আবারও মিলল সুন্দরবনের তেলিয়া ভোলা, ওজন ১৭ কেজি

0

উজ্জ্বল বন্দ্যোপাধ্যায়, কুলতলি: ক্যানিংয়ের পর এ বার একটি মাঝারি মাপের তেলিয়া ভোলা মাছ পাওয়া গেল সুন্দরবনের কুলতলিতে।

জানা গেল, গত সোমবার কুলতলির দেউলবাড়ির চিতুরি এলাকা থেকে বাসুদেব বৈদ্য,পবিত্র বিশ্বাস ও মিঠুন নাইয়া নামে তিন মৎস্যজীবী মিলে সরকারি অনুমতি নিয়ে রায়দিঘি রেঞ্জের বাঘমারা বিট অফিস লাগোয়া ঠাকুরান নদীতে মাছ ও কাঁকড়া ধরতে যান। মাছ ও কাঁকড়া ধরে ফেরার পথে বিকালে ভাটার সময় ঠাকুরান নদীর মেছুয়া খালে একটি মাঝারি মাপের তেলিয়া ভোলা মাছকে নদীর চরে পড়ে থাকতে দেখেন তাঁরা। কাল বিলম্ব না করে মাছটিকে উদ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে আসেন তাঁরা।

এ ব্যাপারে মৎস্যজীবী বাসুদেব বৈদ্য বলেন, “আমরা বহুবছর ধরে সুন্দরবনের নদীতে মাছ, কাঁকড়া ধরে জীবিকা নির্বাহ করি। এ দিনের মাছটি দেখে মনে হয় কোনো ভাবে আঘাত পেয়ে গভীর নদী থেকে এই খালে এসে পড়ে মারা যায়। মাছটির ওজন প্রায় ১৭ কেজি। আমরা এখন মাছটিকে বরফ দিয়ে রেখেছি”।

এই মাছ দেখার জন্য বহু মানুষ তাঁদের বাড়িতে ভিড় করছে। মঙ্গলবার সকালে কয়েকজন ব্যবসায়ী এসেছিলেন মাছটিকে কেনার জন্য। তবে মাছটি এখনও বিক্রি হয়নি। মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে মাছটি বিক্রি করে কপাল খুলতে চাইছেন এই মৎস্যজীবীরা। এই মাছের পেটে থাকা পটকা দিয়ে বিভিন্ন ধরনের ওষুধ, জিনিসপত্র তৈরি হয়। যা অস্ত্রোপচারের পর সেলাইয়ের কাজে ব্যবহার করা হয় বলে জানা যায়।

উল্লেখ্য, মাসখানেক আগে কপুরা নদীর কাছে তেরো বাঁকির খালে মৎস্যজীবীদের জালে জড়ায় ৭৮ কেজি ৪০০ গ্রাম ওজনের একটি তেলিয়া ভোলা মাছ।

আরও পড়তে পারেন:

সংসদের শীতকালীন অধিবেশনে ক্রিপ্টোকারেন্সি বিল পেশ করছে কেন্দ্র

কুলতলিতে ভেসে এল হরিণের মৃতদেহ, এলাকায় চাঞ্চল্য

পশ্চিমবঙ্গে ফের কমল করোনা সংক্রমণের হার, কমল সক্রিয় রোগীর সংখ্যাও

পেট্রোল-ডিজেলের দাম কমাতে ফের উদ্যোগী কেন্দ্র, ৫০ লক্ষ ব্যারেল মজুদ তেল ছাড়ার পরিকল্পনা

দ্রুত পঞ্জাব, হরিয়ানায় যেতে চান, দিল্লিতে দাঁড়িয়ে স্পষ্ট করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

কীর্তি আজাদের পর তৃণমূলে আরেক প্রাক্তন কংগ্রেস সাংসদ, কড়া প্রতিক্রিয়া অধীররঞ্জন চৌধুরীর

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন