পার্থ চট্টোপাধ্যায়, অর্পিতা মুখোপাধ্যায়
পার্থ চট্টোপাধ্যায়, অর্পিতা মুখোপাধ্যায়। প্রতীকী ছবি

কলকাতা: অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে মাঝেমধ্যেই দক্ষিণ কলকাতার আবাসনে দেখা করতে আসতেন প্রাক্তন মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়, এমনটাই দাবি করলেন অর্পিতার গাড়িচালক প্রণব ভট্টাচার্য। সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে তিনি জানিয়েছেন, জানুয়ারি মাস থেকে তিনি অর্পিতার কাছে কাজ করতেন। এখন পুজোর মুখে কাজ হারিয়ে তিনি দিশাহারা।

একটি সংবাদ মাধ্যমের কাছে প্রণব বলেন, “আমি এই বছর জানুয়ারি মাসে কাজে যোগ দিয়েছিলাম। কিন্তু, কখনও ভাবিনি এই ধরনের পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে হবে। পেটের টানে কাজ করতাম। আমার বেতন কোনো দিন অর্পিতা আটকাননি। তবে এ মাসে যে কাজ করেছি, তার স্যালারিটা পাইনি। আমার ফোন ইডি-র কাছে জমা। ফোনটা আমি পাব কি না, সেটাও বুঝতে পারছি না”।

তাঁর কথায়, ইডি আধিকারিকরা শুধুমাত্র আমাকে ক’টা প্রশ্ন করেছেন। এর বেশ কিছু নয়। কোথায় গেছি, ইত্যাদি। তিনি আরও বলেন, “হঠাৎ আমার রোজগার বন্ধ হয়ে গিয়েছে। আমার ১৫ হাজার টাকা বেতন ছিল। সামনে পুজো। কাজটা চলে গেল। এখন কাজ খোঁজাও মুশকিল”।

ওই সংবাদমাধ্যমে প্রণব জানিয়েছেন, গাড়ি চালিয়ে অর্পিতাকে দক্ষিণ কলকাতার আবাসনে পৌঁছে দিতেন তিনি। তাঁর দাবি, সেই ফ্ল্যাটে মাঝেমধ্যেই পার্থও আসতেন। তবে, পার্থ আসার পরে তিনি ফিরে যেতেন, এমনই ‘নির্দেশ’ দেওয়া ছিল তাঁকে।

অর্পিতার কাছে অডি, মার্সিডিজ সহ চারটি বিলাসবহুল গাড়ি ছিল বলে সন্দেহ তদন্তকারীদের। কিন্তু, এই গাড়িগুলি বেপাত্তা। এই প্রসঙ্গে প্রণব জানিয়েছেন, অর্পিতার নামে আরও অনেক গাড়ি ছিল। কিন্তু তাঁকে হন্ডা সিটি ছাড়া অন্য কোনো গাড়ি চালাতে দেওয়া হয়নি।

প্রণব আরও জানান, গাড়িতে ওঠার সময় অর্পিতার সঙ্গে কোনো বড়ো ব্যাগ বা লাগেজ তাঁর নজরে আসেনি। শুধু ভ্যানিটি ব্যাগই থাকত।

আরও পড়তে পারেন: 

উপরাষ্ট্রপতি নির্বাচন: তৃণমূলের কাছে বিশেষ আহ্বান মার্গারেট আলভার

এসএসসি নিয়োগ দুর্নীতির টাকা যেত বারাসতের টেক্সটাইল সংস্থায়? ইডি-র নজরে কর্ণধার

রাতভর ধরনা, অভিষেকের অফিসের সামনে থেকে টেট-উত্তীর্ণদের সরাল পুলিশ

শুটিং সেটে ঢুকে ৮ মহিলাকে ধর্ষণ, চাঞ্চল্য দক্ষিণ আফ্রিকায়

মহিলাকে বন্দি করে ধর্ষণ, গুরুতর অভিযোগ গুজরাতের মন্ত্রীর বিরুদ্ধে

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন