somnath

কলকাতা: পঞ্চায়েত ভোট নিয়ে সৃষ্টি হওয়া উত্তেজক পরিস্থিতি নিয়ে সাংবাদিক সম্মেলন করে মুখ খুললেন লোকসভার প্রাক্তন অধ্যক্ষ সোমনাথ চট্টোপাধ্যায়। তিনি মুখ্যমন্ত্রীর কাছে আবেদন রাখেন, রাজ্যের গণতন্ত্র ফিরিয়ে নিয়ে এসে সুষ্ঠু ভাবে নির্বাচন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে।

সোমনাথবাবু বলেন, “এটা কি নির্বাচন হচ্ছে? রাজ্যে বিরোধীরা মনোনয়ন দিতে পারছে না। আদালত নির্দেশ দিয়েছে, সেই নির্দেশকে সম্মান করা দরকার। এ ভাবে চলতে থাকলে মানুষের ন্যূনতম অধিকারও হয়তো আর থাকবে না”।

বাংলার মানুষের অধিকার কেড়ে নেওয়ার চেষ্টা চলছে, অভিযোগ করে তিনি বলেন, “আলিপুরে ১৪৪ ধারা বলবৎ থাকা সত্ত্বেও কেন পুলিশ বাইকবাহিনীকে আটকাল না। আসলে যা হচ্ছে তা সবাই বুঝতে পারছে। এটা খুবই দু:খের। আশ্চর্য হতে হচ্ছে যে পশ্চিমবঙ্গে এ সব হচ্ছে। মানুষ জানে নির্বাচন কী? কাকে মানুষ বেশি ভালোবাসছে, তার নিরিখেই তো বিজয়ী নির্ধারিত হয়! কিন্তু গায়ের জোরে এ সব করার মানে কী”।

গোটা নির্বাচন প্রক্রিয়ায় শাসক দলের ভূমিকা নিয়েও তিনি বিশদে সমালোচনা করেন। বলেন, “শাসক দল বলছে, অন্য দলের সমর্থক নেই তাই তারা মনোননয়ন দিতে পারছে না। তা হলে গুন্ডার দরকার হচ্ছে কেন? পুলিশ তো রয়েছে, তারা তো সব কিছু নিয়ন্ত্রণ করবে। এখানে গুন্ডা আসছে কেন”?

নিজের বক্তব্যে নির্বাচন‌ কমিশনের অসহায়তা নিয়ে দু’-চার কথা বলেন সোমনাথবাবু। তিনি বলেন, “দু:খের কথা নির্বাচন কমিশন নিজের অধিকার প্রয়োগ করতে পারছে না। এর আগের কমিশনারও পালিয়ে গিয়েছেন। এখন যিনি আছেন তিনিও অসহায় বোধ করছেন”।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here