pranab mukherjee on rss

কলকাতা: প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায় রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘের সভায় যোগ দিয়েছিলেন গত ৭ জুন। আরএসএসের পশ্চিমবঙ্গ শাখার তরফে দাবি করা হচ্ছে, ওই দিনের পর থেকে না কি এ রাজ্যে সংগঠনে যোগ দেওয়ার আবেদনের সংখ্যা এক ধাক্কায় তিন গুণ হয়ে গিয়েছে।

এ কথা ঠিক, প্রণববাবু আরএসএসের নাগপুর সভায় গিয়ে নিজের বক্তব্যে একটি বারের জন্যও ওই সংগঠনের সদস্য হওয়ার প্রসঙ্গ তোলেননি। কিন্তু তাঁর মতো এক জন চিরজীবন ধর্মনিরপেক্ষ মতাবলম্বী ওই সভায় যোগ দেওয়ায় সাধারণ ‘অসাম্প্রদায়িক’ মানসিকতার বাঙালি সমাজের একাংশ না কি প্রবল আগ্রহ দেখাচ্ছেন ধর্মীয় সংগঠনের সদস্য হওয়ার।

বঙ্গ-আরএসএস নেতৃত্বের দাবি, জুন মাসের ১-৬ তারিখ পর্যন্ত মোট আবেদন জমা পড়েছিল ১৭৭৯টি। কিন্তু ৭ জুন, যে দিন আরএসএসের সভায় প্রণববাবু বক্তব্য রাখেন, সে দিন আবেদন জমা পড়েছে ১৭৭৯টি। তার পর দিন থেকে এখনও পর্যন্ত প্রতিদিন গড়ে ১২০০ থেকে ১৩০০টি করে আবেদন নিজেদের ওয়েবসাইটে পাচ্ছেন বলে দাবি করেছেন তাঁরা।

আরও পড়ুন: এত ‘নেতা’ থাকতে প্রণবকেই কেন আমন্ত্রণ জানাল আরএসএস?

এই বিষয়টির মধ্যেই সমাজের বিশিষ্ট ব্যক্তিরা বা্ংলার চিরাচরিত ধারণায় আঘাত দেখতে পাচ্ছেন। বামপন্থী বুদ্ধিজীবী হিসাবে পরিচিত এক বিশিষ্ট ব্যক্তি বলেন, কোন সংগঠন পরিসংখ্যানে কী তথ্য হাজির করছে সেটা বড়ো বিষয় নয়, পশ্চিমবঙ্গের রাজনীতিতে যে একবগ্গা ধর্মীয় দৃষ্টিভঙ্গির অনুপ্রবেশ ঘটছে, সেটা স্পষ্ট। তবে এর সঙ্গে সবাইকে মিলিয়ে ফেললে হবে না। সমাজ সচেতন মানুষের সংখ্যাই বেশি। বাংলার রাজনীতি ধর্মীয় অনুশাসনে পরিচালিত হবে, এমনটা ভাবার কোনো প্ৰশ্নই নেই।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here