বীরভূমের ৪২ জেলা পরিষদ আসনেই প্রার্থী দেওয়ার প্রস্তুতি চলছে গেরুয়া শিবিরে

0
8779
bjp

কলকাতা: রাজ্য নির্বাচন কমিশনের ঘোষিত পূর্ব নির্ধারিত ভোটের দিন যে পিছোচ্ছে, সে ব্যাপারে প্রায় নিশ্চিত বিরোধীরা। বিশেষ করে, গত শুক্রবার হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ সিঙ্গল বেঞ্চের নির্দেশ মতো শুনানির দিন অপরিবর্তিত রাখায় তেমন ধারণাই বদ্ধমূল হয়েছে বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলির নেতৃত্বের মনে। বর্তমানে প্রধান বিরোধী দল হিসাবে উঠে আসা বিজেপি নেতৃত্ব সেই অনুমানকে সামনে রেখেই নতুন করে মনোনয়ন জমা করার সমস্ত প্রস্তুতি সেরে রাখছেন।

বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, নির্বাচন কমিশনকে আদালত যদি পুনরায় মনোনয়ন জমা করার আদেশ দেয় তা হলে সে দিকে নজর রেখেই তাঁরা সমস্ত তালিকা তৈরি করে রাখছেন। রাজ্যের সমস্ত জেলাতেই প্রার্থী দিতে না পারা আসনগুলিতে ফের নতুন করে প্রার্থী দেওয়া হবে। বিশেষ করে বীরভূম জেলাকে্ অগ্রাধিকারের তালিকায় রাখা হচ্ছে। একই ভাবে বিজেপি নেতা কৈলাশ বিজয়বর্গীয়, মুকুল রায়রা মনে করেন, আদালত যদি মনোনয়ন জমা করার জন্য বাড়তি সময় দেয় তাহলে বীরভূমে অনুব্রত মণ্ডলের সমস্ত রকমের হুকমিকে উপেক্ষা করে প্রতিটি জেলা পরিষদ আসনেই প্রার্থী দেবে বিজেপি।

উল্লেখ্য, বীরভূমের ৪২‌টি জেলা পরিষদ আসনের মধ্যে মাত্র একটি আসনে প্রার্থী দিতে সক্ষম হয়েছিল বিজেপি। কিন্তু গত বৃহস্পতিবার সেই ‘সবেধন নীলমণি’ বিজেপি পার্থী চিত্রলেখা রায়ও মনোনয়ন প্রত্যাহার করে নিয়েছেন। গত শুক্রবারও তাঁকে দেখা গিয়েছে তৃণমূলের জেলা স্তরের বৈঠকে। সূত্রের খবর, অনুব্রতর সঙ্গে কথা বলার পর তিনি সাংবাদিকদের সামনে বলেন, ‘আমি ভুল করে মনোনয়ন জমা করে ফেলেছিলাম।’ এমনও গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে, তিনি রাতারাতি তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন।

স্বাভাবিক ভাবেই প্রশ্ন উঠছে, এক মাত্র প্রার্থীর পরিণতি যদি এই হয়, তা হলে ৪২ জেলা পরিষদ আসনে ৪২ প্রার্থীর হাল অন্য কিছু হতে পারে কি? যদিও সব কিছু নির্ভর করছে হাইকোর্টের রায়ের উপর।

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here