কলকাতা: এ বার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বোমা বিস্ফোরণ! শনিবার টিটাগড়ের সাউথ স্টেশন রোডের একটি স্কুলে ঘটেছে বিস্ফোরণের ঘটনা। যার জেরে স্কুলের শিক্ষক-পড়ুয়া-সহ এলাকার বাসিন্দাদের মধ্যেও তীব্র আতংক!

স্কুলের ছাদে বোমা!

টিটাগড়ের ফ্রি ইন্ডিয়া হাই স্কুল সূত্রে খবর, সকাল ১১টা নাগাদ ক্লাস চলাকালীন আচমকাই বোমা বিস্ফোরণের আওয়াজ শোনা যায়। স্কুল চত্বরে ইতস্তত ভাবে ছড়িয়ে পড়ে সপ্লিন্টার। ঘটনার জেরে তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে স্কুলের পড়ুয়া এবং শিক্ষিক-শিক্ষিকাদের মধ্যে। শুরু হয় হুড়োহুড়ি। বেরিয়ে দেখা যায়স উপর থেকে ধোঁয়া বেরোচ্ছে। ছাদে গিয়ে দেখা যায়, বোমা পড়েছে।

স্কুলের এক শিক্ষকের কথায়, “আচমকা বোমার বিকট তীব্র শব্দ। আওয়াজটা খুব কাছাকাছি হয়েছে বুঝতে পারছিলাম৷। কিন্তু স্কুলের ছাদেই যে বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে সেটা তখনও বুঝতে পারিনি”।

কোথা থেকে এল বোমা?

এর পরই স্কুলের তরফে খবর দেওয়া হয় টিটাগড় থানায়। ঘটনাস্থলে পৌঁছে বিস্ফোরণের পর ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা স্প্লিন্টার উদ্ধার করে পুলিশ। এ নিয়ে এখনও পর্যন্ত কোনো প্রতিক্রিয়া মেলেনি স্থানীয় পুলিশের তরফে। তবে ওই স্কুলে বাইরে থেকে বোমা ছোড়া হয়েছিল, না কি বোমা স্কুলেই মজুত করা ছিল, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। জানার চেষ্টা চলছে, এই বিস্ফোরণের নেপথ্যে কে বা কারা?

পড়ুয়াদের অভিভাবকরাও আতংকিত। এক অভিভাবক বলেন, বরাতজোরে প্রাণহানির কোনো ঘটনা ঘটেনি। স্কুলের ছাত্রছাত্রী থেকে শিক্ষক-শিক্ষিকা- সকলেই অক্ষত রয়েছেন। কিন্তু এই জোরালো বিস্ফোরণে যে কোনো রকমের বড়োসড়ো দুর্ঘটনা ঘটে যেতে পারত।

এলাকার বাসিন্দারও ছুটে যান স্কুলে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিস্ফোরণের তীব্রতা এতটাই যে স্কুলের ছাদের একটি অংশও উড়ে যায়। এ ব্যাপারে পুলিশির বিরুদ্ধে নিস্ক্রিয়তার অভিযোগ তুলেছেন তাঁরা। তাঁদের অভিযোগ, এলাকার দুষ্কৃতী দৌরাত্ম বেড়েই চলেছে। কিন্তু পুলিশের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলেও সে ভাবে সক্রিয়তা নজরে পড়ছে না।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন