প্রতীকী ছবি

কলকাতা: দীর্ঘ হচ্ছে চারটে প্ল্যাটফর্ম। নতুন একটি প্ল্যাটফর্মও তৈরি হবে। তৈরি হবে বিলাসবহুল লাউঞ্জ। সব মিলিয়ে ভোল বদল হচ্ছে শিয়ালদহ স্টেশনের। এই রূপ পালটানোর জন্য খরচ হবে ২৮ কোটি টাকা।

এই প্রসঙ্গে শিয়ালদহ স্টেশনের এক আধিকারিক বলেন, “শিয়ালদহকে এ-১ স্টেশনের বিভাগে রাখার জন্য সব রকম চেষ্টা করছি আমরা। সেই কারণেই রূপ পালটে ফেলা হচ্ছে স্টেশনের। তবে সব কিছুর মধ্যেই যাত্রী স্বাচ্ছন্দ্যের দিকেই আমরা সব থেকে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছি।”

স্টেশনের ২, ৩, ৪ এবং ৪-এ প্ল্যাটফর্মের দৈর্ঘ্য আরও বাড়ানো হচ্ছে যাতে ১২ বগির ট্রেনকে সেখানে ঢোকানো যেতে পারে। বর্তমানে এই চারটে প্ল্যাটফর্মের দৈর্ঘ্য ২৭৫ মিটার। সেটা বাড়িয়ে সাড়ে তিনশো মিটার করা হবে।

এ ছাড়াও ৯-ডি নামক নতুন একটি প্ল্যাটফর্ম তৈরি করা হবে। এর জন্য প্ল্যাটফর্মের ধারে থাকা বিভিন্ন দোকানকে ইতিমধ্যে অন্যত্র সরে যাওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন ‘বাংলা’ করা যাবে না, রাজ্যের জন্য বিকল্প নামের প্রস্তাব কেন্দ্রের

পাশাপাশি দমদম বিমানবন্দরের মতো বিলাসবহুল লাউঞ্জ তৈরি করার চিন্তাভাবনা হচ্ছে শিয়ালদহ স্টেশনে। এর জন্য স্টেশন বাড়ির প্রথম এবং দ্বিতীয় তলে প্রশাসনিক ব্লককে অন্যত্র সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। প্রথম শ্রেণি, দ্বিতীয় শ্রেণি এবং লোকাল ট্রেনের যাত্রীদের জন্য ওয়েটিং রুম থাকবে। এখন যেখানে সুপারিন্টেনডেন্টের অফিস রয়েছে সেখানে ফুড কোর্ট তৈরি হবে বলেও জানা গিয়েছে।

পাশাপাশি বিদ্যাপতি সেতু তথা শিয়ালদা উড়ালপুলের সঙ্গে স্টেশন সংযোগকারী একটি র‍্যাম্পও তৈরি করার চিন্তাভাবনা চলছে, এমনই জানিয়েছেন ওই আধিকারিক।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here