অবশেষে রোদ উঠল, তবে কনকনে শীত পড়ার আগে ফের একবার বৃষ্টির সম্ভাবনা দক্ষিণবঙ্গে

0

কলকাতা: মেঘ এবং কুয়াশার আস্তরণ সরিয়ে অবশেষে রোদ উঠল কলকাতায়। মঙ্গলবার সকাল ৮টার কিছু পরে রোদের মুখ দেখতে পান শহরবাসী। ধীরে ধীরে দক্ষিণবঙ্গের অন্য অঞ্চলেও রোদ বেরিয়ে যাবে। যদিও শীত এখনই পড়বে না। বরং কনকনে শীত পড়ার আগে ফের একবার বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে দক্ষিণবঙ্গে। তবে এই বৃষ্টি খুব একটা ভোগান্তির হবে না।

বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে বৃহস্পতিবার। ওই দিন দুপুর থেকে রাতের মধ্যে বৃষ্টি হতে পারে কলকাতা এবং দক্ষিণবঙ্গের অন্যান্য অংশে। এর পেছনে অবশ্য ঘূর্ণিঝড় ‘জওয়াদ’-এর ছেড়ে যাওয়া জলীয় বাষ্প কিছুটা দায়ী।

এই মুহূর্তে উত্তর ভারতে একটি বেশ শক্তিশালী পশ্চিমী ঝঞ্ঝা রয়েছে। সেই ঝঞ্ঝাটির প্রভাবে উত্তুরে হাওয়া এমনিতেই আটকে রয়েছে। সেই সুযোগে দক্ষিণবঙ্গের বায়ুমণ্ডলে জলীয় বাষ্প থেকে যাবে আগামী আরও দু’দিন। এর পাশাপাশি পূর্ব উপকূল জুড়ে একটি অক্ষরেখা তৈরি হয়ে গিয়েছে ঘূর্ণিঝড় ‘জওয়াদ’-এর প্রভাবে। এমনই জানিয়েছে বেসরকারি আবহাওয়া ওয়েদার আল্টিমা।

এই অক্ষরেখা থেকেই বৃষ্টি হতে পারে বৃহস্পতিবার। তবে ভারী বর্ষণের সম্ভাবনা বিশেষ নেই। আর বৃষ্টি হলেও সেটা এক বেলার ব্যাপার। দুপুরের পর শুরু হয়ে রাতেই শেষ হয়ে যাবে। ওই বৃষ্টিটাই কনকনে শীতের পথ প্রশস্ত করে দেবে দক্ষিণবঙ্গে।

শুক্রবার, ১০ ডিসেম্বর থেকে পশ্চিমী ঝঞ্ঝাও বিদায় নেবে। সেই সঙ্গে পরিষ্কার হয়ে যাবে দক্ষিণবঙ্গের আকাশ। তার পরেই হুহু করে উত্তুরে হাওয়া ঢুকে পড়বে দক্ষিণবঙ্গে। এক ধাক্কায় কমতে শুরু করবে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা। পূর্বাভাস যা দেখা যাচ্ছে, তাতে এ বার পৌষের আগেই হাড়কাঁপানো ঠান্ডা পড়তে পারে গোটা দক্ষিণবঙ্গে।

আরও পড়তে পারেন:

ভারতে করোনার আঁতুড়ঘর হয়ে ওঠা রাজ্যে সোমবার সংক্রমণ ছিল ২০২০ সালের ২৬ এপ্রিলের পর সব থেকে কম

তৃণমূলের সঙ্গে জোট বাঁধল গোয়ার প্রথম শাসকদল

সোমবারের রীতি মেনেই বাড়ল সংক্রমণের হার, তবে নতুন সংক্রমণ পাঁচশোর কম

মে মাসে ৬-৮ দফায় বকেয়া পুরভোট, কলকাতা হাইকোর্টে জানাল নির্বাচন কমিশন

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন