Mukul roy and partha chatterjee
মুকুল তখন তৃণমূলে। ফাইল ছবি

ওয়েবডেস্ক: “সিঙ্গুরের আন্দোলন ভুল ছিল। সিঙ্গুরের জমিতে না হল শিল্প। সিঙ্গুরের জমিতে না হচ্ছে চাষ। টাটার ছেড়ে যাওয়া সেই জমি এখনও পড়ে রয়েছে। ভুগছেন বাংলার বেকার যুবক-যুবতীরা”। বাংলার রাজ্যরাজনীতিতে মাইলস্টোন সিঙ্গুর আন্দোলন নিয়ে এমনই স্বীকারোক্তি তৃণমূলত্যাগী, বর্তমানে বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের।

প্রসঙ্গত, বিগত বামফ্রন্ট সরকারের শেষের দিকে হুগলির সিঙ্গুরে টাটা মোটর্সের ন্যানো প্রকল্পে জমি দেওয়া নিয়ে উত্তাল হয়ে ওঠে বাংলার রাজনীতি। ওই আন্দোলনকে সামনে রেখেই তৃণমূলের লাগাতার আন্দোলন এবং দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অনশন বহুলচর্চিত বিষয়। সেই আন্দোলনে শরিক ছিলেন মুকুলবাবুও। তখন তিনি তৃণমূলের ‘নম্বর-টু’ নেতা হিসাবে পরিচিত। যদিও বিজেপিতে যাওয়ার পর তাঁর স্বীকারোক্তিতে ঝরে পড়ছে বামপন্থীদের অভিযোগেরই অনুরণন!

তবে মুকুলবাবুর এহেন বিস্ফোরক মন্তব্যের পর তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় তীব্র কটাক্ষ করেছেন তাঁর উদ্দেশে। পার্থবাবু বলেন, “ও কৃষক আন্দোলন, জমি আন্দোলনের কী বোঝে? সিঙ্গুরে ক’দিন গিয়েছে। মুকুল সিঙ্গুরে যেত খিচুড়ি খেতে”।

তবে এই প্রথম নয়, এর আগেও সিঙ্গুর আন্দোলন নিয়ে তৃণমূলকে তুলোধনা করেছেন মুকুলবাবু। বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পরপরই তিনি সিঙ্গুরের মাটিতে দাঁড়িয়ে অভিযোগ করেন, “ন্যানোপন্থীরা এখন তৃণমূল নেতা হয়ে গিয়েছেন। যাঁরা সিঙ্গুরে আন্দোলন করেছিলেন, তাঁরা এখন অনেক দূরে চলে গিয়েছেন। সিঙ্গুরে ইচ্ছুক ও অনিচ্ছুকদের লড়াই ছিল”। আক্ষেপ করে তিনি এমনও বলেন, “চোর তারাতে গিয়ে ডাকাত নিয়ে এলাম”।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন