“তৃণমূলে যন্ত্রণায় ছিলাম”, প্রথমবার বিজেপি রাজ্য দফতরে গিয়ে বললেন শোভন

0

ওয়েবডেস্ক: গত ২৪ ডিসেম্বর দিল্লিতে গেরুয়া শিবিরে যোগ দেওয়ার পর মঙ্গলবার বিজেপি রাজ্য দফতরে প্রথমবার সাংবাদিকদের মুখোমুখি হলেন কলকাতার প্রাক্তন মেয়র এবং রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী শোভন চট্টোপাধ্যায়। এ দিন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের উপস্থিতিতে একটি সংবর্ধনা সভার আয়োজন করে বিজেপি। যেখানে উপস্থিত ছিলেন শোভনের ‘বিপদের বন্ধু’ বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ও।

এ দিন শোভন বলেন, “বিজেপিতে যোগদানে আন্তরিক ছিলেন দিলীপদা। গত ২০১৭-১৮ এক ভয়ঙ্কর পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে গিয়েছি। আতঙ্কের মধ্যে দিন কাটিয়েছি। একটা যন্ত্রণার নদী সাঁতরে উঠে এসেছি। সেই পরিস্থিতি থেকে দিলীপদার আন্তরিকতায় আবার রাজনীতিতে ফিরে এসেছি”।

এ দিন রাজ্যের তৃণমূল সরকারের সাত-আট বছরের শাসন নিয়ে তুমুল সমালোচনা করেন শোভন। একই সঙ্গে লোকসভা ভোটে রাজ্যে বিজেপির সাফল্য এবং পাশাপাশি রাজ্যের শাসক দল তৃণমূলের ‘সন্ত্রাস’ নিয়েও সরব হন তিনি। তিনি বলেন, “আমরা বিশ্বাস করি সবাই মিলে বাংলাকে মুক্ত করাই আমাদের এক মাত্র পাখির চোখ। বাংলাকে সত্যিকারের একটা গঠনমূলক সরকার দিতে হবে। বিজেপির সরকার গড়তে এক জোট হতে হবে”।

কলকাতার প্রাক্তন মেয়র এ দিন বৈশাখীর হেনস্থা প্রসঙ্গে সরব হন। তিনি বলেন, “তি্নি (বৈশাখী) এখন রাজনীতি করতে গিয়ে বারবার পরিস্থিতির শিকার হচ্ছেন। বাম আমলেও এতটা সন্ত্রাস হয়নি। বিরোধীদের জীবন বিপন্ন করে দিচ্ছে তৃণমূল। তৃণমূলে থাকাকালীন একটা অস্বস্তিকর পরিবেশ তৈরি হয়েছিল। বৈশাখী আ্মার বিপদের হন্ধু। বিজেপি যে ভাবে মনে করবে, আমাদের পরিচালিত করবে”।

দিলীপ ঘোষ বলেন, “আমরা শোভনদাকে বেঁধে নিয়ে আসেনি। উনি স্বেচ্ছায় এসেছেন। তবে যে দলকে নিজের হাতে তৈরি করেছেন, এখন তার বিরুদ্ধেই কথা বলতে একটু তো অস্বস্তি হবেই”।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here