রাজীব কুমার।

কলকাতা: ফের সিবিআইয়ের মুখোমুখি হলেন কলকাতার প্রাক্তন নগরপাল রাজীব কুমার। শুক্রবার তাঁকে সিজেও কমপ্লেক্সে তলব করা হয়েছিল। নির্ধারিত সময় মতোই সেখানে হাজির হন রাজীব। এ দিন সকাল ১১টা থেকে তাঁর জেরাপর্ব শুরু হয়েছে।

সিবিআই সূত্রে খবর, সারদা কাণ্ড ছাড়াও তাঁকে অন্যান্য চিটফান্ড মামলাতেও জিজ্ঞাসাবাদ করা হতে পারে। রেকর্ড করা হবে বয়ানও। উল্লেখ্য, ২০১৩ সালে সারদা তদন্তের জন্য রাজ্য সরকার গঠিত বিশেষ তদন্তকারী দলের (সিট) গুরুত্বপূর্ণ পদে ছিলেন রাজীব। সেই সময়ে তদন্তে কী কী নথি উদ্ধার হয়েছিল তা জানতে চায় সিবিআই।

কিছুদিন আগে ট্রাকভরতি সারদা নথি সিবিআইয়ের কাছে জমা হলেও এখনও কেন্দ্রীয় গোয়েন্দাদের হাতে আসেনি সারদার সেই লাল ডায়েরি এবং পেনড্রাইভ, যা এই তদন্তের ক্ষেত্রে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠতে পারে। রাজীব কুমার এই বিষয়ে কী জানেন, সেটাও জানতে চাওয়া হবে।

আরও পড়ুন অস্ট্রেলিয়া ম্যাচের আগে ভারতকে বিশেষ ব্যাপারে সতর্ক করলেন সচিন

সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে রাজীব কুমার গ্রেফতারি এড়াতে পারলেও, শিলংয়ে ৪০ ঘণ্টা তাঁকে জেরা করে সিবিআই। পরবর্তী ক্ষেত্রে রাজীব কুমার যে গ্রেফতারি এড়ানোর ‘রক্ষাকবচ’ পেয়েছিলেন, তা নাকচ করে দেয় সুপ্রিম কোর্ট। এর পরই রাজীব কুমারের গ্রেফতারির সম্ভাবনা নিয়ে বিভিন্ন মহলে জল্পনা শুরু হয়। এরই মধ্যে সিবিআই দ্বিতীয় দফায় জেরার জন্য তাঁকে নোটিস পাঠায়।

এই নোটিশের পরিপ্রেক্ষিতে রাজীব কুমার ফের একবার হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন। আদালতের নির্দেশে আপাতত গ্রেফতারি এড়ানোর রক্ষাকবচ পেলেও, তারা জানিয়ে দেয়, সিবিআই যখনই ডাকবে, তাঁকে হাজির হতে হবে। সিবিআইয়ের কাছে পাসপোর্ট জমা দিয়ে কলকাতাতেই থাকতে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয় তাঁকে।

সেই নির্দেশের ভিত্তিতেই শুক্রবার নতুন করে রাজীব কুমারকে নোটিশ পাঠায় সিবিআই। তার পরেই সিজেও কমপ্লেক্সে হাজির হন তিনি।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here