voting in puruliya

শুভদীপ চৌধুরী, পুরুলিয়া: পঞ্চায়েত ভোটের দিনে উত্তপ্ত হল পুরুলিয়া জেলার বিভিন্ন অঞ্চল। পুরুলিয়া জেলার কাশীপুর ব্লকের অন্তর্গত আদ্রার বেকো গ্রাম পঞ্চায়েত অঞ্চলের দু’টি বুথে, কাশীপুর ব্লকের রাঙামাটি ও রঞ্জনডি এলাকার প্রায় সব বুথে ও পুরুলিয়ার অনেক বুথেই শাসক দল ছাপ্পা ভোট চালিয়েছে বলে অভিযোগ করে বিরোধীরা। স্থানীয় মানুষজনের বক্তব্যও তাই।

কাশীপুরের লাড়া সহ জেলার আরও কয়েকটি অঞ্চলে ছাপ্পা ভোট চলে অবাধে। অভিযোগ, কিছু ব্যক্তি মাথায় হেলমেট চাপিয়ে মুখে কাপড় বেঁধে বাইকে চেপে আসে এবং অবাধে ছাপ্পা ভোট দেয়। খুব স্বাভাবিক ভাবেই জনসাধারণ তাঁদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করা থেকে বঞ্চিত হয়।

বেকো গ্রাম পঞ্চায়েতের সিপিএম প্রার্থী কাজল ভট্টাচার্য জানান, নিরাপত্তা দেওয়ার জন্য বহু বার আদ্রা থানায় যোগাযোগ করা হয়েছে। আবেদন জানানো হয়েছে স্থানীয় বিডিও-র কাছে। কিন্তু কেউই কর্ণপাত করেননি।

অন্য দিকে ছাপ্পা ভোটের অভিযোগে বিরোধী দলের বিক্ষোভ চলাকালীন বাঘমুন্ডি বুথ থেকে উধাও হয়ে যায় তিনটি ব্যালট বাক্স। এ দিন রঘুনাথপুর ২নং ব্লকের নিলডি অঞ্চলের ৫ নং বুথে গুলিতে আক্রান্ত হন শাসক ও বিরোধী দলের দুই নেতা। অপর দিকে শাসক দলের দু’জন কর্মীর বাড়িতে আগুন লাগানোর অভিযোগ ওঠে বিরোধী দলের বিরুদ্ধে। এ দিন জেলার অবস্থা এতটা উত্তপ্ত হওয়ার পরেও পুলিশ নীরব দর্শকের ভূমিকা পালন করে বলে অভিযোগ।

জেলার বেশ কয়েকটি বুথে অবশ্য নির্বিঘ্নেই রাত ৮ টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ চলে ।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here