examimation

কলকাতা: চতুর্থীর দিন (বৃহস্পতিবার) বড়োসড়ো সুখবর পেলেন প্রাথমিক শিক্ষকপদে চাকরিপ্রার্থীরা। ইতিমধ্যেই ঘোষণা করা হয়েছে, চলতি বছর প্রাথমিকে ১১ হাজার শূন্যপদ পূরণে ১১ ডিসেম্বর লিখিত পরীক্ষা নেওয়া হবে। এ দিন প্রকাশিত হল টেটের বিজ্ঞপ্তি।

২০২২-এর টেট যে ১১ ডিসেম্বর হওয়ার কথা, তারই বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হল এ দিন। চাকরিপ্রার্থীরা অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন। অনলাইনে আবেদনের বিস্তারিত তথ্য ১৪ অক্টোবর বা তার পরে জানিয়ে দেওয়া হবে।

কারা পরীক্ষায় বসতে পারবেন?

(i) ক্লাস I-V
কমপক্ষে ৫০ শতাংশ নম্বর-সহ সিনিয়র মাধ্যমিক (বা এর সমতুল্য) এবং প্রাথমিক শিক্ষায় ২ বছরের ডিপ্লোমা (যে নামেই পরিচিত)

অথবা কমপক্ষে ৫০ শতাংশ নম্বর-সহ সিনিয়র মাধ্যমিক (বা এর সমতুল্য) এবং প্রাথমিক শিক্ষার ৪ বছরের স্নাতক (B.El.Ed.)

বা
কমপক্ষে ৫০ শতাংশ নম্বর-সহ সিনিয়র সেকেন্ডারি (বা এর সমতুল্য) এবং ডিপ্লোমা ইন এডুকেশন (বিশেষ শিক্ষা), রিহ্যাবিলিটেশন কাউন্সিল অব ইন্ডিয়া (R.C.I.) দ্বারা স্বীকৃত একটি কোর্সও বিবেচনা করা হবে।

বা

কমপক্ষে ৫০ শতাংশ নম্বর-সহ স্নাতক এবং শিক্ষা স্নাতক (বিএড)

সিনিয়র সেকেন্ডারি বা তার সমমানের পরীক্ষায় ৫ শতাংশ নম্বর শিথিলকরণ (অর্থাৎ ৪৫ শতাংশ) তফসিলি জাতি (SC), তফসিলি উপজাতি (ST), অন্যান্য অনগ্রসর শ্রেণি (OBC-A এবং OBC-B), অব্যাহতিপ্রাপ্ত বিভাগগুলির (EC), প্রাক্তন সৈনিক, শারীরিক ভাবে প্রতিবন্ধী (PH) এবং DH (ডেথ-ইন-হারনেস) বিভাগের প্রার্থীদের জন্য অনুমোদিত হবে।

(ii)
এনসিটিই (NCTE) স্বীকৃত প্রতিষ্ঠান থেকে এই বিজ্ঞপ্তির তারিখে দুই বছরের D.El.Ed কোর্সের চূড়ান্ত পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী ব্যক্তিরা, যাঁদের ফলাফল এখনও প্রকাশিত হয়নি

এবং এমন ব্যক্তিরা যাঁরা আরসিআই স্বীকৃত প্রতিষ্ঠান থেকে দুই বছরের ডিএডের (বিশেষ শিক্ষা) চূড়ান্ত পরীক্ষায় অংশ নিয়েছেন, এই বিজ্ঞপ্তির তারিখে ফলাফল এখনও প্রকাশিত হয়নি

এবং যাঁরা এই বিজ্ঞপ্তির তারিখে এমসিটিই স্বীকৃত প্রতিষ্ঠান থেকে ব্যাচেলর অফ এডুকেশন (B.Ed.) কোর্সের চূড়ান্ত পরীক্ষায় অংশ নিয়েছেন এবং ফলাফল এখনও প্রকাশিত হয়নি তাঁরাও টেট-২০২২-এ বসার জন্য যোগ্য হবেন।

এবং যাঁরা D.El.Ed./D.Ed (বিশেষ শিক্ষা)/বিএড প্রশিক্ষণ (সেশন ২০২০-২০২২) নিচ্ছেন এবং যাঁরা D.El.Ed./D.Ed (বিশেষ শিক্ষা)/বিএড পার্ট-১ পরীক্ষায় (সেশন ২০২০-২০২২) যোগ্যতা অর্জন করেছেন, টেট-২০২২-এর জন্য আবেদন করার সুযোগ দেওয়া হবে।

এই বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের তারিখের পরে যে সমস্ত প্রার্থীরা ন্যূনতম শিক্ষাগত যোগ্যতা অর্জন করেছেন তাঁদের টেট-২০২২-এ উপস্থিত হওয়ার জন্য অনুমতি দেওয়া হবে না।

প্রথম ভাষা: আবেদনকারীদের প্রথম ভাষা হিসাবে নিম্নলিখিত ভাষার যে কোনো একটি বেছে নিতে হবে: বাংলা, হিন্দি, উর্দু, নেপালি, সাঁওতালি, ওড়িয়া এবং তেলেগু। পছন্দ হবে স্কুলে শিক্ষার মাধ্যমের ভিত্তিতে।

দ্বিতীয় ভাষা: ইংরেজি (সকলের জন্য)

যোগ্যতার মার্কস: যে প্রার্থী টেট-এ পূর্ণ নম্বরের (১৫০) মধ্যে ৬০ শতাংশ বা তার বেশি স্কোর করবেন তাঁকে টেট-২০২২-এ পাস করা প্রার্থী হিসাবে বিবেচনা করা হবে। এসসি, এসটি, ওবিসি-এ, ওবিসি-বি, পিএইচ, ইসি, প্রাক্তন সৈনিক এবং ডিএইচ (ডেথ-ইন-হারনেস) প্রার্থীদের জন্য ৫ শতাংশ (অর্থাৎ ৫৫ শতাংশ) শিথিলকরণ হবে।

সাধারণ প্রার্থীদের জন্য অনলাইন আবেদন ফি ১৫০ টাকা। ওবিসি-এ এবং ওবিসি-বি প্রার্থীদের জন্য ১০০ টাকা এবং এসসি, এসটি, পিএইচ প্রার্থীদের জন্য ৫০ টাকা।

প্রার্থীরা ক্রেডিট কার্ড/ডেবিট কার্ড/ইন্টারনেট ব্যাঙ্কিংয়ের মাধ্যমে পরীক্ষার ফি দিতে পারেন। অতিরিক্ত প্রক্রিয়াকরণ চার্জ প্রযোজ্য হবে।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন