বিধায়কপদে ইস্তফা দিয়েই সাংসদ সুনীল মণ্ডলের বাড়িতে শুভেন্দু অধিকারী, বৈঠকে ‘বিদ্রোহী’ তৃণমূল নেতৃত্ব

0

খবর অনলাইন ডেস্ক: ‘বেসুরো’ বর্ধমান পূর্বের তৃণমূল সাংসদ সুনীল মণ্ডলের বাড়িতে গেলেন শুভেন্দু অধিকারী। বুধবার বিধানসভায় গিয়ে বিধায়কপদ থেকে ইস্তফার দিয়েই তিনি সটান পৌঁছে যান সাংসদের কাঁকসার বাড়িতে। সেখানে বৈঠকে অংশ নিয়েছেন তৃণমূলের একাধিক ‘বিদ্রোহী’ নেতা।

সাংসদের বাড়িতে শুভেন্দু ছাড়াও রয়েছেন গুসকরার বিদায়ী কাউন্সিলার নিত্যানন্দ চট্টোপাধ্যায়, পূর্ব বর্ধমানের জেলা কর্মাধ্যক্ষ নরুল হাসান, আসানসোল পুরসভার প্রশাসকমণ্ডলীর চেয়ারম্যান এবং পশ্চিম বর্ধমানের তৃণমূল জেলা সভাপতি জিতেন্দ্র তিওয়ারি, কালনার তৃণমূল বিধায়ক বিশ্বজিৎ কুণ্ডু, দক্ষিণবঙ্গ রাজ্য পরিবহণ নিগমের চেয়ারম্যান দীপ্তাংশু চৌধুরী প্রমুখ।

Loading videos...

সুনীল মণ্ডল এর আগেই জানিয়েছেন, এ ভাবে চললে দলে থাকা মুশকিল! দলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়ে সাংসদ বলেছিলেন, “আমার জেলা সভাপতি আমি সাংসদ হওয়ার পর আমায় একটা মিটিংয়েও ডাকেননি। এমন হলে রাজনীতি করব না। বাড়িতে বসে যাব”।

তিনি বলেন, “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, নতুন-পুরনো মিলে কাজ করতে। তা আর হচ্ছে কোথায়। আসলে একাংশ চাইছে দলটা উঠে যাক”। স্বাভাবিক ভাবেই তাঁকে নিয়ে জল্পনা ছড়ায়। এরই মধ্যে শুভেন্দুর সঙ্গে তাঁর পোস্টার নতুন করে চাঞ্চল্য ছড়ায়।

অন্যদিকে জিতেন্দ্রও ক্ষোভ উগরে দিয়েছিলেন পুর ও নগরোন্নয়নমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিমের বিরুদ্ধে। এ দিন জানা যায়, উত্তরবঙ্গ থেকে তাঁকে ফোন করেছেন দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আগামী ১৮ ডিসেম্বর তাঁদের বৈঠকের কথা।

এ দিকে বিধায়কপদ থেকে ইস্তফা দিয়েই রাজ্যপালের হস্তক্ষেপ চেয়ে চিঠি দিয়েছেন শুভেন্দু। তিনি লিখেছেন, “আমি স্বেচ্ছায় মন্ত্রিত্ব ত্যাগ করেছি। কিন্তু তার পর থেকেই আমাকে এবং আমার অনুগামীদের মিথ্যে মামলায় ফাঁসানোর চেষ্টা চলছে”। চিঠি পেয়ে রাজ্যপাল জানিয়েছেন, “প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেব”।

ঘটনায় প্রকাশ, সম্প্রতি মাতৃবিযোগ হয়েছে সুনীলের। শুভেন্দুর ঘনিষ্ঠ মহলের দাবি, সেই কারণেই তাঁকে সমবেদনা জানাতেই তাঁর বাড়িতে গিয়েছিলেন শুভেন্দু।

কিন্তু শুভেন্দুর পিছু পিছু সুনীলের বাড়িতে একের পর এক বেসুরো তৃণমূল বিধায়ক এবং পদাধিকারীর প্রবেশ, নতুন সমীকরণের ইঙ্গিত দেয় বইকি!

আরও পড়তে পারেন: বিধায়কপদে ইস্তফা শুভেন্দু অধিকারীর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.