ওয়েবডেস্ক: সোমবার এক কথায় দুর্যোগের দক্ষিণবঙ্গ। সকাল থেকে দাপট দেখিয়েছে কালবৈশাখী। সেই সঙ্গে পাল্লা দিয়ে পড়েছে বাজ। বজ্রপাতের প্রভাবে রাজ্যে এখনও পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ১১ জনের।

এত বেশি মৃতের সংখ্যায় একটা কথা বোঝা যাচ্ছে যে সাধারণ মানুষের কাছে অনেক সময়েই আবহাওয়ার সতর্কবার্তা পৌঁছচ্ছে না। আবার সতর্কবার্তা পৌঁছোলেও বজ্রপাতের ব্যাপারে কেউই বিশেষ নজর দেন না।

বজ্রপাতের সময়ে কী কী সাবধানতা অবলম্বন করে চলবেন সেই ব্যাপারে কয়েকটি তথ্য দেওয়া হল।

ঘরের বাইরে থাকলে

১) উঁচু জায়গায় থাকবেন না। বাড়ির ছাদে একদমই থাকবেন না।

২) সমতল জায়গায় শুয়ে থাকবেন না।

৩) গাছের তলায় আশ্রয় নেবেন না।

৪) ফাঁকা জায়গায় কোনো যাত্রী ছাউনির মতো জায়গাতেও থাকবেন না।

৫) পুকুর, হ্রদ-সহ জলাশয়ের ধারেকাছে থাকবেন না।

৬) ধাতব বস্তু এড়িয়ে চলুন। বজ্রপাত ও ঝড়ের সময় ধাতব কল, সিঁড়ির রেলিং, পাইপ ইত্যাদি স্পর্শ করবেন না।

ঘরের ভিতরে

১) বৈদ্যুতিক জিনিসপত্র, কম্পিউটার এবং ল্যান্ডফোন স্পর্শ করবেন না।

২) জল ঘাঁটবেন না। বেসিনের কাছে যাবেন না। চানও করবেন না।

৩) জানলার বা দরজার কাছে থাকবেন না।

৪) কংক্রিটের মেঝেতে শুয়ে পড়বেন না। কংক্রিটের দেওয়ালে হেলান দেবেন না।

বজ্রপাতের সময়ে তিনটে জিনিস যা মনে রাখতেই হবে

১) ঝড়বৃষ্টির সময়ে কোনো ফাঁকা জায়গাই নিরাপদ নয়।

২) মেঘ ডাকলেই বুঝবেন বজ্রপাত বেশি দূরে নেই আর।

৩) যদি ফাঁকা জায়গায় থাকেন, তা হলে মেঘের গর্জন শুরু হলেই নিরাপদ স্থানে আশ্রয় নিন।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন