Connect with us

দঃ ২৪ পরগনা

সুন্দরবন সেই তিমিরেই! ৫টি দ্বীপে খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দিল ‘গড়িয়া সহমর্মী’

বাতাসে যখন পুজোর গন্ধ, তখন কেমন আছেন কুমিরমারি, মোল্লাখালি, সাতজেলিয়া, রাঙাবেলিয়া, লাহিড়ীপুরের অসহায় আত্মজনেরা?

Published

on

সুন্দরবনের প্রত্যন্ত অঞ্চলে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ 'সহমর্মী'র তরফে।

সুব্রত গোস্বামী

“কস্তুরী-মৃগের নিজের দেহের মধ্যেই আছে কস্তুরী আবাস। কিন্তু সে মনে করে যে কস্তুরীর সুগন্ধ বাইরে থেকে ভেসে আসছে। তাই সে অস্থিরভাবে চারিদিকে ঘুরে বেড়ায়।”

এই প্রতিবেদন লেখার সময় মনে হল, সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণণের এই কথাই এই প্রতিবেদনের সূচনামুখ হিসাবে সুপ্রযুক্ত। আসলে মানুষের হৃদয়ের মধ্যেই আছেন ঈশ্বর/আল্লা/যিশু। কিন্তু আমরা এই ঈশ্বরের আরাধনা না করে মন্দির, মসজিদ, গির্জায় ঘুরে বেড়াই পরমেশ্বরের সন্ধানে।

এই ঈশ্বরের আরাধনায় ‘গড়িয়া সহমর্মী’ শনিবার আবার পৌঁছে গিয়েছিল সুন্দরবনের প্রত্যন্ত অঞ্চলে। এই নিয়ে বেশ কয়েক বার ‘সহমর্মী’ পৌঁছে গেল সুন্দরবনে। বাতাসে যখন পুজোর গন্ধ, তখন কেমন আছেন কুমিরমারি, মোল্লাখালি, সাতজেলিয়া, রাঙাবেলিয়া, লাহিড়ীপুরের অসহায় আত্মজনেরা?

‘সহমর্মী’র ৩৫ জন ক্যাডেট আগের দিন রাতেই পৌঁছে গিয়েছিলেন গদখালি। সেখান থেকে শনিবার ভোরে ৪টি লঞ্চে ১৮৫৬৪ কিলো খাদ্যসামগ্রী নিয়ে রওনা হয়ে যান সুন্দরবনের ৫টি দ্বীপের উদ্দেশে। সেই সব দ্বীপে পৌঁছে দেখা গেল, ঘূর্ণিঝড় উম্পুন এবং সেই সঙ্গে করোনার কারণে টানা লকডাউন, এই জোড়া আঘাতের ঘা এখনও দগদগে সুন্দরবনের শরীরে।

অসহায় আত্মজনের হাতে তুলে দেওয়া হল খাদ্যসামগ্রী।

যতই আশ্বিন আসুক, ভোরে শিউলি ফুটুক, তাদের অবস্থার কোনো উন্নতি চোখে পড়ল না। একটু খাবারের জন্য ক্ষুধার্ত অসহায় আত্মজনেরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে জঙ্গলে যাচ্ছেন মাছ, মধু, কাঁকড়া সংগ্রহ করতে। প্রায় প্রতি সপ্তাহেই বাঘ বা কুমিরের আক্রমণে জীবন হারাচ্ছেন এই মানুষেরা।

‘গড়িয়া সহমর্মী’র উদ্যোগে ও কগনিজ্যান্ট-এর (Cognizant) আর্থিক সহায়তায় এই সমস্ত অসহায় আত্মজনের হাতে তুলে দেওয়া হল খাদ্যসামগ্রী। ১৪২৮টি পরিবারের হাতে দেওয়া হল চাল, ডাল, আটা, তেল, চিনি, ছোলা, নুন, মশলা, চিঁড়ে ও সোয়াবিন।

দেবীপক্ষের শুরুতে এ ভাবেই ‘গড়িয়া সহমর্মী’ জীবন্ত ঈশ্বরদের চরণে নিবেদন করল পুজোর নৈবেদ্য। ‘মা’ সবাই কে ভালো রাখুন, রইল এই কামনা।

খবর অনলাইনে আরও পড়তে পারেন

জাতীয় গড়ের তুলনায় রাজ্যে সুস্থতার হার অনেকটাই বেশি, কেন্দ্রের প্রশংসা

Advertisement
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

উঃ ২৪ পরগনা

সক্কালেই ফোন, টাটা ক্যানসার হসপিটালে রক্ত দিয়ে এলেন ১৪ জন স্বেচ্ছাসেবী

একে পুজোর সময়, তার ওপর করোনার আবহ। রক্ত সংগ্রহ প্রায় হচ্ছেই না। ব্লাড ব্যাঙ্কে রক্ত নেই।

Published

on

এনসিসি ক্যাডেটদের রক্তদান।

খবরঅনলাইন ডেস্ক: পুজোর রেশ চলছে। প্রায় সবাই উৎসবের মুডে। সক্কালবেলায় বেজে উঠল মোবাইলের রিংটোন। ও প্রান্তে আর্তস্বর – “স্যার, কিছু একটা ব্যবস্থা করুন। হাসপাতালে রক্তের খুব অভাব। রক্ত না পেলে অনেক শিশুকে হয়তো বাঁচানো যাবে না।”

এ প্রান্তে যিনি ফোন ধরেছিলেন তিনি ভাঙড় কলেজের অধ্যাপক সুব্রত গোস্বামী। তিনি শুধু শিক্ষকই নন, লেফটেন্যান্ট। সামরিক প্রশিক্ষণ রয়েছে। কলেজের এনসিসি-র (National Cadet Corps) প্রধান।

সুব্রতবাবু জানালেন, ফোন এসেছিল টাটা ক্যানসার হসপিটাল থেকে। সেখানে চিকিৎসাধীন ছোট্ট শিশুরা রক্তের জন্য হাহাকার করছে। একে পুজোর সময়, তার ওপর করোনার আবহ। রক্ত সংগ্রহ প্রায় হচ্ছেই না। ব্লাড ব্যাঙ্কে রক্ত নেই।

এর ফাঁকে সুব্রতবাবুর পরিচয়টা আর একটু পরিষ্কার করে জানানো যাক। উনি একজন সমাজসেবী। ওঁর পরিচালনায় গড়িয়া সহমর্মী সোসাইটি (Garia Sahamarmi Society) সারা বছর ধরে নানা সমাজসেবামূলক কাজ করে থাকে। ‘সহমর্মী’ নিয়মিত সুন্দরবন অঞ্চলে চিকিৎসা শিবিরের ব্যবস্থা করে। গড়িয়া অঞ্চলে চক্ষু অস্ত্রোপচার শিবিরের আয়োজন করে। প্রতি বছর রাজ্যের নানা অঞ্চলে দুর্গাপুজোর সময় কাপড় আর খাদ্য নিয়ে দুঃস্থ মানুষদের পাশে দাঁড়ায়। এ বছর ঘূর্ণিঝড় বিধ্বস্ত সুন্দরবনে বার বার ছুটে গিয়েছে ত্রাণসামগ্রী, চিকিৎসাসামগ্রী নিয়ে।

সক্কালে ফোনটা পেয়েই ব্যস্ত হয়ে পড়লেন সুব্রতবাবু। জনে জনে ফোন করতে লাগলেন। জানাতে লাগলেন রক্ত দেওয়ার আর্জি। রক্ত দিতে হয়তো অনেকেই উৎসাহী, কিন্তু ভয়ে পিছিয়ে যাচ্ছেন – এটা করোনার সময়, এই সময় হাসপাতালে যাব?

রক্ত দিচ্ছেন সুব্রত গোস্বামী ও তাঁর পুত্র ঋষভ।

কিন্তু বেশি দেরি করা চলবে না। এখনই রক্ত চাই। শেষ পর্যন্ত তাঁর কলেজের ১২ জন অসমসাহসী এনসিসি ক্যাডেটকে পেয়ে গেলেন। আর সঙ্গী হল সুব্রতবাবুর পুত্র ঋষভ। ১৩ জনকে নিয়ে সুব্রতবাবু সাতসকালে হাজির হয়ে গেলেন টাটা ক্যানসার হাসপাতালে। সবাই রক্ত দিয়ে কিছুটা স্বস্তি পেলেন।

বাড়ি ফিরতে ফিরতে সুব্রতবাবু এই সময়টায় রক্তের এই নিদারুণ অভাবের কথাই ভাবছিলেন। ভাবছিলেন রক্তের এই সংকটের কী ভাবে মোকাবিলা করা যায়।  

তাঁর কথায়, “এই সময়ে রক্ত দিতে মানুষের এত ভয়! কিন্তু অনেকেই তো পুজোর আনন্দে নিজের মতো করে শামিল হতে পিছপা হচ্ছে না। হসপিটালে গেলে করোনা হবে, কিন্তু পুজোমণ্ডপে গেলে…। উওরটা আমার জানা নেই। কিন্তু স্রোতের বিপরীতে সাঁতার কাটার জন্য আমাদের কিছু সন্তান আছে। একেই বলে নিঃস্বার্থ সেবা। এটাই তো এনসিসি-র অন্যতম উদ্দেশ্য। শুধু বইয়ের পাতায় নয়, এরা জীবন বাজি রেখে বারবার প্রমাণ করে মানুষ মানুষের জন্য।”

সুব্রতবাবুর আবেদন – সবাই একটু ভাবুন, রক্তের সংকট দূর করতে এগিয়ে আসুন। রক্তদানের চেয়ে বড়ো পুণ্যকর্ম আর হয় না। এটা মানবতার পুজো। এর চেয়ে বড়ো পুজো আর কিছু নেই।

খবরঅনলাইনে আরও পড়ুন

মা ও শিশুসন্তানদের জন্য কাপড় ও খাবার নিয়ে হাওড়ার বালিতে ‘সহমর্মী’      

Continue Reading

দঃ ২৪ পরগনা

মা ও শিশুসন্তানদের জন্য কাপড় ও খাবার নিয়ে হাওড়ার বালিতে ‘সহমর্মী’

মৃন্ময়ী ‘মা’ যখন মণ্ডপে ২৫ লক্ষ টাকার গয়নায় সুসজ্জিত, তখন তাঁর সন্তানেরা দু’ মুঠো অন্নের আশায় ঝাড়খণ্ড থেকে এসে বালির ইটভাটায় লড়াই করে চলেছে।

Published

on

বালিতে সহমর্মীর ত্রাণ।

সুব্রত গোস্বামী

রাস্তায় একটা ব্যানারে হঠাৎ চোখ পড়ল। তাতে লেখা – ‘প্রতিমাতেই শুধু মা দুর্গা নন, প্রতি-মাতেই মা দুর্গা’। এই অনুভবেই বিশ্বাসী গড়িয়া সহমর্মী সোসাইটি (Garia Sahamarmi Society)।  

পুজো উপলক্ষ্যে মায়েদের হাতে নতুন কাপড় তুলে দেওয়ার জন্য সহমর্মী হাজির হয়ে গিয়েছিল বালির কিছু ইটভাটা-সহ কাছাকাছি কয়েকটি অঞ্চলে। মৃন্ময়ী ‘মা’ যখন মণ্ডপে ২৫ লক্ষ টাকার গয়নায় সুসজ্জিত, তখন তাঁর সন্তানেরা দু’ মুঠো অন্নের আশায় ঝাড়খণ্ড থেকে এসে বালির ইটভাটায় লড়াই করে চলেছে।

সহমর্মী পৌঁছে গিয়েছিল বালিতে।

ইটভাটায় গিয়ে যা দেখা গেল, তা কোনো ভাবেই ভাষায় প্রকাশ করা যায় না। ৬ ফুট বাই ৮ ফুট একটা ছোট্ট ঘরে কোনো রকমে এঁরা বাস করছেন। করোনাকালে শারীরিক দূরত্ববিধি মেনে চলার কথা বলা হচ্ছে। শারীরিক দূরত্ববিধি মানা এঁদের কাছে বিলাসিতা।

সেই ছোট্ট ঘরে একটাও জানলা নেই। মেঝেতে পড়ে আছে ছোট্ট শিশুর দল।  দেখলে মনে হয়, আফ্রিকার কোন দেশ থেকে এসেছে। এই আমাদের আধুনিক ভারত! চাঁদের মাটিতে আমরা যখন চন্দ্রযান পাঠাতে ব্যস্ত, তখন আমারই দেশের মানুষের এই চরম দুর্ভোগ।

বালির বিআইভিএ (BIVA), তার পর বিবিএ (BBA), বিএনএস (BNS) ও বিবিএ২ (BBA2) ইটভাটা এবং বিদ্যাসাগর কলোনিতে পৌঁছে গিয়েছিল ‘সহমর্মী’। ‘সহমর্মী’ পৌঁছে গিয়েছিল বেলানগরের ভগবানের ভাণ্ডারে।

বালির ওই সব জায়গায় ইটভাটায় ৫০ জন মহিলার হাতে শাড়ি ও খাবার এবং ১০০ জন শিশুর মুখে খাবার তুলে দেওয়া হল ‘সহমর্মী’র পক্ষ থেকে।

গড়াগাছায় সহমর্মীর ত্রাণ।

শুধুই বালির ইটভাটাই নয়, ‘সহমর্মী’-র আয়োজনে মহাষ্টমীর দিন গড়িয়া গড়াগাছায় ১৪০ জন শিশুর হাতে দুপুরের খাবার তুলে দেওয়া হল। এখানকার ছোট্ট দুগ্গা, লক্ষ্মী, সরস্বতী, কার্তিক, গণেশদের হাতে পুজোর নৈবেদ্য তুলে দিতে পেরে ‘সহমর্মী’ ধন্য ও ঋদ্ধ হল।

খবরঅনলাইনে আরও পড়ুন

পিতৃমাতৃহীন শিশুদের নিয়ে পুজোর দিনে ‘দুর্গা অ্যান্ড ফ্রেন্ডস’-এর অভিনব উদ্যোগ

Continue Reading

দঃ ২৪ পরগনা

এক প্রেমিকাকে মুন্ডু কেটে খুন করে আরেক জনকে নিয়ে পালাতে গিয়ে হাওড়া স্টেশনে পাকড়াও অভিযুক্ত

পুলিশের তদন্তে উঠে এল খুনের আসল রহস্য!

Published

on

ধৃত তিন অভিযুক্ত। নিজস্ব ছবি

উজ্জ্বল বন্দ্যোপাধ্যায়: জয়নগরের এক মহিলার কাটা মুন্ডু এবং ধড় উদ্ধারের ঘটনার কিনারা করল পুলিশ। পুলিশের তদন্তে উঠে এল খুনের আসল রহস্য!

পুলিশের হাতে ধৃত মূল অভিযুক্ত-সহ মোট তিন জন। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, গত ১৬ অক্টোবরের সকালে জয়নগর থানার ধোসা এবং রাজাপুরের মধ্যবর্তী অভয়নগর এলাকার গোদাবর চনাগুড়ি খালের পাশে এক মহিলার মুণ্ডহীন দেহ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয় মানুষ। তারাই জয়নগর থানায় খবর দেয়। তার পরে পাশের খালে জাল ফেলে ওই মহিলার মুণ্ড উদ্ধার করে পুলিশ। মহিলার পরিচয় জানার জন্য পুলিশ আশেপাশের সমস্ত থানা ও জেলায় ছবি-সহ খবর দেয়।

শেষমেশ মন্দিরবাজার থানা এলাকা থেকে মহিলাকে শনাক্ত করে তাঁর বাড়ির লোক। নাম আলেয়া বিবি। মহিলাকে শনাক্ত করার পরে পুলিশ ঝাঁপিয়ে পড়ে তাঁর বিষয়ে সমস্ত রকম তথ্য সংগ্রহ করতে এবং তাতেই পুলিশ জানতে পারে যে, কুলতলির মেরিগঞ্জের বাসিন্দা ফরমান লস্করের সঙ্গে তাঁর একটা সম্পর্ক ছিল। এটাও জানা যায়, আলেয়াকে মন্দিরবাজার থানা এলাকারই মনিরা নামে একটি যুবতী তাঁকে নিজের বাড়িতে ডেকেছিল গত ১৪ অক্টোবর। তার পর থেকেই আলেয়া আর বাড়ি ফেরেননি।

মনিরার বাড়িতে খোঁজ করে জানা যায় সে দু-তিনদিন ধরে বাড়িতে নেই। এর পরেই বিভিন্ন দলে ভাগ হয়ে বারুইপুর পুলিশ জেলার জয়নগর থানার আইসি অতনু সাঁতরার নেতৃত্বে পুলিশের বিশেষ টিম একাধিক জায়গায় খোঁজ চালাতে থাকে এবং জাল পাতে ফরমান ও মনিরাকে ধরর জন্য। আর তাতেই সাফল্য আসে।

পুলিশ এ দিন জানায়, মঙ্গলবার রাতে হাওড়া স্টেশন থেকে ট্রেনে করে ভিন রাজ্যে পালাতে গিয়ে পুলিশের হাতে ধরা পড়ে ফরমান এবং মনিরা। জেরায় তারা স্বীকার করে খুনের কথা। তাদের দু’জনকে নিয়ে পুলিশ আরেক অভিযুক্ত আতিয়ারকে কুলতলি থানার মেরিগঞ্জ এলাকা থেকে গ্রেফতার করে।

ঘটনায় প্রকাশ, তিন সন্তানের মা চল্লিশোর্ধ্ব আলেয়া ভালোবাসতেন ফরমানকে। চেয়েছিলেন তাকে বিয়ে করতে। এ দিকে মনিরাও চাইত ফরমানকে বিয়ে করে সংসার পাততে। একাধিক সম্পর্কে যুক্ত ফরমান আগেই বিবাহিত। তার স্ত্রী থাকতেন মেরিগঞ্জে। তবুও অবৈধ সম্পর্কের নিষিদ্ধ আনন্দ উপভোগ করতে সে পিছপা হয়নি। এর পর ফরমান ও মনিরা ছক কষে আলেয়াকে পথ থেকে সরিয়ে দিয়ে দু’জনে ভিন রাজ্যে চলে যাবে। যেমন পরিকল্পনা, সেই মতো কাজ। মনিরা জয়নগরে ডেকে আনে আলেয়াকে।

তার পর বধ্যভূমিরূপ গোদাবর চানাগুড়ি খালের কাছে নিয়ে গিয়ে নির্মম ভাবে আলেয়াকে হত্যা করে ফরমান। জানা যায়, মুণ্ড কেটে পাশের খালের জলে ফেলে দেয় মৃতার পরিচয় গোপন রাখবার জন্য এবং এই কাজে তাঁর আর এক সঙ্গী ছিল আতিয়ার নামে এক বন্ধু । ফরমান এবং মনিরা ভিন রাজ্যে গা-ঢাকা দেওয়ার আগেই পুলিশের জালে ধরা পড়ে যায়।

পুলিশের হাতে ধৃত তিনজন হল – ফরমান লস্কর ওরফে বাবলু (৪২), আতিয়ার রহমান খান (৩০), দু’জনেরই বাড়ি কুলতলির মেরিগঞ্জের নাইয়াপাড়াতে এবং মনিরা সাউ, বাড়ি মন্দিরবাজার থানা আঙরাবেড়িয়াতে। ধৃতদের বুধবার বারুইপুর মহকুমা আদালতে তোলা হলে বিচারক ১৪ দিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দেন।

আরও পড়তে পারেন: কোভিডবিধি ভেঙে মাস্ক না পরায় কলকাতায় গ্রেফতার ৩ হাজারের বেশি

Continue Reading

Amazon

Advertisement
রাজ্য52 mins ago

রাজ্যপাল জগদীপ ধানখড়কে বিজেপির ‘লাউডস্পিকার’ বলল তৃণমূল

কেনাকাটা1 hour ago

দীপাবলিতে ঘর সাজাতে লাইট কিনবেন? রইল ১০টি নতুন কালেকশন

দেশ1 hour ago

দুই দেশ একে অপরের পরিপূরক শক্তি: বাংলাদেশের শিল্পমন্ত্রীর সঙ্গে ভারতীয় হাই কমিশনারের বৈঠক

দেশ1 hour ago

গাড়ি ব্যবহার বন্ধ রেখে সময় এসেছে সাইকেল চালানোর, বলল সুপ্রিম কোর্ট

রাজ্য2 hours ago

আক্রান্তের সংখ্যা বাড়লেও রাজ্যে টেস্টও বাড়ল, কমল দৈনিক সংক্রমণের হার, ৮৮ শতাংশ পেরোল সুস্থতার হার

বিদেশ3 hours ago

‘ঘুস কে মারা’,পুলওয়ামা হামলায় বিস্ফোরক দাবি পাক মন্ত্রীর

দেশ4 hours ago

শেষ ৯ দিনে ভারতে এক কোটি নমুনা পরীক্ষা, করোনা সংক্রমণের হারে ধারাবাহিক পতন

বিদেশ5 hours ago

ফ্রান্সের গির্জা চত্বরে এক মহিলাকে গলা কেটে খুন, নিহত আরও ২

দেশ13 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ৪৯,৮৮১, সুস্থ ৫৬,৪৮০

rohit sharma
ক্রিকেট3 days ago

রোহিতে রহস্য! চোটের জন্য অস্ট্রেলিয়াগামী দল থেকে বাদ পড়লেও, মুম্বইয়ের অনুশীলনে ‘হিটম্যান’

ক্রিকেট3 days ago

চতুর্থ স্থান থেকে কলকাতাকে ছিটকে দিয়ে টানা পঞ্চম ম্যাচ জয় পঞ্জাবের

containment kolkata
কলকাতা1 day ago

লকডাউন নিয়ে গুজবের বিরুদ্ধে পুলিশি পদক্ষেপ

বিনোদন2 days ago

সিবিআই গ্রেফতার করতে পারে, আশঙ্কায় তড়িঘড়ি আদালতের দ্বারস্থ সুশান্ত সিং রাজপুতের দুই দিদি

বিনোদন2 days ago

দেশের সব থেকে বিশ্বস্ত ব্র্যান্ড কে?

কলকাতা3 days ago

পিতৃমাতৃহীন শিশুদের নিয়ে পুজোর দিনে ‘দুর্গা অ্যান্ড ফ্রেন্ডস’-এর অভিনব উদ্যোগ

বিদেশ3 days ago

২ নভেম্বর থেকে সাধারণের ওপরে অক্সফোর্ডের কোভিড-টিকার প্রয়োগ শুরু, ব্রিটেনের হাসপাতালকে তৈরি থাকার নির্দেশ

কেনাকাটা

কেনাকাটা1 hour ago

দীপাবলিতে ঘর সাজাতে লাইট কিনবেন? রইল ১০টি নতুন কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আসছে আলোর উৎসব। কালীপুজো। প্রত্যেকেই নিজের বাড়িকে সুন্দর করে সাজায় নানান রকমের আলো দিয়ে। চাহিদার কথা মাথায় রেখে...

কেনাকাটা3 weeks ago

মেয়েদের কুর্তার নতুন কালেকশন, দাম ২৯৯ থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক: পুজো উপলক্ষ্যে নতুন নতুন কুর্তির কালেকশন রয়েছে অ্যামাজনে। দাম মোটামুটি নাগালের মধ্যে। তেমনই কয়েকটি রইল এখানে। প্রতিবেদন...

কেনাকাটা4 weeks ago

‘এরশা’-র আরও ১০টি শাড়ি, পুজো কালেকশন

খবর অনলাইন ডেস্ক : সামনেই পুজো আর পুজোর জন্য নতুন নতুন শাড়ির সম্ভার নিয়ে হাজর রয়েছে এরশা। এরসার শাড়ি পাওয়া...

কেনাকাটা4 weeks ago

‘এরশা’-র পুজো কালেকশনের ১০টি সেরা শাড়ি

খবর অনলাইন ডেস্ক : পুজো কালেকশনে হ্যান্ডলুম শাড়ির সম্ভার রয়েছে ‘এরশা’-র। রইল তাদের বেশ কয়েকটি শাড়ির কালেকশন অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন...

কেনাকাটা4 weeks ago

পুজো কালেকশনের ৮টি ব্যাগ, দাম ২১৯ টাকা থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক : এই বছরের পুজো মানে শুধুই পুজো নয়। এ হল নিউ নর্মাল পুজো। অর্থাৎ খালি আনন্দ করলে...

কেনাকাটা1 month ago

পছন্দসই নতুন ধরনের গয়নার কালেকশন, দাম ১৪৯ টাকা থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক : পুজোর সময় পোশাকের সঙ্গে মানানসই গয়না পরতে কার না মন চায়। তার জন্য নতুন গয়না কেনার...

কেনাকাটা1 month ago

নতুন কালেকশনের ১০টি জুতো, ১৯৯ টাকা থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক : পুজো এসে গিয়েছে। কেনাকাটি করে ফেলার এটিই সঠিক সময়। সে জামা হোক বা জুতো। তাই দেরি...

কেনাকাটা1 month ago

পুজো কালেকশনে ৬০০ থেকে ১০০০ টাকার মধ্যে চোখ ধাঁধানো ১০টি শাড়ি

খবর অনলাইন ডেস্ক: পুজোর কালেকশনের নতুন ধরনের কিছু শাড়ি যদি নাগালের মধ্যে পাওয়া যায় তা হলে মন্দ হয় না। তাও...

কেনাকাটা1 month ago

মহিলাদের পোশাকের পুজোর ১০টি কালেকশন, দাম ৮০০ টাকার মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : পুজো তো এসে গেল। অন্যান্য বছরের মতো না হলেও পুজো তো পুজোই। তাই কিছু হলেও তো নতুন...

কেনাকাটা1 month ago

সংসারের খুঁটিনাটি সমস্যা থেকে মুক্তি দিতে এই জিনিসগুলির তুলনা নেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিজের ও ঘরের প্রয়োজনে এমন অনেক কিছুই থাকে যেগুলি না থাকলে প্রতি দিনের জীবনে বেশ কিছু সমস্যার...

নজরে