Jaynagar

উজ্জ্বল বন্দ্যোপাধ্যায়, জয়নগর: নতুন বছরে পুর এলাকার সাড়ে ৫ হাজার বাড়িতে পানীয় জলের সংযোগ দিতে চলেছে জয়নগর-মজিলপুর পুরসভা। দক্ষিণ ২৪ পরগনার সব থেকে প্রাচীন পুরসভা এটি। ১৮৬৯ সালের ১ এপ্রিল এই পুরসভা আত্মপ্রকাশ করে।

জানা গিয়েছে, এই পুরসভার ১৪টি ওয়ার্ডে ২৭ হাজার মানুষের বাস। এত দিন এখানে পানীয় জল বলতে টিউবওয়েলের জলই ছিল এক মাত্র সম্বল। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্তা হু-র রিপোর্ট অনুযায়ী, জয়নগর-১ ও ২ ব্লক আর্সেনিকপ্রবণ। সেই কারণে বেশ কয়েকবছর ধরে পুরবাসীর দাবি ছিল এই এলাকায় আর্সেনিকমুক্ত পানীয় জলের ব্যবস্থা করার। পুরসভা লাগোয়া এলাকা জয়নগর-১ ব্লকে আর্সেনিক মুক্ত জল মিললেও পুরএলাকা তা থেকে বঞ্চিত ছিল এত দিন।

তাই পুরবাসীর দাবি মেনে গত ৪-৫ বছর ধরে এলাকার ৩ নম্বর ওয়ার্ডে পুরসভার নিজস্ব মাঠে ও ৯ নম্বর ওয়ার্ডে আমন্ত্রণ কমপ্লেক্সে দু’টি বৃহৎ জলাধার তৈরি করা হয়। তার পরে প্রতিটা ওয়াডে জলের পাইপ বসানো হয়। পুরসভার চেয়ারম্যান সুজিত সরখেল বলেন, “২০১৫ সালে ভোটের আগে আমর কথা দিয়েছিলাম, বাড়ি বাড়ি পানীয় জল পৌঁছে দেব। এতদিন পরে আমরা কথা রাখতে চলেছি। এই পুরসভার সাড়ে ৫ হাজার হোলডিংয়ে এই পানীয় জল দেওয়া হবে। আগামী নতুন বছরের শুরুতে অর্থাৎ জানুয়ারি মাস থেকে নতুন সংযোগের জন্য টাকা নেওয়া হবে। আর তার কয়েকদিনের মধ্যেই পানীয় জলের সংযোগ দিয়ে দেওয়া হবে। আপাতত ভুগর্ভস্থ জল নাগরিকদের দেওয়া হবে। এই জল দেওয়ার কিছুদিনের মধ্যে আর্সেনিকমুক্ত জল ও দেওয়া হবে”।

আরও পড়ুন: ‘নির্মল বাঁকুড়া’র প্রচারে ম্যারাথন দৌড়ে অংশ নিলেন স্বয়ং জেলাশাসক, দেখে নিন তিনি কেমন দৌড়ালেন?

তবে এই জলের জন্যে কোনো জলকর নেওয়া হবে না বলে চেয়ারম্যান জানান। তিনি জানান, সার্ধশত বর্ষের শুরুতে এটাই পুরবাসীর জন্য উপহার।

জনস্বাস্থ্য কারিগরি দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, ফলতা -মথুরাপুর মেগা সারফেস ওয়াটার প্রকল্প থেকে জয়নগর-মজিলপুর পুরসভায় আর্সেনিকমুক্ত পানীয় জল দেওয়া হবে। এর জন্য নিমপীঠে একটি জলাধার তৈরির কাজ শেষের পথে। আর কিছুদিনের মধ্যে সেখান থেকে জল পাবে পুরবাসীরা।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here