দক্ষিণবঙ্গে আশঙ্কা খরার, ইঙ্গিত বৃহত্তম বেসরকারি আবহাওয়া সংস্থার

0
রাজ্য কি এবার খরার সম্মুখীন হবে।

ওয়েবডেস্ক: ‘এল নিনো’-এর দাপটে পশ্চিমবঙ্গ-সহ ভারতের একটা বড়ো অংশে এ বার দুর্বল বর্ষার ইঙ্গিত দিল সব থেকে বড়ো বেসরকারি আবহাওয়া সংস্থা স্কাইমেট। এর ফলে চাষাবাদ ব্যাপক ক্ষতির মুখে পড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। আশঙ্কা রয়েছে খরারও।

স্কাইমেটের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, এ বার সারা ভারতে বর্ষার গড় বৃষ্টিপাত, স্বাভাবিকের থেকে অন্তত সাত শতাংশ কম হতে পারে। বর্ষার চার মাসের মধ্যে জুন এবং জুলাইতে বৃষ্টির পরিমাণ সব থেকে কম থাকবে, তবে শেষের দু’মাস অর্থাৎ আগস্ট এবং সেপ্টেম্বরে ভালো বৃষ্টি হতে পারে।

স্কাইমেট জানাচ্ছে, জুনে গড় বৃষ্টিপাত স্বাভাবিকের থেকে ২৩ শতাংশ এবং জুলাইয়ে ৯ শতাংশ কম হতে পারে। তবে আগস্ট থেকে সেপ্টেম্বরে যথাক্রমে ২ এবং ১ শতাংশ বেশি হতে পারে বৃষ্টি। মধ্য এবং পূর্ব ভারতের একটা বড়ো অংশে বৃষ্টি এ বার স্বাভাবিকের থেকে কম হবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন তৈরি হচ্ছে ‘এল নিনো,’ বর্ষায় অশনি সঙ্কেত?

স্কাইমেটের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, পশ্চিমবঙ্গের উপকূলবর্তী অঞ্চল এবং পশ্চিমাঞ্চলে বৃষ্টি বেশ কম হওয়ার আশঙ্কা। পাশাপাশি বিহার, ঝাড়খণ্ড, মধ্যপ্রদেশ, কর্নাটক এবং মহারাষ্ট্রের কিছু অঞ্চলেও বৃষ্টির পরিমাণ ব্যাপক ভাবে কম হতে পারে। তবে আগস্ট এবং সেপ্টেম্বরে বৃষ্টির ছবিটা কিছুটা উন্নত হতে পারে রাজ্যে।

উল্লেখ্য, গত বছরও স্বাভাবিকের থেকে কুড়ি শতাংশ কম ছিল বৃষ্টির পরিমাণ। এ বারও এমনটা হলে রাজ্যের পক্ষে সেটা যে ভালো ব্যাপার নয় তা বলাই বাহুল্য। তবে এরই মধ্যে আশার কথা বলছে ইতিহাস। যেখানে দেখা যাচ্ছে ‘এল নিনো’-এর সময়ে সারা ভারতে খরার মতো পরিস্থিতি সৃষ্টি হলেও পশ্চিমবঙ্গ তথা সমগ্র পূর্ব ভারত ভালোই বৃষ্টি পায়।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here