পুরবোর্ড গঠন নিয়ে তুলকালাম, ১২ ঘণ্টার ঝালদা বন্‌ধের ডাক কংগ্রেসের

0

পুরুলিয়া: পুরবোর্ড গঠন নিয়ে ধুন্ধুমার পরিস্থিতি ঝালদায়। মঙ্গলবার তপন কান্দুর হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে বের হওয়া মৌন মিছিলে হামলার অভিযোগ তুলেছে কংগ্রেস। নিহত কাউন্সিলর তপন কান্দুর স্ত্রী পূর্ণিমা কান্দুকে নিগ্রহ করা হয়েছে বলে অভিযোগ। প্রতিবাদে বুধবার ১২ ঘণ্টার বন্‌ধের ডাক দিল কংগ্রেস।

এ দিন পুরসভায় বোর্ড গঠনকে কেন্দ্র করে কংগ্রেসের বিক্ষোভ মিছিল আটকে দেয় পুলিশ। ত্রিশঙ্কু পুরসভা দখলের প্রতিবাদে ‘কালা দিবস’ পালনের ডাক দিয়েছিল কংগ্রেস। “তপন কান্দুকে হত্যা করে বোর্ড গঠনের ঘৃণ্য প্রচেষ্টার প্রতিবাদে” এই কর্মসূচি নিয়েছিল কংগ্রেস। মিছিল এগোতে শুরু করলেই পুলিশের সঙ্গে ধ্বস্তাধস্তি বেঁধে যায় মিছিলকারীদের। পুলিশের ব্যারিকেড ভেঙে দেন কংগ্রেস কর্মীরা। পরে পুরসভার ভিতরেও ধুন্ধুমার পরিস্থিতি তৈরি হয়। অভিযোগ, ভাঙচুর করা হয় চেয়ার।

অন্য দিকে, পুলিশের দাবি, আশান্তির আশংকা করে আগে থেকেই ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছিল। সোমবার সন্ধেয় মাইকিং করে জানানোও হয়েছিল। পুরসভা থেকে ২০০ মিটার দূরে একটি ব্যারিকেড দেয় পুলিশ। পরে আরও একটি ব্যারিকেড খাড়া করা হয়। মিছিলে ছিলেন নিহত তপন কান্দুর স্ত্রী পূর্ণিমা কান্দু। তাঁরা পুলিশের ব্যারিকেড ভাঙার চেষ্টা করলে তুমুল উত্তেজনা সৃষ্টি হয়।

এই ঘটনার পর নিহত কাউন্সিলর তপন কান্দুর স্ত্রী পূর্ণিমা কান্দু ও অন্যাদের উপর পুলিশি হেনস্থার প্রতিবাদে বুধবার ১২ ঘণ্টার বন্‌ধের ডাক দেয় কংগ্রেস।

এ দিন পুলিশের সঙ্গে বাকবিতণ্ডায় জড়়িয়ে পড়েন কংগ্রেস নেতা নেপাল মাহাত। তিনি পুলিশকে বলেন, “কাউকে বাধা দেওয়া হয়নি। তা হলে পুলিশ কেন বাধা দিচ্ছে। আপনাদের উদ্দেশ্য কী? আমাদের আরও যে সব নেতা রয়েছে তাদেরও মার্ডার করান”।

আরও পড়তে পারেন:

এসএসসি নিয়োগ মামলায় শুধু জিজ্ঞাসাবাদ নয়, হেফাজতেও নিতে পারবে সিবিআই, বেনজির নির্দেশ হাইকোর্টের

তিন বছরের মধ্যে কার্বন নিঃসরণে রাশ টানতে না পারলে ভয়ংকর বিপর্যয়, রাষ্ট্রপুঞ্জের রিপোর্টে উদ্বেগ

আটশোর নীচে দৈনিক সংক্রমণ দেশে, তবে বাড়ল মৃত্যু

১৫ দিনে ১৩ বার বৃদ্ধি, শতরান হাঁকানোর কাছাকাছি চলে গেল ডিজেলও

রাহুল গান্ধীর নামে নিজের সমস্ত সম্পত্তি লিখে দিলেন উত্তরাখণ্ডের বৃদ্ধা

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন