বিক্ষোভ অব্যাহত বাংলায়!

0
ছবি: ইন্ডিয়া টুডে থেকে

ওয়েবডেস্ক: নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে পশ্চিমবঙ্গের জেলায় জেলায় বিক্ষোভ অব্যাহত রবিবারেও। বেশ কয়েকটি জায়গায় রাস্তা অবরোধ করা হয়। পাশাপাশি ভাঙচুর চালানো এবং আগুন লাগানো হয় রেল স্টেশনেও।

রবিবার নদিয়া, বীরভূম, উত্তর ২৪ পরগনা এবং হাওড়া জেলা থেকে বিক্ষিপ্ত সহিংসতার ঘটনার খবর সব থেকে বেশি পাওয়া গিয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

এক নজরে কয়েকটি ঘটনা:

উত্তর ২৪ পরগনা এবং নদিয়া জেলার আমডাঙা ও কল্যাণী অঞ্চলে আন্দোলনকারীরা বিভিন্ন সড়ক অবরোধ করে এবং রাস্তায় কাঠের গুঁড়ি ফেলে আগুন ধরিয়ে দেয়।

উত্তর ২৪ পরগনার দেগঙ্গা এলাকায় দোকানপাটে ভাঙচুর চলে ও টায়ার পোড়ানো হয়।

নদিয়ায় বিক্ষোভকারীরা কল্যাণী এক্সপ্রেস হাইওয়ে অবরোধ করেছিল, সেখানে সংশোধিত আইনের প্রতিলিপি জ্বালানো হয়।

মালদহের ভালুকা রোড স্টেশনে ভাঙচুর চালানোর পাশাপাশি আগুন লাগানো হয়।

দক্ষিণ ২৪ পরগনার আক্রা স্টেশনে ভাঙচুর চলে। ২টি ট্রেনে ভাঙচুর এবং স্টেশনে আগুন লাগানো হয়। টিকিট কাউন্টার তছনছ করে টিকিটে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়।

বৈষ্ণবনগর টোলপ্লাজা চেষ্টা করে উত্তেজিত বিক্ষোভকারীরা। পুলিশ বিক্ষোভকারীদের উপর লাঠি চালায়।

মুর্শিদাবাদের মণিগ্রাম স্টেশনে ভাঙচুর চালানো হয়।

ছবি: আইএএনএস থেকে

গত শুক্রবার থেকে সমানে চলছে প্রতিবাদের নামে জেলায় জেলায় তাণ্ডব। ভাঙচুর, আগুন, সড়ক এবং রেলপথে অবরোধের জেরে পথে বেরিয়ে নাজেহাল সাধারণ মানুষ। এ দিনেও বেশ কয়েকটি জায়গায় বিক্ষোভকারীদের হাতে পুলিশের আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গিয়েছে।

এ দিনই রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তের হিংসাত্মক বিক্ষোভ রুখতে ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধের নির্দেশ দেয় রাজ্য প্রশাসন।

তৃণমূলের মহাসচিব ও রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় প্রতিবাদকারীদের উদ্দেশে শান্তির আবেদন জানান। তিনি আশ্বাস দিয়ে বলেছেন, এই সংশোধিত আইনটি রাজ্যে প্রয়োগ করা হবে না। তাঁর কথায়, “আমরা সবার কাছে শৃঙ্খলা ও শান্তি বজায় রাখার জন্য আবেদন করব। আমরা আপনাদের আশ্বস্ত করতে পারি যে বাংলায় এই আইন প্রয়োগ করা হবে না”।

------------------------------------------------
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.