Connect with us

দঃ ২৪ পরগনা

সুন্দরবনে ম্যানগ্রোভ রোপণে এ বার পরিবেশ-বান্ধব ‘জিও-জুট’ পদ্ধতি

পরিবেশ-বান্ধব এই পদ্ধতি সুন্দরবনে প্রথম।

Published

on

চলছে জিও-জুট পদ্ধতিতে ম্যানগ্রোভ রোপণ। নিজস্ব ছবি

উজ্জ্বল বন্দ্যোপাধ্যায়, সুন্দরবন: সুন্দরবনের ম্যানগ্রোভ অর‌ণ্যকে বাঁচাতে রাজ্য সরকার পাঁচ কোটি ম্যানগ্রোভ রোপণের কাজ শুরু করেছে। আর সেই ক্ষেত্রে দ্রুত ম্যানগ্রোভ রোপণে সাফল্যে এনে দিয়েছে ‘জিয়ো-জুট’‌ পদ্ধতি।

পরিবেশ -বান্ধব এই পদ্ধতি সুন্দরবনে এই প্রথম। এত দিন ম্যানগ্রোভ চারাগাছ তৈরি করতে প্লাস্টিকের ঠোঙা ব্যবহার করা হচ্ছিল। তাতে চারার বৃদ্ধি কম ঘটছিল। এ বার চটের তৈরি প্যাকেট (জিয়ো-জুট) ব্যবহার করে সাফল্য পাওয়া গিয়েছে। অল্পদিনেই গাছের বৃদ্ধি ঘটেছে দ্বিগুণ।

এই সাফল্যে বেজায় খুশি দক্ষিণ ২৪ পরগনার জেলা প্রশাসনের কর্তারা। এত দিন প্লাস্টিক ব্যবহারের কারণে এমনিতেই সুন্দরবন দূষিত হচ্ছিল। প্রাকৃতিক ভারসাম্যের কথা মাথায় রেখে ‘জিয়ো-জুটে’র মাধ্যমে নদী বাঁধের চরে চলতি বছরে ম্যানগ্রোভ চারা তৈরির কাজ করানো হয়েছে ‘জিয়ো-জুটে’র সাহায্যে। আর তাতেই সাফল্য পাওয়া গেছে অভাবনীয়।

পরিবেশবিদদের মতে, চটের প্যাকেটে তৈরি করা চারা সরাসরি তুলে চট-সহ বসিয়ে দিতে হবে। পরে চট পচে গিয়ে গাছের সার হিসাবেও ব্যবহার হবে। তাতে গাছ ও স্বাস্থ্যকর হবে এবং দ্রুত বৃদ্ধি ঘটবে।

‘জিয়ো-জুটের’ প্রসঙ্গে জেলারইজিএ’র দফতরের এক আধিকারিক বলেন, “সুন্দরবনে এই প্রথম পরীক্ষা মূলক ভাবে ‘ইকো-ফ্রেন্ডলি গ্রিন নার্সারি (জিয়ো-জুট) ব্যবহার করে ম্যানগ্রোভ নার্সারি করানো হয়েছে। এতে আমরা একশো শতাংশ সফল হয়েছি”।

তাঁর মতে, আগে প্ল্যাস্টিক পটে চারা তৈরি করা হতো। রোপণযোগ্য চারা তৈরি করতে সময় লাগত প্রায় ছ’মাস। জিয়ো-জুটে তৈরি চারা এক মাসের রোপণের উপযুক্ত হয়ে গিয়েছে। এই চারা বেশ সুস্থ সবল। তা ছাড়া বৃদ্ধিও ভালো।

আরও পড়তে পারেন: উম্পুন কেড়েছে পাখির আশ্রয়, সুন্দরবনের ম্যানগ্রোভে কৃত্রিম বাসা তৈরি করছে সরকার

সুন্দরবনের ক্যানিং-১ ব্লকের নিকারী ঘাটা গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার মাতলা নদীর চরে, গোসাবা ব্লকের রাঙাবেলিয়া ও ছোট মোল্লাখালিতে এই ‘জিয়ো-জুট’ ব্যবহারের মাধ্যমে স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলারা এই চারগাছ তৈরির কাজ চালাচ্ছেন। এতে এক দিকে যেমন পরিবেশের দূষণ কমছে, অন্য দিকে সুন্দরবনের মহিলাদের কর্মসংস্থানও হচ্ছে।

Advertisement
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

কলকাতা

‘গড়িয়া সহমর্মী’ ও ‘কে কে দাস কলেজ’ আবার সুন্দরবনে, স্বামীহারাদের হাতে নতুন কাপড়

৫৫০ জন বিধবা মায়ের হাতে নতুন কাপড় তুলে দিতেই এই যাত্রা।

Published

on

প্রতীক্ষা।

সুব্রত গোস্বামী

“মানুষ বড় একলা…”

এই প্রতিবেদন লেখার সময় রবিঠাকুরের একটা গানের কথা খুব মনে পড়ছে।

“আমার হিয়ার মাঝে লুকিয়ে ছিলে/দেখতে আমি পাই নি।/বাহির-পানে চোখে মেলেছি/হৃদয়-পানেই চাই নি।”

বাতাসে এখন পুজোর গন্ধ, ভোরের আলো ফোটার সঙ্গে সঙ্গেই শিউলি ফুলের গন্ধ মনকে ভালো করে দেয়। শারদোৎসবে সবাই যখন মৃন্ময়ী উমামায়ের আরাধনায় ব্যস্ত, তখন ‘গড়িয়া সহমর্মী সোসাইটি’ ও গড়িয়ার ‘কে কে দাস কলেজ’ যৌথ ভাবে ফের ত্রাণসামগ্রী পৌঁছে দিল সুন্দরবনের প্রত্যন্ত অঞ্চলে।

অসহায় আত্মজনের দীর্ঘ লাইন।

জানা গেল, ঘূর্ণিঝড় আমফান (Cyclone Amphan) ও লকডাউনের (lockdown) আক্রমণে বিপর্যস্ত, অসহায় আত্মজনেরা একটু রোজগারের আশায়, জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কী ভাবে জঙ্গল যাচ্ছেন মধু ও কাঁকড়া সংগ্রহ করতে। দিনের শেষে কেউ বাড়িতে ফিরে আসছেন, কেউ বা বাঘের আক্রমণে প্রাণ হারাচ্ছেন।

বাঘ ও কুমিরের আক্রমণে প্রাণ হারিয়েছেন সাতজেলিয়া, লাহিড়ীপুর, দয়াপুর, রাঙাবেলিয়া, বালি, গোসাবা, সোনারগাঁ দ্বীপের বহু মানুষ। এমনই ৫৫০ জন বিধবা মায়ের হাতে নতুন কাপড় তুলে দিতেই এই যাত্রা। 

অসহায় মানুষের পাশে ‘গড়িয়া সহমর্মী’ ও কে কে দাস কলেজ।

অমূল্য সম্পদে এঁরা ধনী, কিছুক্ষণ আলাপেই সেটা বোঝা যায়। আমফানের পরবর্তী সময়ে এই নিয়ে আট বার এই সমস্ত অসহায় আত্মজনের সান্নিধ্যে আসার সুযোগ পাওয়া গেল। দেখলাম এই সব আত্মজনে কত অল্পেই সন্তুষ্ট। অকৃপণ ভালোবাসা ঝরে পড়ছে এঁদের চোখেমুখে।

আবেগে আপ্লুত হয়ে আমার চোখের কোনা থেকে জল গড়িয়ে চিবুক ছুঁয়েছে। খালি মনে হচ্ছে কবিগুরুর গানটি। আমাদের হৃদয়ের মধ্যেই যে ঈশ্বরের বাস, তাঁর আরাধনা না করে কেন আমরা, মাটির প্রতিমার আরাধনা করছি! এই সমস্ত অসহায় আত্মজনের মধ্যেই তো ঈশ্বর আছেন।

একটু স্বস্তি।

সুন্দরবনের মানুষ যে বড়ো অসহায়। মৃত্যু হবে জেনেও শুধুমাত্র ক্ষুধার তাড়নায় জঙ্গলে ছুটে যান। কবে বন্ধ হবে এ মৃত্যু মিছিল…। বার বার মনে পড়ছে কবি শক্তি চট্রোপাধ্যায়ের সেই কবিতা-

“মানুষ বড়ো কাঁদছে, তুমি মানুষ হয়ে পাশে দাঁড়াও/মানুষই ফাঁদ পাতছে, তুমি পাখির মতো পাশে দাঁড়াও/মানুষ বড়ো একলা, তুমি তাহার পাশে এসে দাঁড়াও।/তোমাকে সেই সকাল থেকে তোমার মতো মনে পড়ছে/সন্ধে হলে মনে পড়ছে, রাতের বেলায় মনে পড়ছে/মানুষ বড়ো একলা, তুমি তাহার পাশে এসে দাঁড়াও।/এসে দাঁড়াও, ভেসে দাঁড়াও এবং ভালোবেসে দাঁড়াও/মানুষ বড় কাঁদছে, তুমি মানুষ হয়ে পাশে দাঁড়াও/মানুষ বড়ো একলা, তুমি তাহার পাশে এসে দাঁড়াও।

আজ কত প্রাসঙ্গিক এই কবিতা!

খবরঅনলাইনে আরও পড়ুন

সুন্দরবন সেই তিমিরেই! ৫টি দ্বীপে খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দিল ‘গড়িয়া সহমর্মী’

Continue Reading

দঃ ২৪ পরগনা

অবশেষ খাঁচাবন্দি কুলতলির সেই রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার!

গোয়ালে ঢুকে গোরু মেরেছিল রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার, পুনরাবৃত্তির আতঙ্কে কাঁটা হয়েছিলেন গ্রামবাসীরা!

Published

on

খাঁচাবন্দি বাঘ

উজ্জ্বল বন্দ্যোপাধ্যায়, কুলতলি: আতঙ্ক ঘিরে ধরেছিল গত সোমবার রাত থেকে। লোকালয়ে ঢুকে গোরুকে মেরে ফেলেছিল রয়েল বেঙ্গল টাইগার। গ্রামবাসীদের চেঁচামেচিতে সেই বাঘ গা-ঢাকা দিলেও আতঙ্ক কাটছিল না গ্রামবাসীদের। অবশেষ বন দফতরের পাতা খাঁচায় ধরা পড়ল দক্ষিণরায়।

গত সোমবার সন্ধ্যায় কুলতলি ব্লকের মৈপীঠ উপকূল থানার বৈকুন্ঠপুর ৬ নম্বর এলাকায় নদী তীরবর্তী জনৈক ভীম নায়েকের বাড়ির গোয়ালঘরে ঢুকে একটি গোরুকে মেরে ফেলে একটি বাঘ। তারপর মানুষের চেঁচামেচিতে জঙ্গলের রাস্তায় অনেকক্ষণ বসে থাকে।

ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে চলে আসেন বনদফতরের সহকারী জেলা বন আধিকারিক অনুরাগ চৌধুরী, মৈপীঠ উপকূল থানার ওসি ফারুক আহমেদ-সহ পদস্থ আধিকারিকরা। বন দফতরের রায়দিঘি রেঞ্জের নলগোড়া, চিতুরি, বনি ক্যাম্পের বন কর্মীরা ও গ্রামবাসীদের চেষ্টায় রাতে জঙ্গলে ঢুকে যায় বাঘটি। সারারাত চেষ্টা করেও তাঁর কোনো খোঁজ পাওয়া যায় না।

অবশেষে গ্রামে ঢুকে পড়া বাঘটিকে আজমলমাড়ির জঙ্গলে চর থেকে খাঁচাবন্দি করলেন বনদফতরের কর্মীরা। জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার খাবারের টোপ ব্যবহার করে খাঁচা পাতে বন দফতর। টোপ হিসেবে ব্যবহৃত ছাগল খেতেই মঙ্গলবার রাত সাড়ে আটটা নাগাদ খাঁচায় ঢুকে পড়ে বাঘটি।

বুধবার বন দফতর জানায়, আজমল মারি ১২ নম্বর জঙ্গল থেকেই একটি পূর্ণবয়স্ক বাঘটি ওরিয়ান নালা সাঁতরে ঢুকে পড়েছিল। মঙ্গলবার নদী সাঁতরে সে জঙ্গলে ফেরত চলে যায়। এ দিন তাকে খাচাবন্দি করার পর ঝড়খালি রেসকিউ সেন্টারে রাখা হয়েছে। সেখানে ফিট সার্টিফিকেট হাতে আসার পর গভীর জঙ্গলে ছেড়ে দেওয়া হবে।

আরও পড়তে পারেন: গোয়ালে ঢুকে গোরু মারল রয়াল বেঙ্গল টাইগার, পুনরাবৃত্তির আতঙ্কে কাঁটা গ্রামবাসীরা

বন দফতর সূত্রে খবর, বাঘটির আনুমানিক বয়স বছর পাঁচেক। প্রাথমিক পরীক্ষার পর জানা গিয়েছে, বাঘটি সম্পূর্ণ সুস্থ রয়েছে। জঙ্গলে নাইলনের জাল ছিঁড়ে কোনো ভাবে বাঘটি বাইরে বেরিয়ে এসেছিল।

Continue Reading

দঃ ২৪ পরগনা

গোয়ালে ঢুকে গোরু মারল রয়াল বেঙ্গল টাইগার, পুনরাবৃত্তির আতঙ্কে কাঁটা গ্রামবাসীরা

এ বারে লোকালয়ে ঢুকে গোরুকে মেরে ফেলল রয়েল বেঙ্গল টাইগার।

Published

on

সেই বাঘ এবং তার পায়ের ছাপ। নিজস্ব ছবি

উজ্জ্বল বন্দ্যোপাধ্যায়, কুলতলি: কয়েক মাস ধরে সুন্দরবনের জঙ্গলে মাছ ও কাঁকড়া ধরতে গিয়ে বাঘের হানায় মৃত্যুর ঘটনা ঘটছিল। এ বারে লোকালয়ে ঢুকে গোরুকে মেরে ফেলল রয়েল বেঙ্গল টাইগার।

সোমবার সন্ধ্যায় কুলতলি ব্লকের মৈপীঠ উপকূল থানার বৈকুন্ঠপুর ৬ নম্বর এলাকায় নদী তীরবর্তী জনৈক ভীম নায়েকের বাড়ির গোয়ালঘরে ঢুকে একটি গরুকে মেরে ফেলে একটি বাঘ। তারপর মানুষের চেঁচামেচিতে জঙ্গলের রাস্তায় অনেকক্ষণ বসে থাকে।

ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে চলে আসেন বনদফতরের সহকারী জেলা বন আধিকারিক অনুরাগ চৌধুরী, মৈপীঠ উপকূল থানার ওসি ফারুক আহমেদ-সহ পদস্থ আধিকারিকরা। বন দফতরের রায়দিঘি রেঞ্জের নলগোড়া, চিতুরি, বনি ক্যাম্পের বন কর্মীরা ও গ্রামবাসীদের চেষ্টায় রাতে জঙ্গলে ঢুকে যায় বাঘটি । সারারাত চেষ্টা করেও তাঁর কোনো খোঁজ পাওয়া যায় না।

[বাঘের থাবায় মৃত গোরু]

অবশেষে মঙ্গলবার সকালে ড্রোন ক্যামেরার মাধ্যমে ওই গ্রামের কাছাকাছি একটি জঙ্গলে বাঘটিকে দেখতে পান বনকর্মীরা। তার পরে সকাল ১০টা নাগাদ বন দফতরের কর্মীরা বাঘটিকে তাড়া করলে বাঘটি নদী পার হয়ে গভীর জঙ্গলে চলে যায়।

তবে এই ঘটনায় এখনো গ্রামবাসীরা আতঙ্কিত। ওই গ্রামের সব জঙ্গলে নাইলনের জাল দিয়ে ঘিরে দিয়েছে বন কর্মীরা। মঙ্গলবার রাতেও বনকর্মীরা গ্রামবাসীদের সঙ্গেও এলাকায় আছেন।

ক্ষতিগ্রস্ত ভীম নায়েক-সহ এলাকার কয়েকজন গ্রামবাসীরা জানালেন, “আমরা খুব ভয়ে আছি। সুন্দরবনের রাজা একবার এসে খাবার না খেতে পেয়ে ফিরে গেছে। আবার আসবে সে। তাই খুব ভয়ে আছি। কখন কী হয়”। সোমবার সন্ধ্যার ঘটনার পুনরাবৃত্তির আতঙ্কে কাঁটা মৈপীঠের গ্রামবাসীরা।

আরও পড়তে পারেন: কয়েক ফুট দূরে দাঁড়িয়ে রয়েল বেঙ্গল টাইগার, কোনো রকমে প্রাণে বাঁচলেন সুন্দরবনের দুই মৎস্যজীবী

Continue Reading

Amazon

Advertisement
দেশ1 hour ago

বিহারে গোরক্ষপুর-কলকাতা পুজো স্পেশাল ট্রেনের দু’টি কামরা বেলাইন, অল্পের জন্য রক্ষা

দুর্গা পার্বণ1 hour ago

দুর্গোৎসব বাংলাদেশে: করোনা কেড়ে নিয়েছে বরদেশ্বরী কালীমন্দিরের দুর্গাপুজোর উৎসব

রাজ্য2 hours ago

জেপি নাড্ডাকে একহাত নিলেন অধীররঞ্জন চৌধুরী

coronavirus west bengal
রাজ্য2 hours ago

এই প্রথম রাজ্যে এক দিনে আক্রান্ত ৪ হাজার, বাড়ছে সুস্থতাও

দেশ4 hours ago

প্রত্যেক দেশবাসীর কাছে টিকা পৌঁছানোর জন্য চেষ্টা চলছে: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

রাজ্য5 hours ago

ডাক্তারি পড়তে আগ্রহীদের জন্য সুখবর দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

দেশ5 hours ago

আজ থেকে ৩৯২টি উৎসব স্পেশাল ট্রেন, দেখে নিন পূর্ণাঙ্গ তালিকা

দেশ6 hours ago

‘বালিয়া গুলিচালনা’য় অভিযুক্তকে সমর্থনের জন্য বিজেপির শোকজ নোটিশ বিধায়ককে

দেশ12 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ৪৬৭৯০, সুস্থ ৬৬৩৯৯

দেশ7 hours ago

কোভিড মহামারিতে বিহার ভোটে খরচের ঊর্ধ্বসীমা বাড়ল ১০ শতাংশ

দেশ5 hours ago

আজ থেকে ৩৯২টি উৎসব স্পেশাল ট্রেন, দেখে নিন পূর্ণাঙ্গ তালিকা

ক্রিকেট2 days ago

লাইভ সাক্ষাৎকারে নিজের বাতকর্মের আওয়াজ রেকর্ডিং করে শোনালেন ডেভিড ওয়ার্নার!

ক্রিকেট3 days ago

শিখর ধাওয়ানের শতরানে চেন্নাইয়ের বিরুদ্ধে নাটকীয় জয় দিল্লির

দেশ2 days ago

আসন্ন শীতে করোনা সংক্রমণের ‘দ্বিতীয় ঢেউ’-এর সম্ভাবনা অস্বীকার করছেন না বিশেষজ্ঞ কমিটির প্রধান

কলকাতা2 days ago

বন্দুকওয়ালা দাঁ বাড়িতে সন্ধিপূজার সময় পুরুষ সদস্যরা নৈবেদ্য সাজান

durga
রাজ্য1 day ago

রাজ্যের সব পুজো প্যান্ডেল ‘নো এন্ট্রি জোন’, ঐতিহাসিক রায় কলকাতা হাইকোর্টের

কেনাকাটা

কেনাকাটা2 weeks ago

মেয়েদের কুর্তার নতুন কালেকশন, দাম ২৯৯ থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক: পুজো উপলক্ষ্যে নতুন নতুন কুর্তির কালেকশন রয়েছে অ্যামাজনে। দাম মোটামুটি নাগালের মধ্যে। তেমনই কয়েকটি রইল এখানে। প্রতিবেদন...

কেনাকাটা2 weeks ago

‘এরশা’-র আরও ১০টি শাড়ি, পুজো কালেকশন

খবর অনলাইন ডেস্ক : সামনেই পুজো আর পুজোর জন্য নতুন নতুন শাড়ির সম্ভার নিয়ে হাজর রয়েছে এরশা। এরসার শাড়ি পাওয়া...

কেনাকাটা3 weeks ago

‘এরশা’-র পুজো কালেকশনের ১০টি সেরা শাড়ি

খবর অনলাইন ডেস্ক : পুজো কালেকশনে হ্যান্ডলুম শাড়ির সম্ভার রয়েছে ‘এরশা’-র। রইল তাদের বেশ কয়েকটি শাড়ির কালেকশন অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন...

কেনাকাটা3 weeks ago

পুজো কালেকশনের ৮টি ব্যাগ, দাম ২১৯ টাকা থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক : এই বছরের পুজো মানে শুধুই পুজো নয়। এ হল নিউ নর্মাল পুজো। অর্থাৎ খালি আনন্দ করলে...

কেনাকাটা3 weeks ago

পছন্দসই নতুন ধরনের গয়নার কালেকশন, দাম ১৪৯ টাকা থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক : পুজোর সময় পোশাকের সঙ্গে মানানসই গয়না পরতে কার না মন চায়। তার জন্য নতুন গয়না কেনার...

কেনাকাটা4 weeks ago

নতুন কালেকশনের ১০টি জুতো, ১৯৯ টাকা থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক : পুজো এসে গিয়েছে। কেনাকাটি করে ফেলার এটিই সঠিক সময়। সে জামা হোক বা জুতো। তাই দেরি...

কেনাকাটা4 weeks ago

পুজো কালেকশনে ৬০০ থেকে ১০০০ টাকার মধ্যে চোখ ধাঁধানো ১০টি শাড়ি

খবর অনলাইন ডেস্ক: পুজোর কালেকশনের নতুন ধরনের কিছু শাড়ি যদি নাগালের মধ্যে পাওয়া যায় তা হলে মন্দ হয় না। তাও...

কেনাকাটা4 weeks ago

মহিলাদের পোশাকের পুজোর ১০টি কালেকশন, দাম ৮০০ টাকার মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : পুজো তো এসে গেল। অন্যান্য বছরের মতো না হলেও পুজো তো পুজোই। তাই কিছু হলেও তো নতুন...

কেনাকাটা1 month ago

সংসারের খুঁটিনাটি সমস্যা থেকে মুক্তি দিতে এই জিনিসগুলির তুলনা নেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিজের ও ঘরের প্রয়োজনে এমন অনেক কিছুই থাকে যেগুলি না থাকলে প্রতি দিনের জীবনে বেশ কিছু সমস্যার...

কেনাকাটা1 month ago

ঘরের জায়গা বাঁচাতে চান? এই জিনিসগুলি খুবই কাজে লাগবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : ঘরের মধ্যে অল্প জায়গায় সব জিনিস অগোছালো হয়ে থাকে। এই নিয়ে বারে বারেই নিজেদের মধ্যে ঝগড়া লেগে...

নজরে