royal bengal tiger extinction
রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার

ওয়েবডেস্ক: অস্তিত্বের সংকটে রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার। গোটা বিশ্বের কাছে বাংলার পরিচয়বাহক এই প্রাণীটির জীবন এখন বিপন্ন। জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব পড়ছে তাদের ওপরে। এমনটা চলতে থাকলে ৫০ বছরেই বিলুপ্তি ঘটতে পারে সুন্দরবনের রাজার।

রাষ্ট্রপুঞ্জের একটি গবেষণামূলক রিপোর্টে এমনই উদ্বেগজনক তথ্য উঠে এসেছে। অস্ট্রেলিয়া এবং বাংলাদেশের বিজ্ঞানীরা মিলে এই রিপোর্টটি তৈরি করেছেন। এখানে পরিষ্কার করেই বলা হয়েছে, গোটা বিশ্বের জলবায়ুর পরিবর্তনের প্রভাব পড়ছে বঙ্গোপসাগরে, তথা সুন্দরবনে। সেটাই মানিয়ে নিতে পারছে না রয়্যাল বেঙ্গল টাইগাররা। ক্রমশ দুর্বল হয়ে পড়ছে বাংলার গর্ব। ফলে কমছে প্রজননশক্তিও। প্রতিকূল পরিস্থিতির সঙ্গে খাপ খাইয়ে নেওয়ার ক্ষমতা ক্রমে হারিয়ে ফেলছে এই বাঘ।

রিপোর্টে জানানো হয়েছে, সুন্দরবনে যে ভাবে রয়্যাল বেঙ্গলের সংখ্যা কমছে, তাতে ২০৭০ সালের মধ্যে এই প্রজাতিটি সম্পূর্ণ বিলুপ্ত হয়ে যেতে পারে। আবহাওয়ার মাত্রাছাড়া পরিবর্তনের জেরে বিপন্ন হয়েছে ভারত ও বাংলাদেশ মিলিয়ে ৪০০০ বর্গ মাইল এলাকা জুড়ে থাকা সুন্দরবনে আশ্রিত বিভিন্ন প্রাণীর প্রজাতি। সমুদ্রের উচ্চতা বৃদ্ধির ফলে ২০৭০ সালের মধ্যে সুন্দরবনে বাঘের বসবাসের উপযুক্ত কোনো বনভূমি অবশিষ্ট থাকবে না বলে জানানো হয়েছে।

আরও পড়ুন ফণী-বিধ্বস্ত ওড়িশার পাশে দাঁড়াল এনটিপিসি

ক্রমাগত একই অঞ্চলে আবদ্ধ থেকে পরিবর্তিত স্থান বা পরিস্থিতিতে খাপ খাইয়ে নেওয়ার ক্ষমতা হারাচ্ছে বাঘেরা। তাদের জিনেও এই পরিবর্তন ধরা পড়েছে। আরও একটি ব্যাপারকে রয়্যাল বেঙ্গলের বিলুপ্তি হওয়ার অন্যতম কারণ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। সেটা হল সুন্দরবনের চার পাশে শিল্পকারখানা তৈরি হওয়া। এর ফলে এই অঞ্চলে নৌকা চলাচল আরও বাড়ছে। এটায নিয়ন্ত্রণে আনা না গেলে বাঘেদের বিচরণ আরও সীমিত হবে ও প্রাণীটি জিনগতভাবে আরও দুর্বল হয়ে পড়বে বলে সন্দেহ প্রকাশ করা হয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here