কলকাতা: হাজিরা না থাকা সত্ত্বেও পরীক্ষায় বসতে দেওয়ার দাবিতে উত্তাল হয়ে উঠল হেরম্বচন্দ্র কলেজ। গাড়ি ভাঙচুরের চেষ্টা এবং গোলপার্ক মোড় অবরোধও করে প্রথম বর্ষের পড়ুয়ারা। পরিস্থিতি সামাল দিতে আশপাশের কয়েকটি থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছয়।

কলেজ সূত্র খবর, বাণিজ্য বিভাগের প্রথম বর্ষের প্রায় চারশো জনের হাজিরা ৬০ শতাংশের কম। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়ম অনুযায়ী তাঁরা কেউ পরীক্ষায় বসতে পারবেন না। এই বিষয়টি জানার পরই ক্ষোভে ফেটে পড়েন পড়ুয়ারা। তাঁরা দাবি জানান, যে কোনও উপায়ে তাঁদের পরীক্ষায় বসতে দিতে হবে।

কিছুদিন আগে হাজিরা এবং তোলাবাজির অভিযোগে উত্তাল হয়ে উঠেছিল বেহালা কলেজ। শেষ পর্যন্ত শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় স্পষ্ট জানিয়ে দেন, কলেজে ন্যূনতম হাজিরা না থাকলে কাউকে পরীক্ষায় বসতে দেওয়া হবে না। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়ম অনুযায়ী ক্লাস করতে হবে। কিন্তু তা সত্ত্বেও কলেজে কলেজে এ নিয়ে ছাত্র বিক্ষোভ চলেছে।

অন্যদিকে পড়ুয়াদের অভিযোগ, ঠিকমতো হাজিরা নেওয়া হচ্ছে না কলেজে। তাঁদের অভিযোগ, ক্লাস চলাকালীন সাদা কাগজে হাজিরা নিয়ে যেতেন অধ্যাপকেরা। পরে তা হাজিরার খাতায় তুলে দেওয়ার কথা বলা হয়। পড়ুয়াদের দাবি চারশো ছাত্রের ষাট শতাংশ হাজিরা হবে না, সেটা কোনো ভাবেই হতে পারে না। যদিও পড়ুয়াদের এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন কলেজ কর্তৃপক্ষ।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here