Nabanna

কলকাতা: নবান্নে বসে ‘ঘুষ’ নিতে গিয়ে ধৃত দুই। এঁদের মধ্যে একজন সরকারি কর্মী অন্যজন কনস্টেবল। সমবেদনা ভিত্তিক চাকরি পাইয়ে দেওয়ার জন্য তাঁরা ‘ঘুষ’ নিতে গিয়ে হাতেনাতে পাকড়াও হয়েছেন বলে জানা গিয়েছে।

পুলিশ সূত্রে খবর, চাকরি পাইয়ে দেওয়ার জন্য ২০ হাজার টাকা পর্যন্ত ‘ঘুষ’ চাওয়া হয়। অভিযোগ পেয়ে হাতেনাতে দুই অভিযুক্তিকে গ্রেফতার করে পুলিশ। সমবেদনা ভিত্তিক চাকরি পাইয়ে দেওয়ার বিনিময়ে পুলিশ শুক্রবার গ্রেফতার করে প্রতুলচন্দ্র মজুমদার নামে এক সরকারি কর্মীকে।

একই ভাবে ৫ হাজার টাকা ‘ঘুষ’ নেওয়ার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয় দেবাশিস বড়ুয়া নামে এক কনস্টেবলকে।


আরও পড়ুন: মায়ের শ্লীলতাহানি, মারের জেরে অসুস্থ শিশুর মৃত্যুর অভিযোগে গ্রেফতার হাসপাতাল কর্মী

দীর্ঘ দিন ধরেই পুলিশের কাছে খবর রয়েছে, নবান্নে ভুয়ো চাকরি চক্র চলছে। সেই চক্রের মদতদাতা একাংশের সরকারি কর্মীরা। এ বিষয়ে বেশ কয়েক মাস ধরেই কড়া নজরদারি চালাচ্ছিল। তবে এই ঘুষ-চক্রে খোদ সরকারি কর্মীরা যে ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে রয়েছেন, তেমন উদাহরণ এই প্রথম মিলল নবান্নে।

এই ঘটনার পর জানানো হয়, এই ধরনের চাকরিপ্রার্থীদের যোগদানপত্র পেতে দেরি হলে নীচুতলার কর্মীরা বিষয়টি দেখবেন। উচ্চপদস্থ আধিকারিকরা সরাসরি বিষয়টি নিয়ে খোঁজখবর রাখবেন।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন