Connect with us

দঃ ২৪ পরগনা

বেড়ানোর নাম করে ছেলেরা সুন্দরবনে ফেলে যায় বৃদ্ধ বাবাকে, মৃত্যুর পর মর্গে পড়ে মৃতদেহ

এক হতভাগ্য বৃদ্ধ পিতার মৃত্যুর মর্মান্তিক সেই ঘটনার সাক্ষী থাকল সুন্দরবনের কুলতলি।

Published

on

উজ্জ্বল বন্দ্যোপাধ্যায়, কুলতলি :বয়স হয়ে গেলে মানুষ অসহায়। সন্তানদের কাছে বোঝা হয়ে যায়। আর তাই জন্ম দেওয়া বাবা-মায়ের তখন ঠাঁই হয় বৃদ্ধাশ্রম নতুবা কোনো ও আস্তাকুড়ে। এক লহমায় সব বিশ্বাস, আস্থা, সম্পর্ক চূর্ণবিচূর্ণ হয়ে যায়।

এক হতভাগ্য বৃদ্ধ পিতার মৃত্যুর মর্মান্তিক সেই ঘটনার সাক্ষী থাকল সুন্দরবনের কুলতলি। ঘটনায় প্রকাশ, তিন ছেলে, তিন মেয়ের বাবা কাদের খান। ছয় সন্তানদের নিয়ে সুখের সংসারে দিন কাটাচ্ছিলেন ঝাড়খণ্ড রাজ্যের ধানবাদের নিজের বাড়িতে। ছেলেরা প্রায়ই বাইরে বেড়াতে নিয়ে যেতে চাইতেন। তাতে বাবার তেমন কোনো সায় বা উৎসাহ ছিল না। অনেকটা জোর করেই ছেলেরা বেড়ানোর নাম করে গত ডিসেম্বরের শেষে নিয়ে আসেন সুন্দরবনে এবং পরিকল্পনা মাফিক বৃদ্ধ বাবাকে সুন্দরবনে ফেলে রেখে তাঁরা পালিয়ে যান। ঘটনাটি স্থানীয় মানুষদের নজরে আসে এ বছর জানুয়ারির ২ তারিখে। স্থানীয় মানুষজন কুলতলির মৈপীঠের বিনোদপুর গ্রামের কাঁচা রাস্তার উপর এক অসুস্থ বৃদ্ধকে পড়ে থাকতে দেখে।

জানাজানি হতেই স্থানীয় স্বাস্থ্য কর্মীরা প্রথমে মৈপীঠ ভুবনেশ্বরী প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ও পরে কুলতলি ব্লক জয়নগর গ্রামীণ হাসপাতালে তাকে ভরতি করে দেন। অভুক্ত কাদের খান তখন ও প্রচণ্ড দুর্বল। সেখানে চিকিৎসা শুরু হয়। সময় গড়াতে থাকে। কিন্তু কেউ খোঁজ নিতে না আসায় সন্দেহ আরও ঘনীভূত হয়। তাঁকে দেখাশোনার দায়িত্বে থাকা অণ্বেষা কাউন্সেলর সুপর্ণা কন্টের কাছে অসুস্থ কাদের খান কথায় কথায় বাড়ির নানা সুখস্মৃতির কথা তুলে ধরেন। তাঁকে ফেলে রেখে ছেলেরা চলে গেছে এ কথা কিছুতেই শুনতে চাইতেন না, উল্টে তাদের বলতেন, “ও লোগ জরুর আয়েগা, হো সাকতা মেরা লেড়কা কাম মে ফাঁস গয়া”।

Loading videos...

বেড়াতে এসে কী ভাবে ছেলেদের থেকে আলাদা হয়ে গেলেন তা বলতে পারেননি। বাড়ির ঠিকানা, পরিবারের লোক-জন সবার কথা বলতেন। মাঝে মাঝে বাড়ির লোকজনদের খুঁজতে হাসপাতাল বেড থেকে বাইরে চলে আসতেন। ভালোবাসার টানে শনিবার আবার ছেলেদের খুঁজতে বাইরে এসেই মৃত্যু হল হতভাগ্য পিতা কাদের খানের। কুলতলি ব্লক হাসপাতালের সুপর্ণা কন্ট বলেন, “বৃদ্ধ বয়সে বাবা-মার সঙ্গে এ ধরনের ব্যবহার কাম্য নয়। বেড়ানোর নাম করে অত দূর থেকে এখানে ছেড়ে পালিয়ে যায় ওই বৃদ্ধর ছেলে-মেয়েরা। অথচ মৃত্যুর আগে অবধি সে তাঁর সন্তানদের কতটা ভালোবাসতেন। এ ভাবে এই মৃত্যু কিছু তেই মেনে নিতে পারছি না। খুব কষ্ট হচ্ছে “।

কুলতলি থানার পুলিশ কাদেরের পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগের বহু চেষ্টা করলেও রবিবার বিকেল পর্যন্ত কোনো খোঁজ মেলেনি পরিবারের। তাই কাদেরের মৃতদেহ এখন স্থান পেয়েছে মর্গে। পথ চেয়ে ছেলেদের হাতে সমাধিস্থ হওয়ার অপেক্ষায়।

আরও পড়তে পারেন: রাজ্যে সক্রিয় কোভিডরোগীর সংখ্যা আট হাজারের নীচে

দঃ ২৪ পরগনা

করোনা, উম্পুন যাঁর ১২ বছরের দায়িত্বপালনে ছেদ ফেলতে পারেনি

কোভিডরোগীদের বাড়ি থেকে হাসপাতালে আনতে গিয়ে নিজেও করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। সেরে উঠে ফের কাজে মনোনিবেশ করেছেন সুপর্ণা।

Published

on

সুপর্না কন্ট। ছবি: প্রতিবেদক

উজ্জ্বল বন্দ্যোপাধ্যায়, কুলতলি: মানুষের সেবায় সুন্দরবনে নিরলস সেবা করে চলেছেন একটি মেয়ে। করোনা সময়কাল হোক বা উম্পুন কবলিত এলাকা, সব কিছু ভুলে গিয়ে মানুষের পাশে থেকে সর্বক্ষণ স্বাস্থ্য পরিষেবা দিয়ে চলেছেন প্রথম সারির করোনাযোদ্ধা সুপর্ণা কন্ট।

কলকাতা থেকে সাড়ে তিন ঘণ্টার পথে নিত্য যাতায়াত করে কুলতলি ব্লক জয়নগর গ্রামীণ হাসপাতালে ১২ বছর ধরে কর্তব্য পালন করছেন বেহালার তরুণী সুপর্ণা। ১২ বছর ধরে রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের হেলথ কাউন্সেলর হিসেবে কাজ করছেন। লকডাউন ঘোষিত হওয়ার পর থেকে সুপর্ণা জয়নগর গ্রামীণ হাসপাতাল সংলগ্ন এলাকায় বাড়ি ভাড়া নিয়ে থাকেন। এলাকার বাসিন্দারা তাঁকে খুব ভালোবাসেন। কারণ কাজের প্রতি ওঁর আছে দায়বদ্ধতা। কোভিডরোগীদের বাড়ি থেকে হাসপাতালে আনতে গিয়ে নিজেও করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। সেরে উঠে ফের কাজে মনোনিবেশ করেছেন।

কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সোসিওলজিতে স্নাতকোত্তর করার পর স্বাস্থ্য দফতরের এই চাকরিটা পেয়ে গিয়েছিলেন সুপর্ণা। কিন্তু গতানুগতিক চাকরি করার পথ থেকে গোড়াতেই সরে এসেছেন সুপর্ণা। একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের হয়ে নাবালক ও নাবালিকাদের জীবনের সমস্যা সমাধানের পথ খুঁজে দেওয়ার কাজটি করতে করতে সুপর্ণা দরিদ্র গ্রামীণ মানুষের জীবন কাছ থেকে দেখছেন। জানালেন, ২০১৯ ও ২০২০ সালে জয়নগর গ্রামীণ হাসপাতাল থেকে বদলির আদেশ আটকে গিয়েছে মানুষের প্রতিবাদে। ছোটোরা প্ল্যাকার্ড হাতে বদলির প্রতিবাদ জানিয়েছিল।

Loading videos...

কুলতলি ব্লকের জনসংখ্যা ২ লক্ষ ৫৭ হাজার। সুপর্ণা জানালেন, এর মধ্যে ৫০ থেকে ৬০ হাজার কিশোর-কিশোরী। এদের শারীরিক ও মানসিক সমস্যাগুলো নিয়ে কাজ করার দায়িত্ব যে কতটা গুরুত্বপূর্ণ, সে কথা বলার অপেক্ষা রাখে না। নানা রকম সমস্যা আছে। যেমন নাবালিকা বিবাহ,নাবালিকা পাচার, কৈশোরেই নেশার ফাঁদে পড়া কিশোর,কিশোরী-সহ জীবনের রুক্ষতার জেরে বিভিন্ন ধরনের মানসিক ও শারীরিক সমস্যায় ভুগছে অনেকেই। এদের জীবনের মূল স্রোতে ফেরানোর কাজটা সুপর্ণার কাছে চ্যালেঞ্জের।

এই কাজে সহযোগী জয়নগর গ্রামীণ হাসপাতালের চিকিৎসকরা। প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্য গ্রুপ কাউন্সেলিং করেন সুপর্ণা। এ ছাড়া প্রতি সপ্তাহে দু’ দিন কুলতলি ব্লকের স্কুলগুলিতে যান। পড়ুয়াদের খবর নেন। সুপর্ণা ওদের সবার দিদি। মনের কথা ওরাও অসংকোচে খুলে বলে ‘দিদি’র কাছে।

আরও পড়তে পারেন: বার্ড ফ্লু: ভারতের ডিম, মুরগির বাচ্চা আমদানি নিষিদ্ধ করল বাংলাদেশ

Continue Reading

দঃ ২৪ পরগনা

টিকা নিয়ে খুশি চিকিৎসক, নার্স-সহ দক্ষিণ ২৪ পরগনার প্রথম সারির করোনাযোদ্ধারা

জেলার পাঁচটি মহকুমায় জেলার স্বাস্থ্যকর্মী এবং স্বাস্থ্য পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত প্রথম সারির করোনাযোদ্ধারা টিকা পেলেন এ দিন।

Published

on

চলছে টিকাকরণ। ছবি: প্রতিবেদক

উজ্জ্বল বন্দ্যোপাধ্যায়, জয়নগর: অবশেষে দীর্ঘ অপেক্ষার অবসান। করোনাভাইরাসের মোকাবিলায় শনিবার দেশ জুড়ে শুরু হল করোনা টিকাকরণ কর্মসূচি। পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন জেলার পাশাপাশি দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার পাঁচটি মহকুমায় জেলার স্বাস্থ্যকর্মী এবং স্বাস্থ্য পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত প্রথম সারির করোনাযোদ্ধারা টিকা পেলেন এ দিন।

এ দিন সকালে জেলার ক্যানিং মহকুমা হাসপাতাল, বারুইপুর মহকুমা সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল, বাসন্তী ১১ নম্বর সাব-সেন্টার, জয়নগর রুরাল হাসপাতাল, জয়নগর নিমপীঠ রামকৃষ্ণ গ্রামীণ হাসপাতাল, সোনারপুর কমিউনিটি হেলথ সেন্টার, মহেশতলা পুরসভার মোল্লারগেট প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্র এবং ডায়মন্ড হারবার স্বাস্থ্য জেলার কাকদ্বীপ সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল, সরিষা ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্র, ফলতা ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্র, বানেশ্বরপুর রুরাল হাসপাতাল, মগরাহাট রুরাল হাসপাতাল, মথুরাপুর রুরাল হাসপাতাল, সাগর রুরাল হাসপাতাল ও ডায়মন্ড হারবার গভর্নমেন্ট মেডিকেল কলেজ অ্যান্ড হাসপাতালে এই কর্মসূচি পালন করা হল।

স্বাস্থ্য আধিকারিকরা জানালেন, টিকার দু’টি ডোজ নিতে হবে, প্রথম ডোজের ২৮ দিন পর দ্বিতীয় ডোজ নিতে হবে সকলকে। এ দিন টিকাকরনের মুহূর্তে সাগর রুরাল হাসপাতালে উপস্থিত ছিলেন জেলাশাসক পি উলগানাথন, সাগরের বিধায়ক বঙ্কিম হাজরা, ডায়মন্ড হারবার স্বাস্থ্য জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক ডা. দেবাশিস রায়-সহ আরও অনেকে।

Loading videos...

নিমপীঠ রামকৃষ্ণ গ্রামীণ হাসপাতালে উপস্থিত ছিলেন জয়নগরের বিধায়ক বিশ্বনাথ দাস। জেলাশাসক পি উলগানাথন এ দিন বলেন, প্রথম সারিতে থাকা ১০০ জনকে এ দিন করোনা টিকার প্রথম ডোজ দেওয়া হল। ২৮ দিন পর দ্বিতীয় ও শেষ ডোজ দেওয়া হবে। প্রথমে ডাক্তার,নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীদের দেওয়া হল। পরবর্তীতে সমাজের বিভিন্ন স্তরের মধ্যে দেওয়া হবে। এ দিন এই টিকা নিয়ে খুশি চিকিৎসক,নার্স-সহ প্রথম সারিতে থাকা করোনাযোদ্ধারা।

আরও পড়তে পারেন: প্রয়োজনে সংস্থার কাছ থেকে কিনে প্রত্যেককে বিনামূল্যে টিকার আশ্বাস মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের

Continue Reading

দঃ ২৪ পরগনা

সুন্দরবনের গদখালিতে ডুবে গেল লঞ্চ, নিরাপদে পর্যটকরা

বৃহস্পতিবার বিকেল অবধি কোনোভাবে তোলা যায়নি ডুবে যাওয়া পর্যটকদের সেই বোটটিকে।

Published

on

ডুবে যাওয়া লঞ্চ। ছবি: প্রতিবেদক

উজ্জ্বল বন্দ্যোপাধ্যায়, সুন্দরবন: আবারও সুন্দরবনের লঞ্চে দুর্ঘটনা। এ বার সুন্দরবনের গদখালিতে ডুবে গেল পর্যটকদের লঞ্চ।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেল, বুধবার রাতে একটি পর্যটক বোঝাই লঞ্চ জেটিঘাটে গিয়ে ধাক্কা মারলে লঞ্চটিতে ফাটল ধরে জল ঢুকে ডুবে যায়। তবে সমস্ত পর্যটকদের উদ্ধার করে আশপাশের নৌকার লোকজন। ঘটনাটি ঘটেছে সুন্দরবনের উপকূল থানার গদখালি জেটিঘাট এলাকায়।

স্থানীয় সূত্রে খবর, কলকাতা থেকে ২২ জনের পর্যটকের দল বুধবার সকালে সুন্দরবন ভ্রমণে যায়। লঞ্চে করে গদখালি জেটিঘাট থেকে। লঞ্চটি পর্যটকদের জল পথে ঘুরিয়ে রাতে গদখালি জেটিঘাট ফিরিয়ে আনে। লঞ্চটি জেটিঘাটে নোঙর করার সময় সজোরে জেটিঘাটে ধাক্কা মারে। আর তার ফলে ফাটল দিয়ে নোনা জল ঢুকে যায়। আর নোনা জল ঢুকে লঞ্চটি ডুবে যায়।

Loading videos...

আতঙ্কে পর্যটকরা চিৎকার চেঁচামেচি করতে থাকেন। স্থানীয় বেশ কিছু মানুষ এই ঘটনা দেখতে পেয়ে এগিয়ে এসে পর্যটকদের উদ্ধার করেন। পর্যটকরা সুরক্ষিত ভাবে ঘাটে পৌঁছান।

এর আগে এই সুন্দরবনের ঘটে গিয়েছিল এক ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড, যার ফলে পুড়ে শেষ হয়ে গিয়েছিল একটি পর্যটকবাহী লঞ্চ। আর আজ এই ঘটনায় এক প্রকার আতঙ্কিত সুন্দরবনের পর্যটকরা।

এ দিকে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে চলে আসে সুন্দরবন উপকূল থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী। কী ভাবে এমন ধরনের ঘটনা ঘটল, সে বিষয়ে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। তবে বৃহস্পতিবার বিকেল অবধি কোনোভাবে তোলা যায়নি ডুবে যাওয়া পর্যটকদের সেই বোটটিকে। বার বার দুর্ঘটনা ঘটায় আতঙ্কিত পর্যটকরা।

আরও পড়তে পারেন: পৌষ সংক্রান্তির রেসিপি: চুষি পিঠের পায়েস

Continue Reading
Advertisement
Advertisement
রাজ্য2 days ago

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিশানা করতে সিপিএমের লাইনেই খেলছেন শুভেন্দু অধিকারী

দেশ3 days ago

নবম দফার বৈঠকেও কাটল না জট, ফের কৃষকদের সঙ্গে আলোচনায় বসবে কেন্দ্র

প্রযুক্তি3 days ago

হোয়াটসঅ্যাপে এ ভাবে সেটিং করলে আপনার আলাপচারিতা কেউ দেখতে পাবে না এবং তথ্যও থাকবে নিরাপদে

শরীরস্বাস্থ্য3 days ago

কেন খাবেন মেথি?

election commission of india
রাজ্য3 days ago

ভোট প্রস্তুতি তুঙ্গে! রাজ্যে আসছে নির্বাচন কমিশনের ফুল বেঞ্চ

বিদেশ2 days ago

ফাইজারের করোনা ভ্যাকসিন নেওয়ার পরে নরওয়েতে মৃত ২৩, শুরু তদন্ত

রাজ্য3 days ago

রাজ্যে আরও কমল দৈনিক সংক্রমণের হার, ১৩ জেলায় আক্রান্তের সংখ্যা এক অঙ্কে

রাজ্য3 days ago

শতাব্দী রায়ের ‘মানভঞ্জনে’ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়

কেনাকাটা

কেনাকাটা6 hours ago

ঘরের জন্য কয়েকটি খুবই প্রয়োজনীয় সামগ্রী

খবরঅনলাইন ডেস্ক: নিত্যদিনের প্রয়োজনীয় ও সুবিধাজনক বেশ কয়েকটি সামগ্রীর খোঁজ রইল অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদনটি লেখার সময় যে দাম ছিল তা-ই...

কেনাকাটা6 days ago

৯৯ টাকার মধ্যে ব্র্যান্ডেড মেকআপের সামগ্রী

খবর অনলাইন ডেস্ক : ব্র্যান্ডেড সামগ্রী যদি নাগালের মধ্যে এসে যায় তা হলে তো কোনো কথাই নেই। তেমনই বেশ কিছু...

কেনাকাটা1 week ago

কয়েকটি ফোল্ডিং আইটেম খুবই কাজের

খবরঅনলাইন ডেস্ক: এমন অনেক কিছুই থাকে যেগুলি সঙ্গে থাকলে অনেক সুবিধে হত বলে মনে হয়, কিন্তু সব সময় তা পাওয়া...

কেনাকাটা2 weeks ago

রান্নাঘরের কাজ এগুলি সহজ করে দেবেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রান্নাঘরের কাজ অনেক বেশি সহজ করে দিতে পারে যে সমস্ত জিনিস, তারই কয়েকটির খোঁজ রইল অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন...

কেনাকাটা2 weeks ago

ম্যাক্সিড্রেসের নতুন কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সুন্দর ম্যাক্সিড্রেসের চাহিদা এখন তুঙ্গে। সামনেই কোনো আনন্দ অনুষ্ঠানের নিমন্ত্রণ থাকলে ম্যাক্সি পরতে পারেন। বাছাই করা কয়েকটি ড্রেসের...

কেনাকাটা2 weeks ago

রকমারি ডিজাইনের ৯টি পুঁটলি ব্যাগের কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: বিয়ের মরশুমে নিমন্ত্রণে যেতে সাজের সঙ্গে মিলিয়ে ব্যাগ নেওয়ার চল রয়েছে। অনেকেই ডিজাইনার ব্যাগ পছন্দ করেন। তেমনই কয়েকটি...

কেনাকাটা2 weeks ago

কস্টিউম জুয়েলারির দারুণ কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: বিয়ের মরশুম আসছে। নিমন্ত্রণবাড়ি তো লেগেই থাকে। সেখানে আজকাল সোনার গয়নার থেকে কস্টিউম বা জাঙ্ক জুয়েলারি পরে যাওয়ার...

কেনাকাটা3 weeks ago

রুম হিটারের কালেকশন, ৬৫০ থেকে শুরু

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ভালোই শীত চলছে। এই সময় রুম হিটারের প্রয়োজনীয়তা খুবই। তা সে ঘরের জন্যই হোক বা অফিস, বা কোথাও...

কেনাকাটা3 weeks ago

চোখের যত্ন নিতে কিনুন এগুলি, খুবই কাজের

খবরঅনলাইন ডেস্ক: অনেকেই আছেন সারা দিনের ব্যস্ততার মাঝে যদিও বা পা, হাত বা মুখের টুকটাক যত্ন নেন, কিন্তু চোখের বিশেষ...

কেনাকাটা4 weeks ago

ফিলগুড প্রোডাক্ট! পছন্দ হবেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক: দিনের মধ্যে কিছু সময় যদি নিজের মতো করে নিজের জন্য দেওয়া যায় তা হলে মন যেমন ভালো থাকে...

নজরে