খবরঅনলাইন ডেস্ক: মঙ্গলবারের প্রবল বৃষ্টির জেরে কলকাতায় মৃত্যু হয়েছে একজনের। রাজ্যের অন্য তিন জেলায় ৫ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে।

রাজভবনের সামনে বৃষ্টির জমা জল থেকে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় এক ব্যক্তির দেহ উদ্ধার করে পুলিশ। প্রথম দিকে তাঁর পরিচয় না পাওয়া গেলেও পরে জানা যায় ২৩ বছরের ওই যুবকের নাম ঋষভ মণ্ডল (২৩)। বাড়ি ফরাক্কায়। পরিবার সূত্রের খবর, এনটিপিসি নবারুণ এলাকার বাসিন্দা ঋষভ হিন্দুস্থান পেট্রোলিয়ামের ইঞ্জিনিয়ার ছিলেন।

Loading videos...

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, ঝড়বৃষ্টির ফলে রাজভবনের উত্তর দিকের গেটের সামনে জল জমে যায়। হাইকোর্টের দিক থেকে ধর্মতলার দিকে আসছিলেন ঋষভ। আচমকাই তিনি জলে পড়ে যান। যেখানে তিনি পড়ে যান, তার সামনেই একটি বৈদ্যুতিক খুঁটি ছিল।

সঙ্গে সঙ্গে খবর দেওয়া হয় হেয়ার স্ট্রিট থানায়। পুলিশ এসে দেহ উদ্ধার করে এসএসকেএম হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে চিকিৎসকেরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান, কোনো কারণে খোলা তারের সংস্পর্শে আসেন ওই পথচারী। সিইএসই যদিও দাবি করেছে, ওখানে কোনো তার খোলা ছিল না।

এ দিকে ঋষভের মৃত্যুর খবর পেয়েই এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। ঋষভের পরিজনেরা ঘটনার পূর্ণাঙ্গ তদন্তের দাবি জানিয়েছেন। তাঁদের প্রশ্ন, শহরের রাস্তায় কী ভাবে ইলেকট্রিকের তার ছিঁড়ে পড়ে থাকে!

অন্য দিকে, দক্ষিণবঙ্গের তিনটে জেলায় পাঁচ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে মঙ্গলবার রাত পর্যন্ত। মুর্শিদাবাদের সামশেরগঞ্জ থানার পুঠিমারী মাঠে বাজ পড়ে মৃত্যু হয় এক ব্যক্তির। মৃতের নাম নাজির হোসেন (৩৫)। মৃতের বাড়ি যান সামশেরগঞ্জের বিডিও কৃষ্ণচন্দ্র মুন্ডা এবং বিদায়ী বিধায়ক আমিরুল ইসলাম।

এ ছাড়াও পূর্ব বর্ধমান জেলায় বাজ পড়ে মৃত্যু হয়েছে দু’ জনের। মৃতদের নাম সঞ্জয় প্রামাণিক ও শরিফ মুন্সি। হাওড়াতেও বাজ পড়ে মৃত্যু হয়েছে দু’ জনের। মৃতদের মধ্যে একজনের নাম অশোক বিশ্বাস। অন্য জনের পরিচয় জানা যায়নি।

আরও পড়তে পারেন দুপুরেই নামল আঁধার, প্রবল বৃষ্টিতে ভাসল কলকাতা-সহ সমগ্র দক্ষিণবঙ্গ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.