নিজস্ব সংবাদদাতা, জলপাইগুড়ি: জলপাইগুড়ির বড়ো পোষ্ট অফিসে পাসপোর্ট সেবাকেন্দ্রের উদ্বোধন হল। শুক্রবার পাসপোর্ট সেবাকেন্দ্রের উদ্বোধন করলেন জলপাইগুড়ির সাংসদ বিজয়চন্দ্র বর্মন। তাঁর সঙ্গে ছিলেন আঞ্চলিক পাসপোর্ট আধিকারিক বিভূতিভূষণ কুমার এবং উত্তরবঙ্গের পোষ্টমাষ্টার জেনারেল জোসেফ লালরিনসাইলোভা।

পাসপোর্ট সেবা কেন্দ্রটির উদ্বোধন করে বিজয়চন্দ্র বর্মন বলেন, “বিদেশে যাওয়ার সুযোগ জলপাইগুড়িবাসী পেল। এতদিন পাসপোর্ট পাওয়ার জন্য বাসিন্দাদের যে হয়রানি হত তা আর হবে না।”

আঞ্চলিক পাসপোর্ট দফতর সুত্রে জানা যায় যে কেন্দ্রীয় সরকার প্রতিটি সংসদীয় ক্ষেত্রে একটি পোষ্ট অফিসে পাসপোর্ট সেবাকেন্দ্র স্থাপনের পরিকল্পনা নিয়েছে। সেই পরিকল্পনা আনুযায়ী জলপাইগুড়ির কেন্দ্রটি স্থাপন করা হল। উত্তরবঙ্গে এটি চতুর্থ, রাজ্যে ১৩তম এবং দেশের মধ্যে ২৩৮তম পাসপোর্ট সেবাকেন্দ্র। উদ্বোধনের দিনে এখানে ১০জন আবেদনকারী ব্যাক্তির আবেদন এবং সক্ষাৎকার নেওয়া হয়। সোমবার থেকে সর্বাধিক ৪০ জন এই সুযোগ পাবেন।

পাসপোর্ট দফতরের পূর্বাঞ্চলীয় আধিকর্তা বিভূতিভূষণ কুমার বলেন, “এই পাসপোর্ট সেবাকেন্দ্র থেকে কেবলমাত্র জলপাইগুড়ি জেলার বাসিন্দারাই সহযোগিতা পাবেন। অন্যদের শিলিগুড়িতে যেতে হবে। প্রথমে সবাইকে অনলাইনে আবেদন করতে হবে। অফ লাইনে আবেদনের কোনো ব্যবস্থা নেই। পুলিশের ছাড়পত্র পাওয়ার পর তিন দিনের মধ্যে পাসপোর্ট আবেদনকারির কাছে পাঠানো হবে।”

যে দশজন এ দিন পাসপোর্টের আবেদন করেছিলেন তাদের একজন আবীর করগুপ্ত বলেন, “আমাদের পরিবারের চারজন মিলে অনলাইনে আবেদন করেছিলাম। এখানে আজই পাসপোর্টের আবেদনপত্র গ্রহনের স্বীকৃতি পেয়ে গেলাম। শিলিগুড়ি বা গ্যাংটক আর যেতে হল না। খুবই ভাল ব্যবস্থা। এখানে এই কেন্দ্র হওয়াতে আমরা সকলেই খুশি।”

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here