জয়প্রকাশ মজুমদার ও রীতেশ তিওয়ারিকে সাসপেন্ড করল বিজেপি

0

কলকাতা: আপাতত বিজেপি থেকে সাসপেন্ড করা হল জয়প্রকাশ মজুমদার এবং রীতেশ তিওয়ারিকে। দলীয় শৃঙ্খলাভঙ্গের তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত তারা দলের সদস্য থাকবে না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছে গেরুয়া শিবির।

দলবিরোধী মন্তব্যের জন্য রবিবার জয়প্রকাশ ও রীতেশকে শো-কজ করেছিল রাজ্য বিজেপি। শো-কজের চিঠিতে লেখা হয়েছিল, দলবিরোধী মন্তব্যের জন্য কেন তাঁদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে না, তা জানাতে। তবে এখনই শো-কজের জবাব দিচ্ছেন না বলেই স্পষ্ট করেছিলেন জয়প্রকাশ ও রীতেশ। এই কারণেই তাঁদের বরখাস্ত করা হয়েছে বলে সূত্রের খবর।

সোমবার বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি দিলীপ ঘোষ শোকজ-এর চিঠি প্রসঙ্গে বলেন,‘‘পার্টি যে কোনো সময়েই যে কোনো কর্মীকে শো কজ করতে পারে। যদি পার্টি মনে করে। তাতে কোনো অসুবিধার কিছু নেই। বাকিটা দলের ব্যাপার। দল বুঝে নেবে।”

অন্য দিকে, ব্যারাকপুরের সাংসদ তথা রাজ্য বিজেপির দাপুটে নেতা অর্জুন সিংহ মন্তব্য করেন, কারও যদি কোনো অভিযোগ থাকে তা হলে তা দলের অভ্যন্তরেই বলা উচিত।

এ দিকে, বিজেপি সূত্রে খবর, দলের প্রতি অনাস্থা দেখানো নেতাদের ক্ষোভ ভাঙাতে পাঁচটি জোনের পদাধিকারীদের সঙ্গে বৈঠক করতে চলেছেন বিজেপির রাজ্য নেতৃত্ব। তার মধ্যে মঙ্গলবার প্রথম বৈঠক হতে চলেছে নবদ্বীপ জোনের সঙ্গে। যার মধ্যে রয়েছে বনগাঁ সাংগঠনিক জেলাও। এই সভায় উপস্থিত থাকতে বলা হয়েছে জেলা সভাপতি এবং পর্যবেক্ষকদের।

বনগাঁ সাংগঠনিক জেলা মূলত মতুয়াদের গড় হিসেবেই পরিচিত। মতুয়াদের নিয়ে ইতিমধ্যেই বিজেপির অন্দরে বিক্ষোভ দেখা গিয়েছে। এমনকি দলবিমুখ নেতাদের সঙ্গে পিকনিক করতেও দেখা গেছে মতুয়া নেতা তথা বনগাঁর বিজেপি সাংসদ শান্তনু ঠাকুরকে।

আরও পড়তে পারেন

হাইডেলবার্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের লেকচার হলে এলোপাথাড়ি গুলিতে জখম বেশ কিছু মানুষ, বন্দুকবাজের মৃত্যু

পঞ্জাবের প্রাক্তন কংগ্রেসি মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিংহের দলের জন্য ৩৭টা আসন ছাড়ল জোটের বৃহত্তম শরিক বিজেপি

স্কুল খোলার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবেন মুখ্যমন্ত্রী, বললেন শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য

বিজেপির সঙ্গে ২৫ বছরের সম্পর্ক শুধু সময় নষ্ট, বাল ঠাকরের জন্মদিনে বললেন পুত্র উদ্ধব

চিত্রশিল্পী ওয়াসিম কপুর প্রয়াত

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন