কলকাতা: জুনের শেষের ক’টা দিন কিছুটা ঝিমিয়ে পড়লেও, জুলাইয়ের শুরুতে বেশ কিছুটা গা ঝাড়া দিয়েছে বর্ষা। কমবেশি বৃষ্টি হচ্ছে রোজই। আবহাওয়া বিশেষজ্ঞদের মতে, আগামী অন্তত এক সপ্তাহ এ রকম আবহাওয়াই বজায় থাকবে। কলকাতায় দু’এক পশলা ভারী বৃষ্টিরও সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানানো হয়েছে।

জুলাইয়ের প্রথম দু’দিন বেশ ভালোই বৃষ্টি দেখেছে কলকাতা। রবিবার সকালে তো প্রবল বৃষ্টির ফলে উত্তর কলকাতার বিস্তীর্ণ অংশ জলমগ্ন হয়ে পড়ে। যদিও দক্ষিণ কলকাতা তখন শুকনোই ছিল। তবে রবিবার রাতে দক্ষিণ কলকাতার কিছু অংশেও বৃষ্টি হয়েছে। আবহাওয়া বিশেষজ্ঞদের মতে, এই বৃষ্টি বর্ষার স্বাভাবিক বৃষ্টি।

শুধু কলকাতাই নয়, জোরদার বৃষ্টি হচ্ছে দক্ষিণবঙ্গে বিভিন্ন জেলায়। গত শনিবার ভারী বৃষ্টি হয়েছিল দক্ষিণ ২৪ পরগণা জেলার কিছু অংশে, রবিবার সুফল পেল বীরভূম জেলা। সেখানেই বিভিন্ন জায়গাতেই ভারী বৃষ্টি হয়েছে। ৩০ থেকে ৪০ মিলিমিটারের মতো বৃষ্টি হচ্ছে দক্ষিণবঙ্গের সব জেলাতেই।

দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টি-ভাগ্য সুপ্রসন্ন হওয়ার পেছনে রয়েছে দুটি ঘূর্ণাবর্ত এবং মৌসুমী অক্ষরেখা। পশ্চিমবঙ্গ এবং লাগোয়া ঝাড়খণ্ডে রয়েছে একটি ঘূর্ণাবর্ত, অপরটি রয়েছে বঙ্গোপসাগরে। এর সঙ্গে যোগ হয়েছে মৌসুমী অক্ষরেখা। এর ফলেই এই বৃষ্টি চলছে দক্ষিণবঙ্গে। আগামী কয়েক দিন এই আবহাওয়ার খুব একটা কোনো পরিবর্তনের সম্ভাবনা দেখছেন না বেসরকারি আবহাওয়াসংস্থা ওয়েদার আল্টিমার কর্ণধার আবহাওয়াবিদ রবীন্দ্র গোয়েঙ্কা। তাঁর কথায়, “মৌসুমী অক্ষরেখা এবং ঘূর্ণাবর্তের পাশাপাশি গোটা দক্ষিণবঙ্গে জুড়ে একটি নিম্নচাপ বলয় রয়েছে। এর ফলে আগামী কয়েক দিন বৃষ্টির পরিমাণ আরও বাড়তে পারে।”

দক্ষিণবঙ্গের পাশপাশি উত্তরবঙ্গেও বর্ষা কিছুটা রূপ পাল্টেছে। জুনের শেষে দিক থেকে উত্তরবঙ্গেও ভালো বৃষ্টি হচ্ছে। আগামী কয়েক দিনে উত্তরবঙ্গে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি সতর্কতা জারি করেছে আবহাওয়া দফতর।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here