পাচন-শলাকার পর এ বার নতুন নিদান অনুব্রত মণ্ডলের

0

আউশগ্রাম (পূর্ব বর্ধমান): পাচন-শলাকার পর এ বার নতুন নিদান দিলেন বীরভূমের তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। এ বার ‘গোরুর মতো পেটানোর’ নিদান দিলেন তিনি।

বৃহস্পতিবার আউশগ্রামের সভা থেকে অনুব্রতর হুঁশিয়ারি, “বিজেপির কথা শুনে কেউ ঝামেলা করবেন না। যদি কেউ খামোখা ঝামেলা করতে আসে, তা হলে তাদের গোরু পেটানোর মতো পেটান।”

Loading videos...

বেফাঁস মন্তব্য করে ফেলেছেন, সেটা কিছুক্ষণের মধ্যেই বুঝে যান অনুব্রত। আর সে কারণে তিনি একটু পরেই বলেন, “কেউ নিজের হাতে আইন তুলে নেবেন না। ঝামেলা করলে পুলিশকে জানান। বিডিওকে জানান।”

এ দিনের ওই সভা থেকে বিজেপির বিরুদ্ধে তোপ দাগেন অনুব্রত। দিল্লির অশান্তি নিয়েও বলেন তিনি। তাঁর কথায়, ”দিল্লিতে হিংসায় এত মানুষের প্রাণ গেল অথচ দেশের প্রধানমন্ত্রী কোনো দুঃখপ্রকাশ করে বিবৃতি দিলেন না।” রাজ্যে এনআরসি হতে দেবেন না বলে সাফ জানান তিনি। এর পরেই সভায় আসা মানুষদের ‘গোরুর মতো পেটানোর’ নিদান দেন তিনি।

আরও পড়ুন দক্ষিণবঙ্গের বাকি জেলা পেলেও এখনও মরশুমের প্রথম কালবৈশাখীর অপেক্ষায় কলকাতা

এর পরেই অবশ্য তীব্র বিতর্ক শুরু হয়। অনুব্রতর এই মন্তব্যকে কেন্দ্র করে তাঁর বিরুদ্ধে সুর চড়াতে শুরু করেন বিরোধীরা। যদিও তিনি যে দমবার পাত্র নন, সেটা আগে একাধিক বার বুঝিয়ে দিয়েছেন তিনি।

গত বছর লোকসভা ভোটের আবহে কখনও ‘গুড়-বাতাসা’, কখনও ‘চড়াম চড়াম ঢাক বাজানো’, কখনও ‘নকুলদানা’ কখনও ‘পাচন তত্ত্ব’ বা কখনও ‘শলাকা-তত্ত্বের’ কথা বলে ঝড় তুলেছিলেন অনুব্রত। তবে দু’ বছর আগে পঞ্চায়েত ভোটের সময়ে তাঁর ‘রাস্তায় উন্নয়ন দাঁড় করিয়ে রাখা’ মন্তব্যটি সব থেকে বেশি নজর কেড়েছিল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.