ভার্চুয়াল মৎস্য খামার ভ্রমণ ও সরাসরি অনলাইন প্রশিক্ষণ, রাজ্যের মধ্যে এই প্রথম হলদিয়ায়

0
online tour in Fisheries
ভার্চুয়াল মৎস্য খামার ভ্রমণ ও সরাসরি অনলাইন প্রশিক্ষণ

নিজস্ব প্রতিনিধি, হলদিয়া: পূর্ব মেদিনীপুর জেলার হলদিয়া ব্লকে এক আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহারে মৎস্যচাষের নতুন দিশা ব্লক প্রশাসনের।
করোনা অতিমারির আবহে সব রকমের প্রতিবন্ধকতা কাটিয়ে হলদিয়া ব্লক মৎস্য বিভাগের এক অভিনব উদ্যোগ “ভার্চুয়াল মৎস্য খামার ভ্রমণ ও সরাসরি অনলাইন প্রশিক্ষণ”।

ভার্চুয়াল প্রশিক্ষণের মাধ্যমে মাছ চাষের বিভিন্ন বিষিয়ে একেবারে মাঠে নেমে সরাসরি মাছ চাষির মৎস্য খামার থেকে পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। হলদিয়ার আধুনিক মাছ চাষের বাস্তবিক দিকগুলো আলোচনা করছেন হলদিয়ার মৎস্যচাষ সম্প্রসারণ আধিকারিক সুমনকুমার সাহু এবং সঙ্গে অভিজ্ঞ মাছ চাষিরাও চাষের অভিজ্ঞতা তুলে ধরছেন।

Loading videos...

সম্পূর্ণ ভাবে প্রযুক্তি নির্ভর এই প্রয়াস। সম্পূর্ণ বিষয়টি পরিচালনা করছেন হলদিয়া ব্লকের মৎস্যচাষ সম্প্রসারণ। সেই মতোই ৩ ও ৪ জুন দু’দিনের এমনই এক অনলাইনে মৎস্য খামার থেকে সরাসরি ফিশারি ফার্মের কাজকর্ম-সহ মাছ চাষের বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা চলছে। দু’দিনের এই কর্মসূচিতে কলকাতার নেওটিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের মৎস্যবিজ্ঞান অনুষদের ছাত্রদের হলদিয়া ব্লকের মাছের খামার ও মাছের হ্যাচারির কাজকর্ম অনলাইনে দেখান হলদিয়ার মৎস্যচাষ সম্প্রসারণ আধিকারিক।

online tour in Fisheries 2
[মৎস্যখামারে চলছে কাজ]

এই বিষয়ে হলদিয়া ব্লকের সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারিক সঞ্জয় দাস বলেন, এই করোনা অতিমারি এবং লকডাউনের সময়ে মাছ চাষে অনলাইনে ট্রেনিং ব্যবস্থা করা হচ্ছে। আগামীতে যদি কোনো মৎস্যচাষি বা ছাত্র-ছাত্রীরা আগ্রহী হলে ভবিষ্যতে এ ধরনের ভার্চুয়াল প্রশিক্ষণ ব্যবস্থা আরও করা হবে।

হলদিয়া ব্লকের মৎস্যচাষ আধিকারিক সুমনকুমার সাহু বলেন, “গ্রাউন্ড লেভেল থেকে মাছ চাষিদের চাষের অভিজ্ঞতা-সহ চাষের প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে, যাতে এই করোনা পরিস্থিতিতেও চাষের প্রযুক্তিগত দিক সম্প্রসারণে কোনো বাধা থকেবে না”।

আশা করা হচ্ছে, করোনা-উত্তর নতুন স্বাভাবিক পরিস্থিতেও মাছ চাষের সম্প্রসারণ ঘটবে। হলদিয়া ব্লকের অভিনব এই কর্মসূচিতে হলদিয়ার মাছ চাষিরা যেমন উদ্দীপিত হচ্ছেন, তেমনই অনলাইনের মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা ঘরে বসে মৎস্য খামারের ভার্চুয়াল ট্যুর করতে পারছেন। একই সঙ্গে হচ্ছে মতের আদান-প্রদান ও প্রশিক্ষণ।

হলদিয়ার মৎস্য কর্মাধ্যক্ষ গোকুল মাজি জানান, “ডেকান রুই, পেংবা, আমুর, আমেরিকান পমফ্রেট প্রভৃতি মাছ যেমন রাজ্যের মধ্যে প্রথম হলদিয়ায় হয়েছে, তেমনই এ রকম ভার্চুয়াল মৎস্য খামার ভ্রমণ ও সরাসরি প্রশিক্ষণ রাজ্যে প্রথম। যা হলদিয়ার মাছ চাষের অগ্রগতিতে আরও শ্রীবৃদ্ধি করবে”।

আরও পড়তে পারেন: খাদ্যমন্ত্রী রথীন ঘোষের উদ্যোগে রেশন, কেরোসিন, এলপিজি ডিলার এবং কর্মীদের টিকাকরণ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.