ষষ্ঠ দফায় অনেকটাই কমে গেল কেন্দ্রীয় বাহিনীর সংখ্যা

0
Fift phase LS Poll
প্রতীকী ছবি

ওয়েবডেস্ক: সাত দফার লোকসভা ভোটে রাজ্যের জন্য ক্রমাগত কেন্দ্রীয় বাহিনীর সংখ্যা বাড়িয়েছে নির্বাচন কমিশন। শেষমেশ যা পৌঁছে গিয়েছিল ১০০ শতাংশে। তবে ষষ্ঠ দফায় কেন্দ্রীয় বাহিনীর সংখ্যা যে অনেকটাই কমে যেতে চলেছে, তেমনই ইঙ্গিত মিলেছে কমিশন সূত্রে।

আগামী ১২ মে ভোটগ্রহণ ষষ্ঠ দফার। এই দফায় রাজ্যের আটটি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ। কেন্দ্রগুলি হল বাঁকুড়া, বিষ্ণুপুর, পুরুলিয়া, ঝাড়গ্রাম, মেদিনীপুর, ঘাটাল, তমলুক এবং কাঁথি। আটটি লোকসভা কেন্দ্রে মোট বুথের সংখ্যা ১৫ হাজার ৪২৮টি।  অন্য দিকে কেন্দ্রীয় বাহিনীর সংখ্যা ৬৮৩ কোম্পানি। অর্থাৎ, অধিক পরিমাণ কেন্দ্রীয় বাহিনী থাকতেও সমস্ত বুথে তাদের মোতায়েন করা হচ্ছে না বলেই প্রাথমিক ভাবে জানা গিয়েছে। কিন্তু কী কারণে?

কমিশন সূত্রে খবর, ষষ্ঠ দফার ভোটে মাত্র ৭৩ শতাংশ বুথে থাকবে কেন্দ্রীয় বাহিনী। এই দফায় যে লোকসভা কেন্দ্রগুলিতে ভোট হচ্ছে, সেগুলির বেশিরভাগই গ্রামীণ এলাকা অধ্যুষিত। ফলে প্রত্যন্ত গ্রামের দুই বুথ সম্বলিত ভোটগ্রহণ কেন্দ্রগুলিতে বাহিনী অধিক সংখ্যায় মোতায়েন করতে চায় কমিশন।
অর্থাৎ, ওই বুথগুলিতেই অধিকাংশ বাহিনী ব্যবহার করা হবে। শহরের ভোটগ্রহণ কেন্দ্রগুলিতে তিন বা চারটি করে বুথ থাকলেও সেখানে কেন্দ্রীয় বাহিনীর পরিবর্তে দেওয়া হবে রাজ্য পুলিশ।

উল্টো দিকে শহরের ২-৩টি বুথ সম্বলিত ভোটগ্রহণ কেন্দ্রই বেশি। কমিশনের হিসেব বলছে, ষষ্ঠ দফায় একটি বুথ সংবলিত ভোটগ্রহণ কেন্দ্রের সংখ্যা ১০,৯৮৬ এবং দুই বুথের ভোটগ্রহণ কেন্দ্রের সংখ্যা ১৯৩২। সেখানেই চার জন করে জওয়ান মোতায়েন করতে গিয়ে বাহিনীর অধিকাংশ চলে যাচ্ছে।

[ গুজরাত উপকূলের কাছ থেকে ২২ ভারতীয় মৎস্যজীবীকে বন্দি করল পাকিস্তান ]

তবে একই সঙ্গে কমিশন জানিয়েছে, শেষ অর্থাৎ সপ্তম দফার ভোটে ১০০ শতাংশ বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন করা হবে। কলকাতা এবং শহরতলির কেন্দ্রগুলিতে নিরাপত্তা ব্যবস্থা আঁটোসাঁটো করতেই কমিশন সব রকমের উদ্যোগ নিতে চলেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.