চতুর্থ দিনেও রাজ্য জুড়ে বিক্ষিপ্ত অশান্তি, পরিস্থিতি মোকাবিলায় ৮ কোম্পানি বাহিনী রাজ্যে

0

ওয়েবডেস্ক: বিভিন্ন মহল থেকে প্রতিবাদকারীদের হুঁশিয়ারি দেওয়া হলেও রাজ্যে নাগরিকত্ব আইন বিরোধী প্রতিবাদের ছবিটা সোমবারও খুব একটা বদলায়নি। এ দিনও সকাল থেকে বিভিন্ন জায়গায় রেল ও রাস্তা অবরোধ করে নতুন আইন বিরোধীরা।

তবে গত তিন দিনের তুলনায় সোমবারের ছবিটা একটু ভিন্ন। বিভিন্ন জায়গায় অবরোধে ভোগান্তি হলেও, এখনও পর্যন্ত হিংসাত্মক কোনো ঘটনার খবর নেই। বাস বা গাড়ি পোড়ানো বা স্টেশনে হামলার খবরও বিশেষ পাওয়া যায়নি।

তবে গত কয়েকদিনে তুমুল তাণ্ডবে রাজ্যের অনেক স্টেশনই ব্যাপক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। আর ঠিক সেই কারণেই ৮ কোম্পানি বাহিনী এসে পৌঁছেছে রাজ্যে। বিভিন্ন স্টেশনে তা মোতায়েন করা হবে।

রেল সূত্রে খবর,  মালদার হরিশচন্দ্রপুর ও ভালুকা রোড স্টেশন দুটি ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় উত্তরবঙ্গগামী কোনও ট্রেনই যেতে পারছে না। বিক্ষোভের নামে তাণ্ডবের জেরে আজিমগঞ্জ -নিউ ফারাক্কা সেকশনে ক্ষতিগ্রস্ত নিমতিতা, সুজনিপুর, ধুলিয়ান গঙ্গা, নোয়াপাড়া হল্ট, বাসুদেবপুর হল্ট, মনিগ্রাম প্রভৃতি স্টেশনগুলি।

আরও পড়ুন নাগরিকপঞ্জি নিয়ে অবস্থান বদল বাংলাদেশের

এ ছাড়াও ক্ষতিগ্রস্ত ৭টি লেভেল ক্রসিং। কৃষ্ণনগর- লালগোলা অংশে ক্ষতিগ্রস্ত লালগোলা, কৃষ্ণপুর, সরগাছি, বেলডাঙা, রেজিনগর স্টেশন। শিয়ালদহ বজবজ সেকশনে ক্ষতিগ্রস্ত আকড়া স্টেশন। শিয়ালদহ-ডায়মন্ডহারবার সেকশনে ক্ষতিগ্রস্ত দেউলা স্টেশন। নলহাটি-আজিমগঞ্জ সেকশনে ক্ষতিগ্রস্ত বারালা স্টেশন। তাণ্ডবের জেরে প্রায় ১৫টি স্টেশন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

উল্লেখ্য, এ দিনও সকাল থেকে বিভিন্ন জায়গায় রেল ও সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভকারীরা। বিভিন্ন জায়গায় টায়ার জ্বালিয়ে যান চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়। শিয়ালদহ দক্ষিণ শাখায় রেল লাইনে কলাপাতা ফেলে রেল অবরোধ করা হয়।

তবে বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে অনেক জায়গা থেকেই অবরোধ তুলে দিতে সক্ষমও হয় পুলিশ। কিন্তু গত কয়েকদিন যে ভাবে তাণ্ডব চলেছে, তাতে অতিরিক্ত বাহিনী ছাড়া পরিস্থিতি মোকাবিলা করা কার্যত অসম্ভবই হয়ে পড়ছিল বলে জানাচ্ছে রেল।

------------------------------------------------
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.