বুলবুলের তাণ্ডবে নিখোঁজ তিন মৎস্যজীবীর দেহ উদ্ধার, এখনও খোঁজ নেই অনেকের

0

রায়দিঘি: বুলবুলের তাণ্ডবে বঙ্গোপসাগরে নিখোঁজ হয়ে যাওয়া একটি ট্রলার তিন মৎস্যজীবীর দেহ উদ্ধার হয়েছে। তবে এখনও তিন জনের কোনো হদিশ মেলেনি। এ ছাড়াও ফ্রেজারগঞ্জে নিখোঁজ হয়ে যাওয়া একটি ট্রলার উদ্ধার করা হলেও, বৃহস্পতিবার রাত পর্যন্ত ওই ট্রলারের ছয় মৎস্যজীবীরও কোনো হদিশ মেলেনি।

শনিবার রাতে বুলবুলের দাপটে নিখোঁজ হয়ে যায় ৪টি ট্রলার। সেগুলির মধ্যেই ছিল রায়দিঘির সাগরকন্যা-২ নামে একটি ট্রলার। ঘটনার পর থেকেই নিখোঁজ ছিলেন সেই ট্রলারের সাত জন মৎস্যজীবী।

প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, ট্রলারটি বিদ্যা নদীর বালির চরে উলটে গিয়েছিল। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ওই ট্রলারের দুই মৎস্যজীবীর দেহ ভাসতে দেখেন উদ্ধারে যাওয়া মৎস্যজীবীরা। সেই দেহ উদ্ধার করে নিয়ে আসা হয়।

পরিবারের সদস্যদের খবর দেওয়া হলে, তাঁরাও রেণুপদ মুদি (৫০) ও লুৎফর মীরের (৩৪) দেহ দু’টি শনাক্ত করেন। এর কিছুক্ষণ পর উদ্ধার হয় আরও এক মৎস্যজীবীর দেহ। তবে এখনও ওই ট্রলারের সাত জন মৎস্যজীবীর কোনো খোঁজ নেই।

আরও পড়ুন ভোটের আগে দ্বন্দ্বে জেরবার বিজেপি, একাধিক নেতা-বিধায়ক গেলেন কংগ্রেসে

অন্য দিকে, ফ্রেজারগঞ্জের পাতিবুনিয়ায় চিনাই নদীতে উলটে যাওয়া এফবি ট্রলারটিকে উদ্ধার করল এসডিআরএফ, এনডিআরএফ এবং পুলিশ-প্রশাসনের একটি দল। স্থানীয় মৎস্যজীবীরাও দলটিকে সাহায্য করেন।

ওই ট্রলারটি উদ্ধার করা হলেও এখনও ওখানে থাকা ৬ মৎস্যজীবীর দেহ উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। তবে মনে করা হচ্ছে জলে ভরতি থাকা ওই ট্রলার থেকে সব জল বের করে দিলে ৬ জনের দেহ উদ্ধার করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.