পুলিশের জালে নৈহাটি বাজি কারখানার মালিক, তোলা হচ্ছে আদালতে

কলকাতা: নৈহাটির বেআইনি বাজি কারখানার মালিক নুর হোসেন গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শুক্রবার গভীর রাতে আমডাঙা থেকে গ্রেফতার করা হয় বিস্ফোরণে ভস্মীভূত হওয়া দেবক এলকার ওই বাজির কারখানার মালিককে।

বিস্ফোরণ ঘটার পরই এলাকা থেকে পালিয়ে যায় নুর। আগুন নেভানোর পর তার খোঁজে নামা পুলিশ। এর পরই আমডাঙা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। শনিবার ব্যারাকপুর আদালতে তোলা হবে ধৃতকে। গতরাতে তাকে গ্রেফতারের পর তার বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

গত শুক্রবার দুপুরে নৈহাটির দেবক এলাকার একটি বাজি কারখানার প্রচণ্ড বিস্ফোরণে জেরে প্রাণ হারান কমপক্ষে চার জন। হাসপাতালে ভরতি এক জনের অবস্থাও আশঙ্কাজনক । তিনি নৈহাটি হাসপাতালে ভরতি রয়েছেন।

naihati

ওই দিন বেলা সাড়ে ১২টা নাগাদ দেবক এলাকার ওই বাজি কারখানায় বিস্ফোরণের জেরে কেঁপে উঠল সংলগ্ন এলাকা। জানা গিয়েছে, বিস্ফোরণে ভস্মীভূত হওয়া ওই বাজি কারখানাটি বেআইনি। শ্রমিকরা যখন ওই কারখানায় কাজ করছিলেন, সে সময়ই বিস্ফোরণ ঘটে। যে কারণে আহতের সংখ্যাও বেশি। বিস্ফোরণের খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে যায় নৈহাটি থানার পুলিশ এবং দমকল বাহিনী। দ্রুত তৎপরতার সঙ্গে আগুন নেভানোর কাজ শুরু হয়। আহতদের নিয়ে যাওয়া হয় হাসপাতালে।

[ আরও পড়ুন: শুক্রবারের দুপুরে নৈহাটিতে বিস্ফোরণ, কেঁপে উঠল এলাকা ]

প্রাথমিক ভাবে জানা গিয়েছে, দেবক এলাকার একটি বাজি কারখানায় বিস্ফোরণ ঘটে। বিস্ফোরণের মাত্রা এতটাই প্রবল ছিল যে, বাড়িটির ছাদ উড়ে যায়। আগুনে ভস্মীভূত হয় সম্পূর্ণ বাড়ি। ঘটনাস্থল থেকে ৮ কিমি বিস্তীর্ণ অঞ্চলের বাড়ি-ঘর কেঁপে ওঠে।‌ এমনকী গঙ্গার ওপার থেকেও বিস্ফোরণের আওয়াজ শোনা যায়।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.