ঋণের পাহাড় নিয়ে এভারেস্ট-শীর্ষে পিয়ালি, আসুন আমরা সবাই ওর পাশে দাঁড়াই

0
Piyali Basak

কলকাতা: এ-ও এক বিরল কৃতিত্ব বই-কি! চন্দননগরের পিয়ালি বসাক পৃথিবীর সর্বোচ্চ শৃঙ্গ এভারেস্টের পথে ৮৪৫০ মিটার পৌঁছে গেলেন অক্সিজেন ছাড়াই। তার পরে দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার জন্য অক্সিজেন নিতে বাধ্য হন। অক্সিজেনের সাহায্য নিয়ে শেষ প্রায় ৪০০ মিটার উঠে এভারেস্ট জয় করলেন পিয়ালি।

অতিরিক্ত অক্সিজেনের সাহায্য ছাড়াই ধৌলাগিরি শৃঙ্গে উঠেছিলেন পিয়ালি। এই সাফল্যে অনুপ্রাণিত হয়ে অক্সিজেন ছাড়াই এভারেস্টে ওঠার পরিকল্পনা করেছিলেন পিয়ালি। পিয়ালি বরাবরই বলে এসেছেন, অক্সিজেন ছাড়া পর্বতশৃঙ্গ জয় করার এক বিরল ক্ষমতা তাঁর আছে। হাই অল্টিচিউডে তাঁর কোনো সমস্যা হয় না। কোনো হাই অল্টিচিউড সিকনেস হয় না। সেই ক্ষমতা ও আত্মবিশ্বাসকে সঙ্গী করেই অক্সিজেন ছাড়াই এভারেস্ট শৃঙ্গে ওঠার চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু ঝোড়ো আবহাওয়ার জন্য শেষ ৪০০ মিটার অতিরিক্ত অক্সিজেনের সাহায্য নিতে বাধ্য হলেন পিয়ালি। এতে হয়তো তাঁর সাময়িক আশাভঙ্গ হল, কিন্তু কৃতিত্ব এতটুকু খাটো হল না।

রবিবার ভারতীয় সময় সকাল সোয়া ১০টা নাগাদ এভারেস্টের চূড়ায় ওঠেন পিয়ালি। এভারেস্ট জয় করে পিয়ালি সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা নাগাদ ক্যাম্প ৪-এ নেমে আসেন। খারাপ ঝোড়ো আবহাওয়ার মাঝেই পিয়ালি এই অসাধ্য সাধন করলেন। এ দিনের সাফল্যের পর এটা নির্দ্বিধায় বলা যায়, পিয়ালি একদিন অক্সিজেন ছাড়াই এভারেস্টে উঠবেন।  

পিয়ালির এই কৃতিত্বে পর্বতারোহী মহলে ব্যাপক সাড়া পড়ে গিয়েছে। এভারেস্টজয়ী বসন্ত সিংহ রায় বলেছেন, অসাধ্য সাধন করেছেন পিয়ালি। এই সাফল্য বর্ণনা করার ভাষা নেই। বসন্ত সিংহ রায় প্রার্থনা করেছেন, পিয়ালি যেন সুস্থ শরীরে নেমে আসে।

৩১ বছরের পিয়ালি বসাক চন্দননগর কানাইলাল প্রাথমিক বিদ্যামন্দিরের প্যারাটিচার। আর্থিক দিক থেকে খুব সাধারণ পরিবার। পিয়ালির বাবা শয্যাশায়ী। এ সব বাধা পেরিয়েই এভারেস্টে উঠলেন তিনি।

৩ মে এভারেস্টের জন্য রওনা হয়েছিলেন পিয়ালি। ১৯ দিন পরে সামিট করলেন তিনি। তাঁর এভারেস্ট জয়ের খবর চন্দননগরের বাড়িতে পৌঁছোয় রবিবার বেলার দিকে। খবর পেয়ে সবাই খুব উচ্ছ্বসিত। পিয়ালির মা সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, সকালেই খবর এল পিয়ালির পিক সামিট হয়ে গিয়েছে। তাঁর মেয়ে বরাবরই বলে চিন্তা কোরো না। পর্বতশৃঙ্গ আরোহণে ওর কোনো সমস্যা হয় না। তাই বিশাল কিছু চিন্তা ছিল না। ছোটোবেলা থেকেই ও যা করে তা মন দিয়েই করে।

পিয়ালির বন্ধু-পরিজন সূত্রে জানা গিয়েছে, এই পর্বতশৃঙ্গ জয় করতে গিয়ে বিশাল ঋণের পাহাড় চেপেছে তাঁর ঘাড়ে। কোনো সরকারি বা বেসরকারি স্পনসর ছাড়াই পিয়ালি একের পর এক পর্বত অভিযান চালাচ্ছেন। পিয়ালির ঘনিষ্ঠরা মনে করেন, পিয়ালিকে সংবর্ধনা দেওয়ার পাশাপাশি এখন সকলের উচিত ওর পাশে সর্বতো ভাবে দাঁড়ানো।

আরও পড়তে পারেন

আজ দুপুরেই তলব রাজ্যপালের, সময় চাইলেন শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু

এ বার ভোট পরবর্তী হিংসা মামলায় জিজ্ঞাসাবাদ! অনুব্রত মণ্ডলকে ফের তলব সিবিআইয়ের

৭ দিনের মধ্যে ক্যানসার আক্রান্ত সোমা দাসের চাকরি, এসএসসি-কে নির্দেশ স্কুল শিক্ষা দফতরের

বাংলায় বিজেপির গ্রাফ কেন পড়ছে? তৃণমূলে ফিরে যা বললেন অর্জুন সিংহ

এখনও পর্যন্ত ভারতে না ঘটলেও মাঙ্কিপক্স সংক্রমণ নিয়ে সতর্ক স্বাস্থ্যমন্ত্রক

‘এসি ঘরে বসে রাজনীতি হয় না’, তৃণমূলে ফিরেই রাজ্য বিজেপি-কে খোঁচা অর্জুন সিংহের

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন