নিজস্ব প্রতিনিধি, বর্ধমান:  জেলা ভাগের আগেই বর্ধমানের মুকুটে আরো একটা পালক যুক্ত হলো। চেন্নাইয়ের জিওগ্রাফিক্যাল ইনডিকেশন দফতর বর্ধমানের মিহিদানা সীতাভোগকে বিশ্বের দরবারে পৌঁছে দিল। এই সংস্থার উদ্যোগে জেলা শিল্প দফতরের মাধ্যমে আবেদনের ভিত্তিতে ভারত সরকার এই বিখ্যাত মিষ্টিকে জিওগ্রাফিক্যাল আইডেন্টিফিকেশন (জি আই) সার্টিফিকেট দিয়েছে। ফলে দেশে বা বিদেশে এই সংস্থার দেওয়া গুণমানে প্রসিদ্ধ হিসেবে চিহ্নিত সীতাভোগ-মিহিদানা খেলে ক্রেতাদের আর ঠকবার ভয় রইল না। কারণ কোনো পণ্যকে স্বীকৃতি দেওয়া মানে ভৌগোলিক ভাবে স্বীকৃতি দেওয়া। এতে একদিকে যেমন পণ্য সংরক্ষণ করা সহজ হবে তেমনি জি আই রেজিস্ট্রেশন হওয়ার সুবাদে আর নকলের ভয় রইলো না।  

বর্ধমান সীতাভোগ-মিহিদানা ওয়েলফেয়ার ট্রেডার্স অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ ভকত  জানালেন, ই-মেইলের মাধ্যমে তাঁরা জানতে পেরেছেন জিওগ্রাফিক্যাল ইনডিকেশনে রাজ্যের মধ্যে ১২তম এবং গোটা দেশের ৫২৫তম জিআই-এর স্বীকৃতি পেয়েছে সীতাভোগ এবং ৫২৬তম জিআই-এর স্বীকৃতি পেয়েছে বর্ধমানের মিহিদানা। প্রদীপবাবু বলেন, ” কিন্তু সেই সার্টিফিকেট এখনও আমাদের হাতে আসেনি। খোঁজ-খরব নিয়ে জানতে পারলাম দিন দশেকের মধ্যে ওই সার্টিফিকেট আমাদের কাছে চলে আসবে”।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here