে, আমাদের ভয় দেখাবে, তা হলে তারা ভুল করছে। আমরা কখনও মাথা নত করি না”।

এ দিন তিনি সুর চড়িয়ে বলেন, “আমার পিছনে সিবিআই লেলিয়ে দিয়েছে। আমি বলছি, সিবিআই, ইডি, আয়কর লাগিয়ে আমাকে ভয় দেখিয়ে দমাতে পারবেন না, যাকে খুশি পাঠান। কিন্তু মাথা নত করব না। জেনে রাখুন আমার গলা কেটে দিলেও একটা কথাই বেরোবে, ‘জয় বাংলা”।

আরও পড়তে পারেন: ‘ভূমিপুত্র’ প্রার্থী চাই, প্রকাশ্যে বিজেপির গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব

Continue Reading

ইতিহাস

বরানগরের প্রামাণিক কালীবাড়ির ব্রহ্মময়ীকে শ্রীরামকৃষ্ণ ডাকতেন ‘মাসি’ বলে

Published

on

ছবি ফেসবুক থেকে।

স্মিতা দাস

কলকাতার শহরতলিতে অবস্থিত বরানগর। এই বরানগরের অলিতে-গলিতে কত মন্দির ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে, তা হিসাব করে ওঠা কঠিন। এ হেন মন্দিরনগরীর এক উল্লেখযোগ্য মন্দির হল প্রামাণিক ঘাট রোডে প্রামাণিক কালীবাড়ি। এই মন্দিরে ব্রহ্মময়ী কালী অধিষ্ঠিতা।

Loading videos...

কথিত আছে, ঠাকুর শ্রীরামকৃষ্ণ দক্ষিণেশ্বরের ভবতারিণী কালীকে ‘মা’ এবং জয় মিত্র কালীবাড়ির কৃপাময়ী কালীকে ও প্রামাণিক কালীবাড়ির ব্রহ্মময়ী কালীকে ‘মাসি’ বলে ডাকতেন।

বরানগরের কুঠিঘাট থেকে ১০ মিনিটে হাঁটার দূরত্বে এই প্রামাণিক কালীবাড়ি। এটি নবরত্ন মন্দির এবং গঠন-বৈশিষ্ট্যে তা জয় মিত্র কালীবাড়ির অনুরূপ। সাধারণত নবরত্ন মন্দির বলতে আমরা চিরাচরিত বাঁকানো চালের শৈলী বুঝি, যেমন দক্ষিণেশ্বরের মন্দির। কিন্তু প্রামাণিক কালীবাড়ি হল দোতলা দালান মন্দির। প্রতি তোলার কোণে কোণে চূড়া বা রত্ন বসানো।   

কথা হচ্ছিল মন্দিরের পুরোহিত সোমনাথ বড়ালের সঙ্গে। তিনি জানালেন, তাঁরা এই মন্দিরে পাঁচ পুরুষ ধরে পুজো করছেন। তিনি বলেন, তাঁদের পূর্বপুরুষ কালীপদ বড়াল এই মন্দিরে পূজা শুরু করেন।

মন্দির প্রতিষ্ঠার ইতিহাস জানা গেল সোমনাথবাবুর কাছ থেকে। তিনি বলেন, এই মন্দির হল দে প্রামণিক পরিবারের। দে প্রামাণিকদের আদিবাড়ি বর্ধমানের পুলিনপুর গ্রামে। সেই পরিবারের কুলপুরোহিত ছিলেন বড়ালরা। প্রামাণিকরা এক সময় ব্যবসাবাণিজ্যের জন্য বর্মায় বসবাস করতেন। কিন্তু সেখানে যুদ্ধ শুরু হয়ে গেলে দেশে ফিরে আসেন। তার পরই দে প্রামণিক পরিবারের কামদেব দে কলকাতায় বসবাস শুরু করেন। তাঁরই বংশধর রামগোপাল দে দুর্গাপ্রসাদ দে ১২৫৯ বঙ্গাব্দের  (১৮৫৩ খ্রিস্টাব্দ) মাঘী পূর্ণিমার দিন এই মন্দিরটি প্রতিষ্ঠা করেন। দক্ষিণেশ্বরের মন্দিরের দু’ বছর আগেই এই মন্দির প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল।

শোনা যায়, দক্ষিণেশ্বরের ভবতারিণীর মূর্তি যিনি গড়েছিলেন দাঁইহাটের সেই ভাস্কর নবীনচন্দ্র পালই এই ব্রহ্মময়ী বিগ্রহ তৈরি করেন। আসলে নবীন ভাস্কর একই কষ্টিপাথর থেকে তৈরি করেছিলেন তিন মূর্তি – ভবতারিণী কালী, ব্রহ্মময়ী কালী এবং কৃপাময়ী কালী। প্রতিটি মূর্তিই তৈরি হয়েছিল দক্ষিণেশ্বরের মন্দিরের জন্য। মন্দিরের আকার অনুযায়ী রানি রাসমণির মনে হয়েছিল, ব্রহ্মময়ী কালী ও কৃপাময়ী কালীর মূর্তি ছোটো, মন্দিরের সঙ্গে ঠিক খাপ খায় না। পরে নবীন ভাস্কর ভবতারিণীর মূর্তি তৈরি করেন। কৃপাময়ী ও ব্রহ্মময়ী মূর্তি অধিষ্ঠিতা হন জয় মিত্র কালীবাড়ি ও প্রামাণিক কালীবাড়িতে।   

এখনও মাঘী পূর্ণিমার দিন প্রতিষ্ঠাতিথিতে বিশেষ পুজোর আয়োজন করা হয়ে থাকে প্রামাণিক কালীবাড়িতে। চলে হোম-যজ্ঞ, ভোগ বিতরণের ব্যবস্থা করা হয়। কালীপুজোর দিন দেবীকে সাজানো হয় বিশেষ বসনে। কালের নিয়ম মেনেই এই মন্দিরে পশুবলি বন্ধ।

আরও পড়ুন: বরানগরের জয় মিত্র কালীবাড়িতে পশুবলি বন্ধ হয়েছিল বালানন্দ ব্রহ্মচারীর বিধানে

Continue Reading

উঃ ২৪ পরগনা

নিত্যানন্দের আবির্ভাবতিথি উপলক্ষ্যে মহোৎসব খড়দহে, ৭ মার্চ ১০০ মহিলা খোলবাদক নিয়ে নগরপরিক্রমা

কীর্তন, ৬৪ মহন্ত সেবা, ভোগ নিবেদন ইত্যাদির মাধ্যমে পালিত হচ্ছে নিত্যানন্দের আবির্ভাব উৎসব।

Published

on

শুভদীপ রায় চৌধুরী

‘জগৎ যারে ত্যাগ করে নিতাই তাকে বুকে ধরে,/ অদৃশ্য অস্পৃশ্য বলে জগৎ যারে ঠেলে ফেলে,/ ভয় নেই তোর আছি বলে নিতাই তারে করে কোলে।”

Loading videos...

১৩৯৫ শকাব্দের (১৪৭৩ খ্রিস্টাব্দ) মাঘ মাসের শুক্লপক্ষের ত্রয়োদশীতে বীরভূমের একচক্রা গ্রামে নিত্যানন্দপ্রভু আবির্ভূত হন। তাঁর আবির্ভাবকে কেন্দ্র করে শ্রীপাট খড়দহে চলছে মহোৎসব। কীর্তন, ৬৪ মহন্ত সেবা, ভোগ নিবেদন ইত্যাদির মাধ্যমে পালিত হচ্ছে নিত্যানন্দের আবির্ভাব উৎসব। এই উপলক্ষ্যে হবে নগরপরিক্রমা এবং বিদ্বজ্জনদের সমাবেশও।

নিত্যানন্দের আবির্ভাব উৎসব প্রসঙ্গে কথা হচ্ছিল মেজোবাড়ির সদস্য প্রভুপাদ সরোজেন্দ্রমোহন গোস্বামীর (নিত্যানন্দের বংশধর) সঙ্গে। তিনি জানালেন, আগামী ৬-৭ মার্চ প্রভুর আবির্ভাবতিথি উপলক্ষ্যে এক মহোৎসবের আয়োজন করা হয়েছে। ৬ মার্চ অধিবাসের পর ৭ মার্চ প্রায় ১০০ জন মহিলা খোলবাদক নিয়ে খড়দহ পরিক্রমা করা হবে। ওই মহিলাদের খোল প্রদান করা হবে তাঁরই তত্ত্বাবধানে।

নিত্যানন্দ মহাপ্রভু ছোটোবেলা থেকেই কৃষ্ণ-কৃষ্ণ, পূতনা-বধ, শকট-ভঞ্জন ইত্যাদি খেলা খেলতে ভালোবাসতেন। ন’ বছর বয়েসে তাঁর উপনয়ন হয়। নিত্যানন্দের  বারো বছর বয়সে নবদ্বীপে এক সন্ধ্যায় গৌরচন্দ্রের জন্ম হয়। সেই সময় নিতাই একচক্রা গ্রাম থেকে গর্জন করে ওঠেন। হঠাৎ একদিন শ্রীপাদ ঈশ্বরপুরী এলেন হাড়াই পণ্ডিতের বাড়িতে আতিথ্য গ্রহণ করতে এবং বললেন যে তীর্থ পর্যটনে যাচ্ছেন, তাঁদের বড়ো ছেলে নিতাইচাঁদকেও নিয়ে যাবেন সঙ্গে।

সেইমতো শ্রীপাদ ঈশ্বরপুরীর সঙ্গ ধরে গৃহত্যাগ করলেন নিতাই। গেলেন বক্রেশ্বর, তার পর বৈদ্যনাথধাম, গয়া, কাশী, মথুরা, বৃন্দাবন, দ্বারকা, গণ্ডকী হয়ে হরিদ্বার। প্রায় বিশ বছর তীর্থযাত্রা করে তিনি ফিরলেন নবদ্বীপে। নিতাইচাঁদের নবদ্বীপে আগমন হয়েছে বলে নিমাই পাঠালেন হরিদাস ও শ্রীবাসকে তাঁর খোঁজ করতে। কিন্তু তাঁরা কোথাও নিতাইয়ের খোঁজ পেলেন না। অবশেষে নিমাই গেলেন নন্দন আচার্যের বাড়িতে। সেখানেই প্রথম দর্শন হল মহাপ্রভু শ্রীগৌরাঙ্গের সঙ্গে মহাপ্রভু নিত্যানন্দের।

১৫১৯ খ্রিস্টাব্দে নিতাইচাঁদের সঙ্গে বসুধা দেবীর বিবাহ হয়। নিতাইচাঁদের ইচ্ছা হল খড়দহে শ্রীপাট স্থাপন করবেন। নিজের মনের ভাব প্রকাশ করলেন ভক্তবৃন্দের কাছে। শ্রীপুরন্দর পণ্ডিত এই কথা শুনে আনন্দে মেতে উঠলেন এবং মহাসমারোহে নিতাইচাঁদকে নিয়ে এলেন। বর্তমানে এই ভবন ‘কুঞ্জবাড়ি’ নামে পরিচিত।

নিত্যানন্দের আবির্ভাব তিথি উপলক্ষ্যে রবিবার অধিবাস সম্পন্ন হয়েছে। সোমবার থেকে ‘কুঞ্জবাড়ি’তে শুরু হয়েছে ২৪ প্রহর নামসংকীর্তন। ২৫ ফেব্রুয়ারি সকালে নামসংকীর্তনের বিশ্রাম হবে এবং তার পর নগরপরিক্রমা হবে। পরিক্রমার পর শ্রীশ্রীরাধাশ্যামসুন্দরজিউ উপস্থিত হবেন ‘কুঞ্জবাড়ি’তে এবং ৬৪ মহন্তের জন্য মালসা-ভোগ এবং শ্যামসুন্দরের ভোগ হবে, তার সঙ্গে আরতি। ভোগারতির পর শ্রীশ্রীরাধাশ্যামসুন্দরজিউ আবার নিজ মন্দিরে ফিরে যাবেন।

এর পর আগামী ৭ মার্চ সকাল ৯টায় হবে বিশেষ নগরপরিক্রমা। পরিক্রমা শুরু হবে ‘কুঞ্জবাড়ি’ থেকে, এমনটাই জানালেন প্রভু সরোজেন্দ্রমোহন গোস্বামী। নগরপরিক্রমার কেন্দ্রে থাকবেন আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন শ্রীখোলবাদক রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক হরেকৃষ্ণ হালদার, সঙ্গে থাকছেন তাঁর কন্যা রঞ্জিতা হালদার।

কুঞ্জবাড়ি।

পরিক্রমায় ‘বলরাম স্বরূপে নিত্যানন্দের রূপ’ চিত্রপট নিয়ে যোগ দেবেন প্রভু সরোজেন্দ্রমোহন গোস্বামী। পরিক্রমা শেষে শুরু হবে মহতী ধর্মসভা, বিষয়: শ্রীশ্রীনিত্যানন্দ মহাপ্রভু। মেজোবাড়ির গোপীনাথ মন্দিরে যে রাসমঞ্চ আছে সেখানেই অনুষ্ঠিত হবে ধর্মসভা। ধর্মসভায় পৌরোহিত্য করবেন ড. কাননবিহারী গোস্বামী। এ ছাড়াও থাকবেন ড. নিরঞ্জন বন্দ্যোপাধ্যায় (জাতীয় শিক্ষক), ড. শংকর ঘোষ (প্রাক্তন অধ্যাপক), রাধাকৃষ্ণ গোস্বামী (লেখক) প্রমুখ।

ধর্মসভার শেষে সকলকে ভোগপ্রসাদ খাওয়ানো হবে। ভোগে থাকবে খিচুড়ি, চচ্চড়ি, সাদাভাত, শুক্তনি, ডাল, পোস্ত, নানা রকমের ভাজা, তরকারি, পোলাও, ধোঁকার তরকারি, ছানার তরকারি, চাটনি, পায়েস, মিষ্টি ইত্যাদি। এই ভাবে ঐতিহ্যের সঙ্গে প্রভু নিত্যানন্দের আবির্ভাবতিথি উৎসব পালিত হচ্ছে খড়দহে।

আরও পড়ুন: শান্তিপুরে ধুমধাম করে পালিত হচ্ছে শ্রীশ্রীঅদ্বৈতাচার্যের আবির্ভাব মহোৎসব

Continue Reading
Advertisement
Advertisement
রাজ্য34 mins ago

লড়াই মুখোমুখি! নন্দীগ্রামে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে দাঁড়াচ্ছেন শুভেন্দু অধিকারী

দেশ1 hour ago

ফের বাড়ছে উদ্বেগ! ৮টি রাজ্যেকে বিশেষ করোনা-পরামর্শ কেন্দ্রের

রাজ্য2 hours ago

আজই প্রার্থী তালিকা বিজেপির! নন্দীগ্রামে শুভেন্দু, খড়গপুরে দিলীপ, জোর জল্পনা

ক্রিকেট3 hours ago

ইংল্যান্ডকে ৩-১ ব্যবধানে হারিয়ে সিরিজ জিতল ভারত

দেশ3 hours ago

নিজস্ব শিক্ষা পর্ষদ গঠন করছে দিল্লি, বড়ো ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের

রাজ্য4 hours ago

কেন তড়িঘড়ি প্রার্থী তালিকা প্রকাশ তৃণমূলের, সরব পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির সহ-পর্যবেক্ষক অমিত মালব্য

দেশ6 hours ago

‘এই দিনটার অপেক্ষাতেই ছিলাম’, বিজেপিতে যোগ দিয়ে বললেন প্রাক্তন তৃণমূল সাংসদ দীনেশ ত্রিবেদী

শিল্প-বাণিজ্য6 hours ago

মহিলা ক্ষমতায়নের পথে ২০ বছর সঙ্গী বন্ধন ব্যাঙ্ক

রাজ্য1 day ago

পূর্ণাঙ্গ প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করল তৃণমূল

গাড়ি ও বাইক1 day ago

আরটিও অফিসে আর যেতে হবে না! চালু হল আধার ভিত্তিক যোগাযোগহীন পরিষেবা

রাজ্য1 day ago

বিধান পরিষদ গঠন করে প্রবীণদের স্থান দেওয়া হবে, প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করে বললেন মমতা

ভ্রমণের খবর2 days ago

ব্যাপক ক্ষতির মুখে পর্যটন, রাঢ়বঙ্গে ভোট পেছোনোর আর্জি নিয়ে কমিশনের দ্বারস্থ পর্যটন ব্যবসায়ীদের সংগঠন

দেশ1 day ago

দেশের পরিস্থিতি একটু ভালো হলেও পঞ্জাবে মারাত্মক ভাবে বাড়ল দৈনিক সংক্রমণ

ক্রিকেট2 days ago

টসে জিতে ইংল্যান্ডের ব্যাটিং, সিরাজকে ফেরাল ভারত

কলকাতা2 days ago

মোদীর ব্রিগেডের দিন কলকাতাকে ‘মমতাময়’ করতে ওয়ার্ড-প্রশাসকদের বিশেষ নির্দেশ তৃণমূলের

বেশন কার্ড
দেশ2 days ago

রেশন কার্ড সম্পর্কিত সমস্যায় অভিযোগ জানান এই নম্বরগুলিতে, দেখে নিন সম্পূর্ণ তালিকা

কেনাকাটা

কেনাকাটা4 weeks ago

সরস্বতী পুজোর পোশাক, ছোটোদের জন্য কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সরস্বতী পুজোয় প্রায় সব ছোটো ছেলেমেয়েই হলুদ লাল ও অন্যান্য রঙের শাড়ি, পাঞ্জাবিতে সেজে ওঠে। তাই ছোটোদের জন্য...

কেনাকাটা4 weeks ago

সরস্বতী পুজো স্পেশাল হলুদ শাড়ির নতুন কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সামনেই সরস্বতী পুজো। এই দিন বয়স নির্বিশেষে সবাই হলুদ রঙের পোশাকের প্রতি বেশি আকর্ষিত হয়। তাই হলুদ রঙের...

কেনাকাটা1 month ago

বাসন্তী রঙের পোশাক খুঁজছেন?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সামনেই আসছে সরস্বতী পুজো। সেই দিন হলুদ বা বাসন্তী রঙের পোশাক পরার একটা চল রয়েছে অনেকের মধ্যেই। ওই...

কেনাকাটা1 month ago

ঘরদোরের মেকওভার করতে চান? এগুলি খুবই উপযুক্ত

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ঘরদোর সব একঘেয়ে লাগছে? মেকওভার করুন সাধ্যের মধ্যে। নাগালের মধ্যে থাকা কয়েকটি আইটেম রইল অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন লেখার...

কেনাকাটা1 month ago

সিলিকন প্রোডাক্ট রোজের ব্যবহারের জন্য খুবই সুবিধেজনক

খবরঅনলাইন ডেস্ক: নিত্যপ্রয়োজনীয় বিভিন্ন সামগ্রী এখন সিলিকনের। এগুলির ব্যবহার যেমন সুবিধের তেমনই পরিষ্কার করাও সহজ। তেমনই কয়েকটি কাজের সামগ্রীর খোঁজ...

কেনাকাটা1 month ago

আরও কয়েকটি ব্র্যান্ডেড মেকআপ সামগ্রী ৯৯ টাকার মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আজ রইল আরও কয়েকটি ব্র্যান্ডেড মেকআপ সামগ্রী ৯৯ টাকার মধ্যে অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন লেখার সময় যে দাম ছিল...

কেনাকাটা1 month ago

রান্নাঘরের এই সামগ্রীগুলি কি আপনার সংগ্রহে আছে?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রান্নাঘরে বাসনপত্রের এমন অনেক সুবিধেজনক কালেকশন আছে যেগুলি থাকলে কাজ অনেক সহজ হয়ে যেতে পারে। এমনকি দেখতেও সুন্দর।...

কেনাকাটা2 months ago

৫০% পর্যন্ত ছাড় রয়েছে এই প্যান্ট্রি আইটেমগুলিতে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: দৈনন্দিন জীবনের নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসগুলির মধ্যে বেশ কিছু এখন পাওয়া যাচ্ছে প্রায় ৫০% বা তার বেশি ছাড়ে। তার মধ্যে...

কেনাকাটা2 months ago

ঘরের জন্য কয়েকটি খুবই প্রয়োজনীয় সামগ্রী

খবরঅনলাইন ডেস্ক: নিত্যদিনের প্রয়োজনীয় ও সুবিধাজনক বেশ কয়েকটি সামগ্রীর খোঁজ রইল অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদনটি লেখার সময় যে দাম ছিল তা-ই...

কেনাকাটা2 months ago

৯৯ টাকার মধ্যে ব্র্যান্ডেড মেকআপের সামগ্রী

খবর অনলাইন ডেস্ক : ব্র্যান্ডেড সামগ্রী যদি নাগালের মধ্যে এসে যায় তা হলে তো কোনো কথাই নেই। তেমনই বেশ কিছু...

নজরে