Connect with us

রাজ্য

পুজোর মুখে বাঙালির ঘরে সুখবর, কলকাতায় এসে গেল পদ্মার ইলিশ

hilsa fish

কলকাতা: কথা রাখলেন শেখ হাসিনা। কলকাতায় এসে গেল পদ্মার ইলিশ। মঙ্গলবার ভোরেই পাতিপুকুরের পাইকারি মাছের বাজারে এসে পৌঁছোয় তিরিশ টন পদ্মার ইলিশ।

কিছু দিন আগেই বাংলাদেশ সরকার জানিয়েছিল, পুজোর জন্য উপহার হিসেবে এ পার বাংলায় পাঁচশো মেট্রিক টন ইলিশ পাঠাবে। সেই কথা রাখল বাংলাদেশ।

এ দিন সকালে পেট্রাপোল সীমান্ত থেকে ট্রাকে করে তিরিশ টন ইলিশ পাতিপুকুরে এসে পৌঁছোয়। পাতিপুকুর থেকে তা হাওড়া, শিয়ালদহ ও বারাসতের বাজারে পাঠিয়ে দেওয়া হয়।

এই নিয়ে দীর্ঘ সাত বছর পর কলকাতার বাজারে এল পদ্মার ইলিশ। মনে করা হচ্ছে, তিস্তার জলবন্টন নিয়ে ভারতের টালবাহানার প্রতিবাদে ইলিশ পাঠানো বন্ধ করে দিয়েছিল ঢাকা। তাই এ বার পাঁচশো টন ইলিশ পাঠানোর সময়ে বাংলাদেশ জানিয়ে দিয়েছিল, এটা বাণিজ্যিক নয়, এ পার বাংলার মানুষের জন্য উপহার।

আরও পড়ুন বৃষ্টি বিপর্যয় লাইভ: রাজ্যের তিন জেলায় বন্যা পরিস্থিতি জটিল, দামোদরেও প্লাবনের আশঙ্কা

উল্লেখ্য, বছর চারেক আগে শেখ হাসিনা কলকাতায় এলে তাঁর সঙ্গে ইলিশ নিয়ে আলোচনা করেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। অনুযোগের সুরে তিনি বাংলাদশের প্রধানমন্ত্রীর কাছে ইলিশের জোগান নিয়ে বিষয়টি বিবেচনার কথা জানান।

রাজ্য

বিকল্প শিক্ষাপদ্ধতি: তৃণমূল প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির উদ্যোগে লকডাউন পাঠশালা

শুধু পড়াশোনাই নয়, শিশুদের পুষ্টিসামগ্রী দিয়ে, কখনও বা খেলাধূলার সামগ্রী দিয়ে এই দীর্ঘ লকডাউনে তাদের মানসিক ও বৌদ্ধিক বিকাশের প্রচেষ্টাও চলছে।

আসানসোল: ‘বিশ্বে জুড়ে অতিমারি, শিক্ষক আজ বাড়ি বাড়ি’ – এই স্লোগানকে সামনে রেখে প্রাথমিক ভাবে আদিবাসী এলাকাগুলোয় পাঁচ থেকে বারো জন ছাত্রছাত্রীকে নিয়ে চলছে গাছতলায় পাঠশালা। উদ্যোক্তা পশ্চিমবঙ্গ তৃণমূল প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি। একে বলা যায় লকডাউন পাঠশালা।  

রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের আবেদনে এই ব্যবস্থা চালু করতে মাঠে নেমেছিলেন প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির রাজ্য সভাপতি ও রাজ্য প্রাথমিক ক্রীড়ার চিফ কোঅর্ডিনেটর অশোক রুদ্র। রাজ্যের প্রান্তিক গ্রাম থেকে শুরু করে স্মার্ট সিটি পর্যন্ত, সর্বত্র সকল ছাত্রছাত্রীর জন্য এই মুক্ত বিদ্যালয়রূপী লকডাউন পাঠশালাকে ধারাবাহিক ভাবে ছড়িয়ে দিতে বদ্ধপরিকর তৃণমূল প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি।

দেশে ও রাজ্যে প্রত্যেক দিন করোনা-আক্রান্তের সংখ্যা আগের দিনের সংখ্যাকে টপকে আরও উদ্বেগজনক হচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে কী ভাবে পরীক্ষা-সহ পঠনপাঠন স্বাভাবিক করা যায় সে সম্পর্কে সারা দেশের শিক্ষাব্যবস্থার সঙ্গে যুক্ত আধিকারিকরা দিশাহীন। এই অবস্থায় লকডাউন পাঠশালার আয়োজন করে নতুন পথ দেখাচ্ছেন পশ্চিমবঙ্গ তৃণমূল প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির শিক্ষক-শিক্ষিকারা।

করোনাভাইরাস জনিত লকডাউন পর্বে ছাত্রছাত্রীদের বাড়িতে পৌঁছে যাওয়ার জন্য শিক্ষক-শিক্ষিকাদের প্রতি আবেদন জানিয়েছিলেন শিক্ষামন্ত্রী। সেই আবেদনে সাড়া দিয়েই তৃণমূল প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি উত্তরবঙ্গ ও দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় এই লকডাউন পাঠশালার কর্মসূচি শুরু করেছে বলে জানিয়েছেন অশোক রুদ্র।

পশ্চিম বর্ধমান জেলায় হীরাপুর ব্লকের প্রান্তিক আদিবাসী গ্রাম ধেনুয়ায় অশোক রুদ্রের নেতৃত্বে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্তর একত্রিত করে লকডাউন পাঠশালা কর্মসূচির সূচনা করা হয়। পূর্ব বর্ধমান জেলায় তপন পোড়েল, আবু বক্কর, অনিমেষ গুপ্ত ও সচিন সিংহ, নদীয়া জেলায় জয়ন্ত সাহা ও সান্টু ভদ্র এবং উত্তর দিনাজপুরে গৌরাঙ্গ চৌহান প্রমুখদের উদ্যোগে এলাকার বিভিন্ন অঞ্চলে শুরু হয়েছে লকডাউন পাঠশালা। জঙ্গলমহলের শালবনী ব্লকে রাধামোহনপুর আদিবাসী বিদ্যালয়ে নিয়মিত অলচিকি ও বাংলা ভাষায় চলছে লকডাউন পাঠশালা তন্ময় সিংহ ও অন্য শিক্ষক-শিক্ষিকার উদ্যোগে।

শুধু পড়াশোনাই নয়, শিশুদের পুষ্টিসামগ্রী দিয়ে, কখনও বা খেলাধূলার সামগ্রী দিয়ে এই দীর্ঘ লকডাউনে তাদের মানসিক ও বৌদ্ধিক বিকাশের প্রচেষ্টাও চলছে। পশ্চিমবঙ্গ তৃণমূল প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির রাজ্য সভাপতি অশোক রুদ্র বলেন, বিপদের সময় পাশে থাকার বার্তা দিয়ে এবং অপত্যস্নেহে ছাত্রছাত্রীদের পাশে থেকে প্রকৃত মাস্টারমশাই হিসাবে উত্তরণ ঘটছে বাংলার শিক্ষককুলের। এ ব্যাপারে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী ও শিক্ষামন্ত্রীর মানবিক দৃষ্টিভঙ্গিরও সপ্রশংস উল্লেখ করেন অশোকবাবু।

তবে শুধু শিক্ষাদানের কর্মসূচিই নয়, আরও অন্যান্য সামাজিক কর্মসূচিতে জড়িয়ে আছে তৃণমূল প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি। স্বাস্থ্য সচেতনতামূলক কর্মসূচি থেকে রক্তদান, খাদ্যসামগ্রী দিয়ে উম্পুন কবলিত এবং করোনা লকডাউনে জর্জরিত মানুষের পাশে দাঁড়ানো – সারা রাজ্যেই নানা কাজ করে চলেছে সমিতি। ইতিমধ্যে মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে চার কোটি টাকার বেশি অর্থসাহায্য করেছে এই সংগঠন। এ ব্যাপারে রাজ্য সভাপতি বারবার কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন সমিতির রাজ্য কমিটি, জেলা কমিটি, চক্র কমিটি থেকে শুরু করে সাধারণ শিক্ষক-শিক্ষিকাদের প্রতি।          

Continue Reading

রাজ্য

কনটেনমেন্ট জোনগুলিতে লকডাউনের মেয়াদ বাড়লে কী কী বন্ধ থাকবে?

কলকাতা: মঙ্গলবার প্রকাশিত নির্দেশিকায় রাজ্যের করোনাভাইরাস কনটেনমেন্ট জোনগুলিতে (Containment Zone) লকডাউনের (Lockdown) মেয়াদ বাড়ানোর সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেছে নবান্ন। আগামী ৯ জুলাই বিকেল ৫টা থেকে অনির্দিষ্ট কালের জন্য জারি থাকবে এই কড়াকড়ি নিয়ম।

রাজ্যের বেশ কিছু অঞ্চলে করোনাভাইরাস (Coronavirus) সংক্রমণের হার ঊর্ধ্বমুখী হওয়ার কারণেই লকডাউন কড়াকড়ি করার নির্দেশিকা জারি করেছে রাজ্য।

এক নজরে কী কী বন্ধ থাকবে?

১. এই এলাকাগুলিতে জরুরি পরিষেবা ছাড়া সমস্ত কাজ বন্ধ থাকবে।

২. এই এলাকার মধ্যে পড়া সমস্ত সরকারি এবং বেসরকারি অফিস বন্ধ থাকবে।

৩. বন্ধ থাকবে কলকারখানা এবং ব্যবসাবাণিজ্যও।

৪. বন্ধ থাকবে বাস-সহ অন্যান্য সমস্ত যানবাহন।

৫. রাজনৈতিক, সামাজিক অথবা ধর্মীয় অনুষ্ঠানে এক সঙ্গে জমায়েত করা বন্ধ।

৬. এলাকাবাসীর গতিবিধির উপর নজরদারি চলবে। জরুরি নয়, এমন কোনো কাজে বাইরে বের হওয়া নিষিদ্ধ।

লকডাউন কার্যকরে উদ্যোগ

১. হাতে থাকা দু’দিন লাগাতার প্রচার করা হবে। সঙ্গে সরকারি বিজ্ঞপ্তি জারি করা হবে।

২. লকডাউন কার্যকরের ১০ দিনের মাথায় পরিস্থিতি পর্যালোচনা করা হবে।

৩. ১৪ দিনের ভিতরেই পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

৪. কনটেনমেন্ট জোনের বাসিন্দাদের বাড়িতে খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থার চেষ্টা চলছে।

৫. যে জেলাগুলিতে সংক্রমণ ঊর্ধ্বমুখী, সেই জেলার জেলা শাসকদের কাছে লকডাউন নিয়ে প্রস্তাব পাঠাতে বলেন মুখ্যসচিব রাজীব সিনহা।

৬. কখন অথবা কী ভাবে কনটেনমেন্ট জোনের সংখ্যা বাড়ানো হবে, তা স্থির করবে প্রশাসন।

প্রসঙ্গত, চিহ্নিত জেলাগুলিকে নিয়ে সিদ্ধান্ত নিতে চলতি সপ্তাহেই বৈঠক করবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ওই বৈঠকের সিদ্ধান্ত নির্দেশিকা আকারে তার পরই প্রকাশ করবে রাজ্য সরকার।

Continue Reading

রাজ্য

রাজ্যে নতুন করে আক্রান্ত ৮৫০, সুস্থ হলেন ৫৫৫ জন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সোমবারের থেকে মঙ্গলবার আরও কিছুটা কমল রাজ্যে নতুন আক্রান্তের সংখ্যা। তবে মৃতের সংখ্যা বেড়েছে। পাশাপাশি, কলকাতায় নতুন আক্রান্তের সংখ্যা এ দিন রেকর্ড করেছে।

রাজ্যের করোনা-তথ্য

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে ৮৫০ জন করোনা-পজিটিভ হয়েছেন। ফলে রাজ্যে মোট আক্রান্তের সংখ্যা এখন বেড়ে হয়েছে ২৩,৮৩৭। ২৫ জনের মৃত্যু হওয়ায় রাজ্যে মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৮০৪।

একই সঙ্গে রাজ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৫৫৫ জন। এর ফলে এখনও পর্যন্ত করোনামুক্ত হলেন মোট ১৫,৭৯০ জন। রাজ্যে সুস্থতার হার বর্তমানে রয়েছে ৬৬.২৪ শতাংশ। সক্রিয় রোগী রাজ্যে বর্তমানে রয়েছেন ৭,২৪৩।

কলকাতা ও পার্শ্ববর্তী চার জেলা

কলকাতার করোনা-পরিস্থিতি রাজ্যের বাকি অংশের তুলনায় উদ্বেগজনক। গত ২৪ ঘণ্টায় ২৯১ জনের শরীরে এই সংক্রমণ মিলেছে। ফলে এখনও পর্যন্ত শহরে মোট আক্রান্ত হলেন ৭,৬৮০ জন। যদিও কলকাতায় সুস্থতার হারও যথেষ্ট আশাব্যঞ্জক। এখনও পর্যন্ত করোনামুক্ত হয়েছেন ৪,৬৯০ জন।

কলকাতায় গত ২৪ ঘণ্টায় ১০ জনের মৃত্যু হওয়ায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৪৩৮।

কলকাতার পরেই সংক্রমণের নিরিখে সবার ওপরে রয়েছে উত্তর ২৪ পরগণা। এই জেলায় নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন ১৮৯ জন। ফলে এই জেলায় এখন আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪.১৩০।

এই জেলায় মৃতের সংখ্যা ১৩৮। তবে এর পাশাপাশি, এই জেলায় করোনামুক্ত হয়েছেন ২,৪১১ জন। ফলে সক্রিয় রোগী এখন রয়েছেন ১৫৮১ জন।

হাওড়া, দক্ষিণ ২৪ পরগণা আর হুগলিতে করোনায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন যথাক্রমে ৭৪, ৭০ আর ২২ জন।

ঝাড়গ্রাম বাদে সব জেলাতেই নতুন আক্রান্তের খোঁজ

গত ২৪ ঘণ্টায় ঝাড়গ্রাম থেকে কারও আক্রান্ত হওয়ায় খবর আসেনি। ওই জেলা ছাড়া অবশ্য সব জেলা থেকেই আক্রান্তের খোঁজ পাওয়া গিয়েছে।

এর মধ্যে সব থেকে বেশি আক্রান্ত হয়েছেন পূর্ব মেদিনীপুরে (৩৬)। তার পরে রয়েছে নদিয়া (২১) বাকি জেলায় নতুন আক্রান্তের সংখ্যা দশের কম।

তবে নতুন আক্রান্তের থেকে সুস্থতার সংখ্যা বেশি হওয়ায় সক্রিয় রোগী কমেছে পশ্চিম মেদিনীপুর (৬৬) আর পশ্চিম বর্ধমানে (২৬)।

চিন্তা বাড়াচ্ছে দার্জিলিং, কিছুটা স্বস্তি মালদায়

উত্তরবঙ্গের মধ্যে মালদা আর দার্জিলিংয়ে করোনা-পরিস্থিতি চিন্তায় রাখছে প্রশাসনকে। গত ২৪ ঘণ্টায় মালদায় ৫০ আর দার্জিলিংয়ে ৩৭ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। দার্জিলিংয়ের অধিকাংশ আক্রান্তই শিলিগুড়ির বাসিন্দা।

তবে মালদায় আক্রান্তের সংখ্যা থেকে এ দিন সুস্থতার সংখ্যা বেশি ছিল (৬৮)। এর ফলে এই জেলায় কমেছে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা। মালদায় আর দার্জিলিংয়ে করোনায় মৃতের সংখ্যা ৪ আর ১০।

কালিম্পং বাদে গত ২৪ ঘণ্টায় উত্তরবঙ্গের সব জেলা থেকেই নতুন সংক্রমণ মিলেছে। তবে তা উদ্বেগজনক নয়।

নমুনা পরীক্ষা সংক্রান্ত তথ্য

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে প্রায় ১০, ১৩০টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। এর ফলে এখনও পর্যন্ত মোট ৫ লক্ষ ৬২ হাজার ১৩৭ জনের নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। রাজ্যে প্রতি দশ লক্ষ মানুষে ৬,২৪৬ জনের পরীক্ষা হচ্ছে। বর্তমানে রাজ্যে নমুনা পজিটিভ হওয়ার হার রয়েছে ৪.২৪ শতাংশ।

Continue Reading
Advertisement
দেশ26 mins ago

‘গান্ধী’ পরিবারের তিনটি ট্রাস্টের বিরুদ্ধে তদন্ত করতে উচ্চস্তরের কমিটি গড়ল কেন্দ্র

রাজ্য2 hours ago

বিকল্প শিক্ষাপদ্ধতি: তৃণমূল প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির উদ্যোগে লকডাউন পাঠশালা

দেশ5 hours ago

নতুন আক্রান্তের সংখ্যা নিয়ন্ত্রণে, কিছুটা বাড়ল সুস্থতা

কলকাতা5 hours ago

করোনা প্রতিরোধে মাস্ক-স্যানিটাইজার বিতরণ ‘উই আর দ্য কমন পিপল’-এর

দেশ5 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ২২৭৫২, সুস্থ ১৬৮৮৩

ক্রিকেট5 hours ago

জন্মদিনের দিন দেখে নেওয়া যাক অধিনায়ক সৌরভের পাঁচটি কালজয়ী সিদ্ধান্ত

দেশ5 hours ago

‘ডন’ বিকাশ দুবেকে দেখা গেল হরিয়ানার হোটেলে, এনকাউন্টারে হত ঘনিষ্ঠ বন্ধু

বিদেশ5 hours ago

পড়ুয়াদের ভিসা বাতিলের নতুন সিদ্ধান্ত নিয়ে ভারতকে ‘আশ্বাস’ আমেরিকার

currency
শিল্প-বাণিজ্য2 days ago

পিপিএফের ৯টি নিয়ম, যা জেনে রাখা ভালো

দেশ5 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ২২৭৫২, সুস্থ ১৬৮৮৩

দেশ3 days ago

২০২১-এর আগে নয় করোনা ভ্যাকসিন? প্রেস বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেও সময়সীমা মুছে দিল বিজ্ঞানমন্ত্রক!

কলকাতা2 days ago

কলকাতায় এখন ১৮টি কনটেনমেন্ট জোন, ১৮৭২টি আইসোলেশন ইউনিট, ফারাকটা কোথায়?

রাজ্য2 days ago

করোনা রুখতে পশ্চিমবঙ্গের ‘সেফ হোম’-এর ভূয়সী প্রশংসা কেন্দ্রের

দেশ3 days ago

গাজিয়াবাদের কারখানায় ভয়াবহ বিস্ফোরণ, মৃত ৭

বিনোদন3 days ago

করোনা আবহে কী ভাবে হল ‘বিবাহ বার্ষিকী’র শুটিং? দেখে নিন অভিনেত্রী দর্শনা বণিকের এক্সক্লুসিভ সাক্ষাৎকার

দেশ2 days ago

গালোয়ান উপত্যকা থেকে চিন সেনার পিছু হঠার পেছনেও অজিত ডোভালের ভূমিকা

কেনাকাটা

কেনাকাটা20 hours ago

বাচ্চার জন্য মাস্ক খুঁজছেন? এগুলোর মধ্যে একটা আপনার পছন্দ হবেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিউ নর্মালে মাস্ক পরাটাই দস্তুর। তা সে ছোটো হোক বা বড়ো। বিরক্ত লাগলেও বড়োরা নিজেরাই নিজেদেরকে বোঝায়।...

কেনাকাটা2 days ago

রান্নাঘরের টুকিটাকি প্রয়োজনে এই ১০টি সামগ্রী খুবই কাজের

খবরঅনলাইন ডেস্ক : লকডাউনের মধ্যে আনলক হলেও খুব দরকার ছাড়া বাইরে না বেরোনোই ভালো। আর বাইরে বেরোলেও নিউ নর্মালের সব...

কেনাকাটা3 days ago

হ্যান্ড স্যানিটাইজারে ৩১ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় দিচ্ছে অ্যামাজন

অনলাইনে খুচরো বিক্রেতা অ্যামাজন ক্রেতার চাহিদার কথা মাথায় রেখে ঢেলে সাজিয়েছে হ্যান্ড স্যানিটাইজারের সম্ভার।

DIY DIY
কেনাকাটা1 week ago

সময় কাটছে না? ঘরে বসে এই সমস্ত সামগ্রী দিয়ে করুন ডিআইওয়াই আইটেম

খবর অনলাইন ডেস্ক :  এক ঘেয়ে সময় কাটছে না? ঘরে বসে করতে পারেন ডিআইওয়াই অর্থাৎ ডু ইট ইওরসেলফ। বাড়িতে পড়ে...

নজরে