Connect with us

দার্জিলিং

ফের বরফে ঢাকল দার্জিলিং পাহাড়, মরশুমে তৃতীয় বার

darjeeling snowfall

দার্জিলিং: মরশুমে তৃতীয় বার। ফের বরফে ঢেকে গেল পাহাড়। তুষারপাত এবং শিলাবৃষ্টির ফলে পাহাড়ের রঙ এখন ধবধবে সাদা। খুশি সাধারণ মানুষ এবং পর্যটকরা।

পশ্চিমই ঝঞ্ঝার প্রভাবে শনিবার সকাল থেকেই মেঘের আড়ালে মুখ ঢেকেছিল দার্জিলিং, কার্শিয়াং-সহ পাহাড়ের বিস্তীর্ণ অঞ্চল। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গেই দার্জিলিংয়ে শুরু হয় তুষারপাত।

কিছুক্ষণ বরফ পড়ার পর, শিলাবৃষ্টি শুরু হয়ে যায়। নিমেষের মধ্যে সাদা হয়ে যায় গোটা দার্জিলিং শহর। ঘুম, জোরবাংলোর মতো জায়গাও এখন বরফের আস্তরণে।

আরও পড়ুন এক ‘বিজ্ঞমান মূর্খ’ ও এক ‘জ্ঞানী পাহাড়িয়া’কে স্মরণ করলেন পাহাড়প্রেমীরা

তুষারপাত না হলেও, শিলাবৃষ্টি হয়েছে কার্শিয়াংয়ে। এতেই খুশি সাধারণ মানুষ এবং পর্যটকরা।

এই মরশুমে ২৮ ডিসেম্বর প্রথম বরফ পড়েছিল দার্জিলিং শহরে। তার পর ২৯ জানুয়ারিও বরফের দেখা পায় পাহাড়ের রানি। তার ১৮ দিন পরেই আবার বরফ।

দার্জিলিংয়ে মরশুমের তৃতীয়বার হলেও, সান্দাকফু-ফালুটে যে এই মরশুমে কত বার বরফ পড়ল, তার কার্যত কোনো হিসেব নেই।

তবে এখানেই শেষ নয়। আগামী ৪৮ ঘণ্টাতেও এ রকম আবহাওয়াই থাকবে পাহাড়ে। ফলে আরও তুষারপাতের সম্ভাবনা রয়েছে।

সুতরাং এখনও সময় রয়েছে, বরফ দেখতে বেরিয়ে পড়ুন দার্জিলিং-এর উদ্দেশে।

দার্জিলিং

‘বিশ্বাস ছিল এই লড়াই জিতব’, করোনাকে জয় করে বাড়ি ফিরলেন অশোক ভট্টাচার্য

এ দিন হাসপাতাল ছাড়ার আগে তাঁর হাতে পুষ্পস্তবক তুলে দিয়ে অভিবাদন জানান হাসপাতালের কর্মীরা।

শিলিগুড়ি: টানা ২১ দিনের লড়াই অবশেষে শেষ হল। করোনাকে (Coronavirus) ঘায়েল করে নিজের বাড়িতে ফিরলেন শিলিগুড়ির বিধায়ক তথা পুরসভার মুখ্যপ্রশাসক অশোক ভট্টাচার্য (Ashok Bhattacharjee)। নিয়ম মেনে আপাতত কয়েক দিনের হোম কোয়ারান্টাইনে থাকবেন অশোকবাবু।

সোমবার বেলা ১২টা নাগাদ মাটিগাড়ার কোভিড (Covid 19) হাসপাতাল থেকে ডিসচার্জ সার্টিফিকেট পান অশোক ভট্টাচার্য। এ দিন হাসপাতাল থেকে বেরোনোর আগে সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন অশোকবাবু।

বর্ষীয়ান এই সিপিএম (CPM) নেতার কথায়, “বিশ্বাস ছিল যে এই লড়াইটা জিততে পারব। এখানে এসে এঁদের দেখে সেই বিশ্বাস আরও শক্তপোক্ত হয়েছে। এক নার্স আমাকে লিখে পাঠিয়েছেন যে আমি সাহসী যোদ্ধার মতো লড়েছি।”

এ দিন হাসপাতাল ছাড়ার আগে তাঁর হাতে পুষ্পস্তবক তুলে দিয়ে অভিবাদন জানান হাসপাতালের কর্মীরা। বাড়ি ঢোকার আগে দলীয় কর্মীরাও তাঁকে অভিবাদনে ভরিয়ে দেন।

সপ্তাহ তিনেক আগে কোভিড পজিটিভ হয়ে এই হাসপাতালেই ভরতি হয়েছিলেন অশোকবাবু। বেশ কয়েক দিন অসুস্থতার পর অবশেষে গত বৃহস্পতিবার তাঁর করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। মাটিগাড়ার কোভিড হাসপাতালের পরিষেবায় তিনি খুশি বলেও জানান অশোকবাবু।

এ দিন হাসপাতাল থেকে অবশ্য প্রথমেই বাড়ি নয়, শিলিগুড়ি শহরের সিপিএম পার্টি অফিসের সামনে অশোকবাবুর গাড়ি গিয়ে থামে। তবে অশোকবাবু গাড়ি থেকে নামেননি। পার্টি অফিসের সামনে তাঁর গাড়ি পৌঁছোতেই সহকর্মীরা পুষ্পবৃষ্টি করেন।

এর পরেই বাড়ি চলে যান তিনি। সবাইকে হাত নেড়ে বাড়ির ভেতরে ঢুকে যান অশোকবাবু।

Continue Reading

দার্জিলিং

সিপিএম নেতা অশোক ভট্টাচার্যের করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ হল

ashok bhattacharya

শিলিগুড়ি: অবশেষে নেগেটিভ এল সিপিএম নেতা অশোক ভট্টাচার্যের (Ashok Bhattacharjee) করোনা (Coronavirus) রিপোর্ট।  বৃহস্পতিবার রাতে এই খবর দিয়েছেন সিপিএমের জেলা সম্পাদক জীবেশ সরকার।

জীবেশবাবু জানিয়েছেন, “অশোকবাবুর রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। তিনি সম্ভবত দু’-এক দিনের মধ্যেই বাড়ি ফিরে আসবেন।”

বেশ কিছু দিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন শিলিগুড়ির প্রশাসক বোর্ডের চেয়ারম্যান  অশোক ভট্টাচার্য। জ্বর, সর্দি-কাশি ছিল। গত ১৪ জুন তাঁর প্রথম বার করোনা পরীক্ষা হয়। সেই রিপোর্ট নেগেটিভ আসায় কিছুটা স্বস্তি আসে। কিন্তু দু’ দিন পর ১৬ জুন থেকে ফের অসুস্থ বোধ করতে শুরু করেন শিলিগুড়ির সদ্য প্রাক্তন মেয়র।

সে দিনই নিউমোনিয়া সন্দেহে তাঁকে মাটিগাড়ার কাছে একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ওই বেসরকারি হাসপাতালেই অশোকবাবুর কিছু শারীরিক পরীক্ষানিরীক্ষা করা হয়। করোনা পরীক্ষার জন্য ফের একবার লালারস সংগ্রহও করা হয়।

বুধবার ১৭ জুন সেই রিপোর্ট আসে। দেখা যায়, কোভিড (Covid 19) পজিটিভ ৬২ বছরের বিধায়ক। তাঁকে মাটিগাড়ার কোভিড হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। গত বছরই হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছিলেন অশোকবাবু। ফলে তাঁকে নিয়ে কিছুটা হলেও চিন্তা ছিল।

অশোকবাবু মোটামুটি সুস্থ হয়ে যাওয়ার পর আরেক বার তাঁর লালারসের নমুনা সংগ্রহ করে তা করোনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়। সেই রিপোর্টও পজিটিভ আসে। ফলে হাসপাতাল থেকে তাঁর ছাড়া পাওয়ার সম্ভাবনা পিছিয়ে যায়।

অবশেষে বৃহস্পতিবার আবার তাঁর সোয়াব পরীক্ষা করা হয়। সিপিএমের দার্জিলিং জেলা সম্পাদক জীবেশ সরকার জানান, তাঁর রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। এই খবরে স্বস্তি পেয়েছেন সংশ্লিষ্ট সকলেই। দু’ সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে হাসপাতালে রয়েছেন অশোকবাবু।

Continue Reading

কালিম্পং

প্রচুর বিধিনিষেধ সঙ্গে নিয়ে ১ জুলাই থেকে পর্যটকদের জন্য খুলছে দার্জিলিং

দার্জিলিং: দার্জিলিং-কালিম্পঙের অর্থনীতিটা অনেকটাই পর্যটনকেন্দ্রিক। করোনা মহামারির কারণে গত মার্চ থেকে পর্যটকশূন্য হয়ে রয়েছে গোটা পাহাড়। মুখ থুবড়ে পড়েছে অর্থনীতি। করোনা (Coronavirus) কত দিনে যাবে তার কোনো ঠিক নেই। তাই করোনাকে সঙ্গে নিয়েই এ বার পর্যটকদের স্বাগত জানানোর জন্য তৈরি হচ্ছে পাহাড়।

১ জুলাই থেকে গোর্খাল্যান্ড টেরিটোরিয়াল অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (জিটিএ)-এর আওতাধীন সব হোটেল এবং হোমস্টে খুলে দেওয়া হবে। দার্জিলিংয়ের (Darjeeling) হোটেল এমনিতেই খোলা রয়েছে, কিন্তু দর্শনীয় স্থানগুলি এতদিন বন্ধ ছিল। ১ জুলাই থেকে ধীরে ধীরে তা খোলা হবে।

পর্যটনশিল্পের সঙ্গে যুক্ত সব অংশীদারের সঙ্গে আলোচনা করে এই কথা জানিয়েছেন জিটিএ (GTA) পর্যটন দফতরের সহকারী ডিরেক্টর সুরজ শর্মা।

১ জুলাই থেকে জিটিএ-এর আওতায় থাকা দার্জিলিংয়ের টাইগার হিল, রক গার্ডেন, গঙ্গা মাইয়া পার্ক, বাতাসিয়া লুপ খুলে দেওয়া হবে। একই দিনে কালিম্পঙের দেলো পার্কও খুলে দেওয়া হবে।

শর্মা বলেন, “আমরা প্রথম জলটা মেপে নিতে চাই। সাধারণ মানুষ কেমন প্রতিক্রিয়া দেখান সেটাই জেনে নিতে চাই। তার পর মিরিক-সহ বাকি জায়গা খোলার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।”

তবে জিটিএ-এর আওতায় না থাকা দার্জিলিং চিড়িয়াখানা, হিমালয়ান মাউন্টেনিয়ারিং ইন্সটিটিউট (HMI) আর রোপওয়েও যাতে খুলে দেওয়া হয় ১ জুলাই থেকে সেই জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন জানাবে জিটিএ।

হোটেল আর হোমস্টেগুলোর জন্য বিশেষ স্ট্যান্ডার্ড ওপারেটিং প্রসিডিওর (এসওপি) তৈরি করা হবে। পরিচ্ছন্নতার ব্যাপারে কোনো রকম আপস যাতে না করা হয়, সেই নির্দেশও দেওয়া হবে। আপাতত ট্যাক্সিগুলো তাদের যাত্রী ক্ষমতার ৫০ শতাংশ যাত্রী নিতে পারবে বলে জানিয়েছে জিটিএ।

তবে পর্যটকরা যাতে নিজেদের ব্যক্তিগত গাড়ি নিয়ে পাহাড়ে আসেন, সেই ব্যাপারে বিশেষ আবেদন করেছে জিটিএ। পাহাড়ে ওঠার অন্তত চারটে জায়গায় থার্মাল স্ক্রিনিংয়ের ব্যবস্থা করা হবে বলেও জানিয়েছেন শর্মা।

সব মিলিয়ে, ধীরে ধীরে এ বার পর্যটনের ভাটা কাটিয়ে উঠতে চাইছে পাহাড়।

Continue Reading
Advertisement
দেশ1 hour ago

সুপ্রিম কোর্ট কোভিড-১৯ চিকিৎসার খরচ বেঁধে দিতে পারে না: প্রধান বিচারপতি

দেশ1 hour ago

ফুঁসছে কোশী, বিহারে হুড়মুড়িয়ে নদীগর্ভে তলিয়ে গেল স্কুল বাড়ি

উঃ দিনাজপুর2 hours ago

ময়নাতদন্তে বিধায়কের আত্মঘাতী হওয়ারই ইঙ্গিত, জানালেন স্বরাষ্ট্রসচিব

রাজ্য2 hours ago

আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে, প্রশ্ন উঠছে চিকিৎসা পরিষেবা নিয়েও

দেশ2 hours ago

করোনায় স্বস্তির খবর, ১.১৩ থেকে আর নম্বর কমে এখন ১.১১

শিক্ষা ও কেরিয়ার4 hours ago

কাল মাধ্যমিক ও সিবিএসই দশম শ্রেণির ফলপ্রকাশ

বাংলাদেশ5 hours ago

উভয় দেশে পণ্যবাহী ট্রেন চালুর সিদ্ধান্তের পর প্রথম ভারতীয় ট্রেন বাংলাদেশে

দেশ6 hours ago

মন্ত্রী ও দলীয় সভাপতি পদ থেকে অপসারিত সচিন পায়লট

কেনাকাটা

কেনাকাটা2 days ago

হ্যান্ডওয়াশ কিনবেন? নামী ব্র্যান্ডগুলিতে ৩৮% ছাড় দিচ্ছে অ্যামাজন

খবরঅনলাইন ডেস্ক : করোনাভাইরাস বা কোভিড ১৯ এর সঙ্গে লড়াই এখনও জারি আছে। তাই অবশ্যই চাই মাস্ক, স্যানিটাইজার ও হ্যান্ডওয়াশ।...

কেনাকাটা5 days ago

ঘরের একঘেয়েমি আর ভালো লাগছে না? ঘরে বসেই ঘরের দেওয়ালকে বানান অন্য রকম

খবরঅনলাইন ডেস্ক : একে লকডাউন তার ওপর ঘরে থাকার একঘেয়েমি। মনটাকে বিষাদে ভরিয়ে দিচ্ছে। ঘরের রদবদল করুন। জিনিসপত্র এ-দিক থেকে...

কেনাকাটা1 week ago

বাচ্চার জন্য মাস্ক খুঁজছেন? এগুলোর মধ্যে একটা আপনার পছন্দ হবেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিউ নর্মালে মাস্ক পরাটাই দস্তুর। তা সে ছোটো হোক বা বড়ো। বিরক্ত লাগলেও বড়োরা নিজেরাই নিজেদেরকে বোঝায়।...

কেনাকাটা1 week ago

রান্নাঘরের টুকিটাকি প্রয়োজনে এই ১০টি সামগ্রী খুবই কাজের

খবরঅনলাইন ডেস্ক : লকডাউনের মধ্যে আনলক হলেও খুব দরকার ছাড়া বাইরে না বেরোনোই ভালো। আর বাইরে বেরোলেও নিউ নর্মালের সব...

নজরে