বৃষ্টির দাপট কিছুটা কমল কলকাতায়, বুধবার থেকে দেখা মিলতে পারে সূর্যের

0
650

কলকাতা: শহর থেকে নিম্নচাপ কিছুটা দূরে সরে যাওয়ায় বৃষ্টির দাপট কমেছে কলকাতায়। বুধবার থেকে শহরের আকাশ মেঘমুক্ত হওয়ার একটা সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে।

গত সপ্তাহের মঙ্গলবার শেষ বার সূর্যের মুখ দেখেছিল কলকাতা। তার পর সেই যে মেঘের আড়ালে মুখ লুখিয়েছে সূর্য, তার আর বেরোনোর নামগন্ধই নেই। অবিরাম বৃষ্টির সঙ্গে জল জমার সমস্যার জন্য শহরবাসীর নাজেহাল অবস্থা তো ছিলই, তার ওপর আরও সমস্যা বাড়িয়েছে এই স্যাঁতস্যাঁতে আবহাওয়া। বৃষ্টিপ্রত্যাশী মানুষেরও এখন প্রার্থনা, একটু দর্শন দিন সূর্যদেব।

এমনিতে শুক্র, শনি এবং রবিবারের তুলনায় সোমবার অনেক কম বৃষ্টি হয়েছে কলকাতায়। মাত্র ২৮ মিমি, গত তিন দিনের তুলনায় যা নগণ্য। তবে মঙ্গলবার সকাল ন’টা থেকে দশটা পর্যন্ত আরও এক দফায় ঝেঁপে বৃষ্টি হয়। তার পর বৃষ্টি বন্ধ হলেও, মঙ্গলবার সারা দিন বিক্ষিপ্ত ভাবে বৃষ্টি চলবে শহর জুড়ে। আবহাওয়া দফতরের আশা, নিম্নচাপের প্রভাব শহরের ওপর থেকে কাটতে শুরু করলে ধীরে ধীরে নীল আকাশ দেখা যাবে। তাই বুধবার থেকে সূর্যের দেখা মিলতে পারে বলে আশা করছেন আবহাওয়া বিশেষজ্ঞরা।

এ দিকে কলকাতায় বৃষ্টি কমলেও, পড়শি ঝাড়খণ্ড এবং পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলিতে বৃষ্টির চূড়ান্ত দাপট অব্যাহত। সোমবারও রেকর্ডভাঙা বৃষ্টি হয়েছে বাঁকুড়ায় (২২৬মিমি)। বৃষ্টির খাতায় এ বার নাম লিখিয়েছে পুরুলিয়াও (৯৮ মিমি)। রবিবারের ২৩০ মিমি বৃষ্টির পর সোমবার জামশেদপুরে বৃষ্টির পরিমাণ ১০৬ মিমি। রাঁচিতে বৃষ্টি হয়েছে ৯৯ মিমি।

এখানেই চিন্তার ভাঁজ ক্রমশ বাড়ছে রাজ্যের। দামোদর অববাহিকা অঞ্চলে বৃষ্টি চলতে থাকায় চাপ বাড়ছে জলাধারগুলির ওপর। সে জন্য বাড়তি জল ছাড়ছে জলাধারগুলি। কলকাতায় আবহাওয়া পরিষ্কার হওয়া শুরু করলেও, আগামী কয়েক দিন পশ্চিমাঞ্চলের জেলা এবং ঝাড়খণ্ডে এই লাগাতার বর্ষণ জারি থাকবে বলে জানিয়েছে বিশেষজ্ঞ মহল। এই পরিস্থিতিতে দক্ষিণবঙ্গে বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতির আশঙ্কা করা হচ্ছে।

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here