কলকাতায় এ বার থেকে ২০০৬ সালের আগে রেজিস্ট্রেশন করা পুলকার আর রাস্তায় চলবে না বলে জানিয়ে দিলেন পরিবহণমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। বৃহস্পতিবার রবীন্দ্র সদনে ওয়েস্ট বেঙ্গল কন্ট্র্যাক্ট ক্যারেজ ওনার্স অ্যান্ড অপারেটার্স অ্যাসোসিয়েশনের উদ্যোগে আয়োজিত স্কুলবাসের চালক ও সহ-চালকদের নিয়ে সচেতনা শিবির আয়োজন করা হয়। সেই অনুষ্ঠানেই এই ঘোষণা করেছেন রাজ্যের পরিবহণমন্ত্রী।

তিনি আরও বলেন যে আগামী ৩০ নভেম্বরের মধ্যে সব স্কুলবাস ও পুলকারে জিপিআরএস, প্যানিক বোতাম, সিট গভর্নর লাগানো হবে। ওই দিনের মধ্যেই ২০০৬-এর আগের রেজিস্ট্রি হওয়া সমস্ত স্কুলগাড়ি পরিবর্তন করতে হবে। অবশ্য তার জন্য রাজ্য সরকার সব রকম সহযোগিতা করবে বলে আশ্বাস দিয়েছেন পরিবহণমন্ত্রী। এর জন্য গাড়ির মালিকদের আবেদনে সাড়া দিয়ে রেজিস্ট্রেশন-সহ বেশ কিছু পদ্ধতির সরলীকরণ করা হয়েছে বলে তিনি জানিয়েছেন। শুভেন্দুবাবু বলেন, ছাত্রছাত্রীদের সুরক্ষার কথা মাথায় রেখে বেশ কয়েকটি পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে রাজ্য সরকার। এদের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে এই ভাবে স্কুলবাস ও পুলকার চলতে পারে না।

এই ব্যাপারে কলকাতা ও বৃহত্তর কলকাতার অন্তর্গত সমস্ত স্কুলকে চিঠি দেওয়া হয়েছে। তাঁর কথায় যে সমস্ত স্কুল পুলকার ও স্কুলবাসের দায়িত্ব অন্য সংস্থার ওপর ছেড়ে দিয়েছে, তাদের জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে যাতে সেই পুলকার বা স্কুলবাসের ওপর নজর রাখা হয়। স্কুলের এলাকায় পার্কিং-এর ব্যবস্থা করার দায়িত্ব নিতে হবে স্কুলকেই। তারা তাঁদের দায়িত্ব এড়িয়ে যেতে পারে না। এর সাথে গাড়ির চালকদের প্রতি তাঁর আর্জি, মালিকরা নিয়মের বাইরে গিয়ে চালকদের গাড়ি চালানোর জন্য দিলে তাঁরা যেন গাড়ি না চালান।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here