নিজের মন্তব্যের জবাব দেওয়ার দায়িত্ব জন বার্লার, উত্তরবঙ্গকে ‘পৃথক রাজ্যের দাবি’তে সোজাসাপটা বিজেপি সাংসদ রাজু বিস্তা

0
Raju Bista and John Barla
রাজু বিস্তা, জন বার্লা। প্রতীকী ছবি

নিজস্ব প্রতিনিধি, শিলিগুড়ি: উত্তরবঙ্গকে পৃথক রাজ্য হিসেবে ঘোষণার দাবি জানিয়েছেন বিজেপি সাংসদ জন বার্লা। যা নিয়ে বিতর্ক চরমে। এ প্রসঙ্গে রাজ্যের আরেক বিজেপি সাংসদ রাজু বিস্তা জানালেন, “নিজের মন্তব্যের জবাব দেওয়ার দায়িত্ব জন বার্লারই”।

কী বললেন রাজু বিস্তা?

[বিজেপি সাংসদ রাজু বিস্তা]

রবিবার দুপুরে দিল্লি থেকে বাগডোগরা বিমান বন্দরে এসে পৌঁছান সাংসদ রাজু বিস্তা। বিমান বন্দরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি বলেন, “জন বার্লা কী বলেছেন, তার জবাব তাঁকেই দিবে। তবে ১০ বছরে উত্তরবঙ্গের কোনো উন্নয়ন হয়নি, মমতা বন্দোপাধ্যায় উত্তরবঙ্গের মানুষের সঙ্গে খেলা করেছেন। একের পর এক চা বাগান বন্ধ, তা খোলার কোনো চেষ্টা নেয়”।

Shyamsundar

দার্জিলিং, তরাই ও ডুয়ার্স নিয়ে স্থায়ী রাজনৈতিক সমাধান বিজেপি সব সময় চেয়েছে। কিন্তু উত্তরবঙ্গকে নিয়ে আলাদা করে বলার এখনও সময় আসেনি জানিয়ে সাংসদ বলেন, “উত্তরবঙ্গের স্বাস্থ্য ব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে, তা ঠিক করতে ব্যর্থ স্বাস্থ্যমন্ত্রী। উত্তরবঙ্গ মেডিক্য়াল কলেজ ও হাসপাতাল ছাড়া আর কোনো মেডিক্যাল কলেজ হয়নি। বেকারত্বের হার বৃদ্ধি পেয়েছে, কিন্তু উত্তরবঙ্গের যুবদের জন্য কোনো কর্মসংস্থান নেই। তাই উত্তরবঙ্গ আলাদা রাজ্য হবে কি হবে না, সেটা বলার উচিত জায়গা রয়েছে, সেখানেই বলব”।

কী বলেছিলেন জন বার্লা?

কোচবিহারের একটি হোটেলে দলীয় বৈঠকে যোগ দিয়ে জন বার্লা বলেন, “উত্তরবঙ্গকে আলাদা রাজ্য হিসেবে দেখতে চাই। এই প্রসঙ্গে দিল্লিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের কাছে আবেদন জানাব”।

সাংসদের এই মন্তব্যের পরই বিজেপির বিরুদ্ধে উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিকে পশ্চিমবঙ্গ থেকে বিচ্ছিন্ন করার অভিযোগ তুলেছে তৃণমূল। দার্জিলিং জেলা তৃণমূলের অভিযোগ, “গোর্খাল্যান্ড আন্দোলনকে জিইয়ে রেখে পাহাড়ের বাসিন্দাদের বিভ্রান্ত করেছে বিজেপি”।

আরও পড়তে পারেন: উত্তরবঙ্গকে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল করার দাবি আলিপুরদুয়ারের সাংসদের, ফুঁসে উঠলেন মুখ্যমন্ত্রী

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন