সিঙ্গুর মামলার রায় ঘোষণা হল বুধবার। সিঙ্গুর কাণ্ডের শুরু সেই ২০০৬ সালে। এক দশক ধরে চলা সিঙ্গুর পর্বের খুঁটিনাটি দেখে নেওয়া যাক এক নজরে।

 

১৮ মে, ২০০৬

হুগলির সিঙ্গুরে ন্যানো প্রকল্পের কথা ঘোষণা করেন টাটা গোষ্ঠীর তৎকালীন কর্ণধার রতন টাটা

 

২০ সেপ্টেম্বর, ২০০৬

ন্যানো গাড়ির কারখানা তৈরির জন্য সিঙ্গুরে জমি অধিগ্রহণ করে পশ্চিমবঙ্গ সরকার

 

২৮ ডিসেম্বর, ২০০৬

জমি অধিগ্রহণের প্রতিবাদে টানা ২৬ দিনের অনশন ভাঙলেন তৎকালীন বিরোধী দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

 

৯ মার্চ, ২০০৭

সরকারি ভাবে জমি হাতে পায় ‘টাটা মোটর্স’

 

১৮ জানুয়ারি, ২০০৮

সিঙ্গুরে জমি অধিগ্রহণকে বৈধতা দিল কলকাতা হাইকোর্ট

 

২১ মে, ২০০৮

সিঙ্গুরে পঞ্চায়েত নির্বাচনে জয়ী তৃণমূল কংগ্রেস

 

২৪ আগস্ট, ২০০৮

অনির্দিষ্ট কালের জন্য ধরনায় বসলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

 

২ সেপ্টেম্বর, ২০০৮

সিঙ্গুরে ন্যানো তৈরির কাজ স্থগিত রাখলো টাটা গোষ্ঠী

 

৩ অক্টোবর, ২০০৮

সিঙ্গুর ছেড়ে চলে যাওয়ার সিদ্ধান্ত টাটা গোষ্ঠীর

 

৭ অক্টোবর, ২০০৮

গুজরাটের সানন্দে ন্যানো গাড়ির নতুন কারখানা তৈরির কথা ঘোষণা করে টাটা গোষ্ঠী

becha

 

১৩ মে, ২০১১

বিধানসভা নির্বাচনে বিপুল ভোটে জয়ী হয়ে রাজ্যে ক্ষমতায় আসে তৃণমূল কংগ্রেস

 

৯ জুন, ২০১১

সিঙ্গুরের কৃষকদের জমি ফিরিয়ে দেওয়ার অর্ডিন্যান্স জারির কথা ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের

 

১৩ জুন, ২০১১

বিধানসভায় পাশ ‘সিঙ্গুর বিল’

 

২২ জুন, ২০১১

‘সিঙ্গুর বিল’কে চ্যালেঞ্জ করে কলকাতা হাইকোর্টে ‘টাটা মোটর্‌স’

 

২৯ জুন, ২০১১

রাজ্য সরকারকে সিঙ্গুরের কৃষকদের জমি ফেরত না দেওয়ার নির্দেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট

 

৩১ আগস্ট, ২০১৬

২০০৬ সালের সিঙ্গুরের জমি অধিগ্রহণকে অবৈধ ঘোষণা করে রায় দিল সুপ্রিম কোর্ট

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here