খবর অনলাইন ডেস্ক: বৃহস্পতিবার পুরুলিয়ার সভা থেকে ফের খেলা হবে স্লোগান নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে (Mamata Banerjee) বিঁধলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi)। বারবার সুর টেনে ‘দিদি’ বলে টেনে আনলেন ‘খেলা হবে’ স্লোগান।

এ দিন সভায় মোদী বলেন, “আজ বাংলার মানুষ বলছে, দিদি অত্যাচার অনেক করেছেন। ভয় দেখানোই আপনার অস্ত্র। এ বার রুখে দাঁড়াবে বাংলার মানুষ। মা দুর্গার আশীর্বাদে আপনাকে পরাস্ত করবে। মানুষের এই উৎসাহ-ই বলে দিচ্ছে, তৃণমূলের পরাজয় নিশ্চিত”।

Loading videos...

এক নিশ্বাসেই তিনি বলে চললেন, ‘‘দিদি বলেন, খেলা হবে। বিজেপি বলে বিকাশ হবে। বিজেপি বলে শিক্ষা হবে। মহিলাদের উত্থান হবে। বিজেপি বলে যুবশক্তির সম্পূর্ণ বিকাশ হবে। চাকরি হবে। পরিষ্কার জল হবে। গ্রামে গ্রামে হাসপাতাল হবে। স্কুল হবে’’।

তাঁর কথায়, “বাংলার মানুষের জন্য দিনরাত এক করে কাজের সংকল্প থাকলে দিদি খেলা করা যায় না। আর সে জন্যই দিদি বলেন, খেলা হবে। দিদি বাংলার ভাইবোনেদের সঙ্গে ১০ বছর খেলেছেন। এ বার খেলা শেষ হবে। আর বিকাশ আরম্ভ হবে”।

গত সপ্তাহে নন্দীগ্রামে প্রচারে গিয়ে পায়ে আঘাত পেয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এ দিনের সভা থেকে মোদী কটাক্ষের সুরে বলেন, “দিদির চোট লেগেছে। আমরাও চিন্তা হয়। ভগবানের কাছে প্রার্থনা করি, আপনি দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠুন”।

এ দিনের বক্তৃতায় আগাগোড়া প্রধানমন্ত্রী আক্রমণ করেন মমতাকে। বলেন, “দলিত, আদিবাসী, বনবাসীদের কখনও নিজের ভাবেননি মমতা। করোনাকালে কেন্দ্রের দেওয়া সস্তার চালও লুঠ করেছে দিদির লোকেরা। বাংলায় অনুপ্রেবেশের পিছনেও তোষণের রাজনীতি রয়েছে। ১০ বছর ধরে বাংলায় তোষণের রাজনীতি চলছে”।

কেন্দ্র এবং রাজ্যে একই দলের সরকারের পক্ষে সওয়াল করে মোদী বলেন, “বাংলায় ডবল ইঞ্জিন সরকার তৈরি হলে সব সমস্যার সমাধান হবে। পর্যটন শিল্প, হস্তশিল্পের বিকাশের সম্ভাবনাকেগুলিকে গুরুত্ব দেওয়া হবে”।

আরও পড়তে পারেন: ‘একটা বুথে হাজার ভোটার, হাজার জনই আমার সঙ্গে’, জনসংযোগে বেরিয়ে বললেন শুভেন্দু অধিকারী

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.