কেষ্টপুরে বিধ্বংসী আগুন, গভীর রাতে পুড়ে ছাই ৩১টি অস্থায়ী দোকান

0

খবর অনলাইন ডেস্ক: শনিবার রাত দেড়টা নাগাদ আগুন লাগে কেষ্টপুরের ভিআইপি রোডের ধারে শতরূপাপল্লিতে। দ্রুত তা ছড়িয়ে পড়ে আশেপাশের খাবার দোকান-সহ অন্যান্য দোকানে। দমকলের ১৫টি ইঞ্জিন ঘণ্টা তিনেকের চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। দমকলকর্মী-সহ আহত হয়েছেন অনেকেই।

জানা যায়, অস্থায়ী কাঠের আসবাবের দোকানে শর্ট সার্কিট থেকে আগুন লাগে। মুহূর্তের মধ্যে আগুন আশেপাশের দোকানগুলিতে ছড়িয়ে পড়ে। কালো ধোঁয়ায় ঢেকে যায় চতুর্দিক। একের পর এক গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ হয়। বিধ্বংসী আগুনে ভস্মীভূত ৩১টি অস্থায়ী দোকান।

Loading videos...

পর পর সিলিন্ডার বিস্ফোরণে নিমেষে ছড়ায় আগুন। প্রতিটি দোকানেই কমবেশি দাহ্য পদার্থ মজুত ছিল। তাই আগুনের তীব্রতা ক্রমশ বাড়তে থাকে। এই পরিস্থিতিতে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে দমকল কর্মীদের যথেষ্ট বেগ পেতে হয়। আগুন নেভাতে রোবটের সাহায্যও নিতে হয়। 

জানা গিয়েছে, আহত হয়েছেন দমকলের দু’জন কর্মী এবং পাঁচ জন স্থানীয় বাসিন্দা। আহতদের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তাঁদের মধ্যে স্থানীয় এক বাসিন্দার অবস্থা বেশ গুরুতর।

ঘটনাস্থলে যানদমকলমন্ত্রী সুজিত বসু এবং বিধায়ক অদিতি মুন্সী। ক্ষতিগ্রস্থদের সরকারি সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছেন অদিতি। রবিবার সকালে আগুন সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে আসার পর দোকানের ধ্বংসাবশেষে শেষ সম্বল খুঁজে নেওয়ার চেষ্টা করছেন দোকানের মালিকরা।

দমকল মন্ত্রী জানান, “অগ্নিকাণ্ডের ফলে অস্থায়ী দোকানগুলো পুড়ে গিয়েছে। কার কতটা ক্ষতি হয়েছে সে তালিকা তৈরি হচ্ছে। অনেক বড়ো দুর্ঘটনা ঘটতে পারত। তবে সময় মতো আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়েছে এটাই বড়ো বিষয়”।

আরও পড়তে পারেন: কন্যাশ্রী প্রকল্পের ৮ লক্ষ টাকা আত্মসাৎ জয়নগরে, মহকুমা শাসকের নির্দেশে শুরু তদন্ত

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন