সুন্দরবনে বাঘের হানায় মৃত আরও ১ মৎস্যজীবী

ওয়েবডেস্ক: দক্ষিণ ২৪ পরগণার মৈপীঠ কোস্টাল থানা এলাকায় মঙ্গলবার ভোরে কাঁকড়া ধরতে গিয়ে নিমাই সাউ (৪২) নামে এক স্থানীয় বাসিন্দা বাঘের আক্রমণে মারা গেলেন। প্রতিবছর প্রায় ৩৫-৪০ জন মানুষ একই ভাবে আক্রান্ত হন এবং মারা যান।

গত বছর এমন একটা সময়েই পাশের বাড়ির কানাই ঘোষ মারা গিয়েছিলেন। আজও তার ময়না তদন্তের রিপোর্ট ও বন দফতর থেকে জীবন বিমার কাগজপত্র তার পরিবারের লোকজন হাতে পাননি! ফলে ক্ষতিপূরণও বিশবাঁও জলে!

পুলিশের অথবা বন দফতরের অসহযোগিতা ও সর্বোপরি রাজ্য সরকারের সদিচ্ছা না থাকায় এই ‘দিন আনা দিন খাওয়া’ মানুষের বঞ্চনা দিনের পর দিন ধরে চলে আসছে বলে স্থানীয় মানুষের অভিযোগ! আশ্চর্যের কথা, আক্রান্তের পরিবারের লোকজন ও একই ভাবে জীবনজীবিকা নির্বাহ করতে বাধ্য হন, নিরুপায় হয়ে! ওয়াকিবহাল মহলের মতে, এদের জন্য কোনো প্রশিক্ষণের ব্যবস্থাও তো করা যায়!

[ আরও পড়ুন: জ্বালানি কাঠ আনতে গিয়ে সুন্দরবনে বাঘের হামলায় মৃত্যু ]

প্রসঙ্গত, ২০০৬ সালের বনাধিকার আইনকে তোয়াক্কা না করে বনবাসী ও মৎসজীবীদের অধিকার খর্ব করা হচ্ছে এ ভাবেই।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.